ইংল্যান্ড দল থেকে বাদ পড়ে হতাশ ও ক্ষুব্ধ ব্রড

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৪৬, জুলাই ১০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৫, জুলাই ১০, ২০২০

স্টুয়ার্ট ব্রড। ছবি: টুইটারপেসার স্টুয়ার্ট ব্রডকে বাদ দিয়ে ইংল্যান্ড দলে নেওয়া হয়েছে মার্ক উডকে। এই নিয়ে সমালোচনা আর বিতর্কে উত্তাল ইংলিশ ক্রিকেট।

আর ১৫ উইকেট হলেই জেমস অ্যান্ডারসনের পর ৫০০ উইকেট পাওয়া দ্বিতীয় ইংলিশ বোলারের মুকুটটা মাথায় উঠবে ব্রডের মাথায়। আর এ পরিস্থিতিতে কিনা ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে তিন টেস্টের সিরিজের প্রথমটিতে তিনি বাদ পড়লেন। নির্বাচকদের এই সিদ্ধান্ত তার পক্ষে বুঝতে কষ্ট হচ্ছে। যে ব্রড নিজেই দাবি করেন ‘আবেগ আমাকে খুব একটা ছুঁতে পারে না’, সেই তিনিই স্কাই স্পোর্টসকে বলেছেন, ‘গত দুটি দিন আমার কাছে ভীষণ কষ্টের মনে হয়েছে। আমি যদি বলি হতাশ, সেটি কম বলা হবে।‘

ব্রড বলেন, ‘আমি হতাশ, ক্রুদ্ধ এবং বঞ্চিত বোধ করছি- কারণ এটা এমন একটা সিদ্ধান্ত যা বোঝা দুষ্কর। গত দুটি বছর ধরে সম্ভবত আমি আমার সেরা বোলিংটা করে আসছি।’

গত মাসে ৩৪ বছরে পড়েছেন ব্রড। তার আগে গত গ্রীষ্মের ২-২-এ ড্র হওয়া অ্যাশেজে ২৬ গড়ে নিয়েছেন ২৩ উইকেট। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে সাতবার আউট করেছেন তাকে মাত্র ৩৫ রান দিয়ে। এ বছরের শুরুর দিকে ইংল্যান্ড যে দক্ষিণ আফ্রিকায় ৩-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জিতে এলো, সেই সিরিজেও ১৯ গড়ে পেয়েছেন ১৪ উইকেট।

ওই দুটি সিরিজের কথা উল্লেখ করে ব্রড কটাক্ষই করেছেন নির্বাচকদের, ‘আমার মনে হচ্ছে অ্যাশেজ এবং তারপর দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে জেতা সিরিজের মধ্যে আমার শার্টটাই ঘুরে বেড়িয়েছে। এটা মেনে নেওয়া খুব কঠিন, তবে একদিক দিয়ে খুশিও যে আমি হতাশ ও ক্রুদ্ধ, তা নাহলে হয়তো অন্য সিদ্ধান্ত নিতাম।’

ব্রড মনে করেন নতুন করে কিছু প্রমাণের নেই তার, ‘ আমি মনে করি না কিছু প্রমাণ করার আছে আমার। ইংল্যান্ড জানে আমি কী করতে পারি। নির্বাচকেরাও জানেন আমি কী করতে পারি। আমি যখন আবার সুযোগ পাবো, আপনি বাজি ধরতে পারেন আমি সেটি দেখিয়ে দেবো।’

ব্রডকে বাদ দিয়ে দলে নেওয়া মার্ক উডও স্বীকার করেছেন দলে নির্বাচিত হয়ে তিনি বিস্মিত। তাহলে ব্রডকে বাদ দেওয়া হলো কেন? ব্রডই বলেছেন প্রধান নির্বাচক এড স্মিথ তার কাছে বিষয়টি পরিষ্কার করেছেন, ‘প্রধান নির্বাচক এড স্মিথ বিষয়টি বুঝিয়ে বলেছেন, তারা পিচ ধরে ধরে বোলার নিচ্ছেন। এজিয়্যাস বোলে একজন গতি সমৃদ্ধ বোলার তারা খেলাতে চেয়েছেন।’

উড এজিয়্যাস বোলে ৯০ মাইলের বেশি গতিতে বোলিং করছেন। কিন্তু খুব একটা কাজ তাতে হচ্ছে না, ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসের অর্ধেকটা পর্যন্ত এটি সত্যি। একটাও উইকেট পাননি উড। আর ওদিকে কম পেসের সিম বোলিংয়ে ইংল্যান্ডকে ধসিয়ে দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার।

ব্রড নিশ্চয়তা পেয়েছেন যে পরের সপ্তাহে ওল্ড ট্রাফোর্ড টেস্টে তিনি থাকছেন। কিন্তু সেই টেস্টটি ইংল্যান্ডের জন্য না সিরিজে সমতা ফেরানোর মরিয়া লড়াই হয়ে ওঠে। তৃতীয়দিনের চা বিরতির আগে ২৫০ পেরিয়ে ৫০ রানে এগিয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অসমাপ্ত ষষ্ঠ উইকেটে রোস্টন চেজ ও শেন ডাওরিচ অবিচ্ছিন্ন ৭০ রানের জুটি গড়েছেন। চেজ ৪৪  ও ডাওরিচ ৩০ রানে ব্যাট করছিলেন।

 

/পিকে/

লাইভ

টপ