পিছিয়ে গেলো আফ্রিকান নেশন্স কাপও

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:১৭, জুন ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:১৮, জুন ৩০, ২০২০

২০১৯ সালে নেশন্স কাপের সবশেষ আসরে শিরোপা জিতেছিল আলজেরিয়া। ছবি: রয়টার্সপিছিয়ে গেছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ, স্থগিত করা হয়েছে লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের আসর কোপা আমেরিকাও। দুটো প্রতিযোগিতাই হওয়ার কথা ছিল এ বছরের জুন-জুলাইয়ে। তবে আফ্রিকান ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই আফ্রিকান নেশন্স কাপের সূচি সামনের বছরের জানুয়ারিতে। হাতে যথেষ্ট সময়ও আছে। এরপরও করোনাভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে এখনই ২০২১ সালের প্রতিযোগিতাটি পিছিয়ে নেওয়া হলো। একবছর পিছিয়ে ২০২২ সালের জানুয়ারিতে হবে নেশন্স কাপ।

আজ (মঙ্গলবার) এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে কনফেডারেশন অব আফ্রিকান ফুটবল (সিএএফ)। সংস্থাটির নির্বাহী কমিটির বৈঠকে নেশন্স কাপ ১২ মাস পিছিয়ে দেওয়াকেই যৌক্তিক মনে করা হয়েছে। ছেলেদের প্রতিযোগিতা তবু পিছিয়ে গেছে, মেয়েদের নেশন্স কাপ তো বাতিলই করে দেওয়া হয়েছে!

ছেলেদের প্রতিযোগিতার ৩৩তম আসরের আয়োজক ক্যামেরুন। ২০২১ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি শুরুর কথা ছিল নেশন্স কাপ। কিন্তু করোনার কারণে একবছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে সিএএফ জানিয়েছে, ‘শেয়ারহোল্ডারদের সঙ্গে আলোচনা করে এবং বিশ্বের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে প্রতিযোগিতাটির নতুন সূচি করা হয়েছে ২০২২ সালের জানুয়ারি।’ কবে থেকে শুরু হবে, সে ব্যাপারে পরবর্তীতে জানানোর কথা বলা হয়েছে বিবৃতির পরের অংশে। তাছাড়া বাকি থাকা বাছাইয়ের ম্যাচগুলোর ব্যাপারেও পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

২০২৩ সালেও আছে নেশন্স কাপ। আগামী বছরের প্রতিযোগিতাটি পিছিয়ে যাওয়ায় আইভরি কোস্টের ৩৪তম আসরও পেছানো হবে কিনা, এ ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত জানায়নি সিএএফ। যদি আইভরি কোস্টের প্রতিযোগিতাটি পিছিয়ে না যায়, তাহলে পরপর দুই বছর হবে দুটি নেশন্স কাপ।

আফ্রিকার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আলজেরিয়া। ২০১৯ সালে কায়রোর ফাইনালে সেনেগালকে ১-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয়বার প্রতিযোগিতাটির শিরোপা জেতে তারা।

/কেআর/

লাইভ

টপ