শ্রীলঙ্কা সফরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান সৌম্য

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:১৩, আগস্ট ১৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৭, আগস্ট ১৩, ২০২০

অনুশীলনে সৌম্য সরকার।আগামী সেপ্টেম্বরে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এই সফরে জায়গা পেতে চান সৌম্য সরকারও। কারণ পূর্বের অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার থেকে-ই দলকে সেবা দিতে পারবেন বলে মনে করেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

লঙ্কান কন্ডিশনে দুটি টেস্টের পাশাপশি সৌম্যর সাতটি টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতা আছে। সাম্প্রতিক সময়ে টেস্ট দলের বাইরে থাকলেও লঙ্কানদের বিপক্ষে সাদা পোশাকে সৌম্যর সাফল্য হয়তো নির্বাচকদের নতুন করে ভাবাবে। চার ইনিংসে তিন হাফসেঞ্চুরিতে ৪৮.৭৫ গড়ে সৌম্য রান করেছেন ১৯৫। যেখানে তার সর্বোচ্চ স্কোর ৭১। আর টি-টোয়েন্টিতে ৭ ম্যাচে সৌম্যর রান ১১৩। শুধু তাই নয়, সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি টি-টোয়েন্টিতে অপরাজিত ২০ ও ৬২ রানের ইনিংস রয়েছে।

সবমিলিয়ে সৌম্য শ্রীলঙ্কায় সুযোগ পেলে দারুণ কিছু করার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। মিরপুরে ব্যক্তিগত অনুশীলন শেষে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছি জিম্বাবুয়ের সাথে। দুটোই ভালো ছিল। শ্রীলঙ্কায় খেলা বেশ কয়েকটি টি-টোয়েন্টি খেলেছি। টেস্ট সিরিজেও ভালো খেলেছি। সব মিলিয়ে শ্রীলঙ্কায় পূর্ব অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর চেষ্টা করবো।’

লঙ্কানদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই প্রায় ৫ মাস করোনা-বিরতির পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কায় তিনটি টেস্টের পাশাপাশি তিনটি টি-টোয়েন্টি হওয়ার কথাও চলছে।২৪ অক্টোবর শুরু হবে প্রথম টেস্ট। সিরিজ শুরুর আগে মিরপুরে সংক্ষিপ্ত ক্যাম্প হবে। তার আগ থেকেই ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুশীলন করছে। 

তবে মাঠের ক্রিকেট ফিরতে যাচ্ছে দেখে স্বস্তি-ই ঝরেছে সৌম্যর কণ্ঠে, ‘অবশ্যই স্বস্তির যে আমাদেরও খেলা শুরু হতে যাচ্ছে। যখন ইংল্যান্ডের খেলা দেখতাম, খারাপ  লাগতো।ভাবতাম আমরা কবে থেকে খেলতে পারবো।’

কেবল খেলার জন্যই খেলা, সেভাবে ভাবতে চান না সৌম্য। পুরো লক্ষ্য রেখেই মাতাতে চান ২২ গজ, ‘শুধু খেললেই তো হবে না, নিজের পারফরম্যান্স, দলের পারফরম্যান্স সবই করতে হবে। যেহেতু খেলায় চলে আসছি, শতভাগ নিয়েই নামতে হবে।’

২৩ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়ার কথা বাংলাদেশের। ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার পর বাকি সময়টা প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নামবে সফরকারীরা। লম্বা সময় ধরে কতটা মনোযোগ ধরে রাখা যাবে, এমন প্রশ্নের জবাবে সৌম্য বলেছেন, ‘প্রথম সব জিনিসই একটু অন্য রকম থাকে। এক মাসে আগে গিয়ে আমরা তো অনুশীলনের মধ্যে থাকবো। নিরাপত্তার কারণে আমাদের আগে যেতে হচ্ছে। এটাকে টিম ওয়ার্ক হিসেবেই ধরতে হবে।’

গৃহবন্দি থাকার সময়টা কেমন ছিল, সে ব্যাপারেও কথা বলেছেন সৌম্য, ‘অন্য সবদিক দিয়ে চিন্তা করলে ভালো, শুধু একটা দিক দিয়ে খারাপ কেটেছে। শুধু খেলাটা ছিল না। তবে পরিবারকে সময় দিতে পেরেছি। ’

/আরআই/এফআইআর/

লাইভ

টপ