ফাওয়াদের হতাশার দিনে চাপে পাকিস্তান

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:৩৪, আগস্ট ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৪৮, আগস্ট ১৪, ২০২০

আজহার আলীকে বিদায় দিয়ে অ্যান্ডারসনের উল্লাস।অ্যাজিয়াস বোলে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনেই চাপে পড়ে গেছে পাকিস্তান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ১২৬ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়েছে আজহার আলীর দল।

অবশ্য টস জিতে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানের সামনে ছিল দুটি প্রতিপক্ষ। এক ইংল্যান্ডের পেসাররা, দুই বৃষ্টি। বৃষ্টির হানায় বার বার খেলা যেমন বন্ধ হয়েছে। তেমনি পেসারদের হানায় উইকেটও পড়েছে। শেষ পর্যন্ত খেলা হয়েছে ৪৫.৪ ওভার।

শুরুতে দলীয় ৬ রানে আগের টেস্টে আলো ছড়ানো শান মাসুদের উইকেট হারায় পাকিস্তান। তাকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন জেমস অ্যান্ডারসন। তবে সেই ধাক্কা সামলে উঠে এক পর্যায়ে স্কোর দাঁড়ায় ৭৮ রানে ১ উইকেট। কিন্তু বৃষ্টির দীর্ঘ বিরতির পরই প্রতিরোধ ভেঙে যায় সফরকারীদের। ভেজা উইকেটের পুরোপুরি ফায়দা তুলে নেয় ইংলিশ বোলাররা। আজহার আলীর বিদায়ে ভাঙে ৭২ রানের গুরুত্বপূর্ণ এই জুটি। এই উইকেটটিও নেন অ্যান্ডারসন। আজহার ফেরেন ২০ রানে।

এই সময়ে ঘণ্টা স্থায়ী সেশনে উইকেট পড়েছে তিনটি। হাফসেঞ্চুরি করা আবিদ আলীকে ৬০ রানে বার্নসের ক্যাচ বানিয়েছেন আর্চারের বদলে খেলতে নামা কারেন। আসাদ শফিক ব্রডের বলে ফিরেছেন মাত্র ৫ রানে। সবচেয়ে বেশি হতাশার দিন বলতে হবে ফাওয়াদ আলমের। ১১ বছর পর টেস্ট খেলতে নেমে ফিরেছেন শূন্য হাতে! ৪ বল খেলে ওকসের বলে বিদায় নিয়েছেন এলবিডাব্লিউ হয়ে। এরপর বৃষ্টি আর আলোর স্বল্পতায় ম্যাচই শুরু করা যায়নি। ক্রিজে আছেন বাবর আজম (২৫) ও মোহাম্মদ রিজওয়ান (৪)।

ইংল্যান্ডের হয়ে ৩৫ রানে দুটি উইকেট নিয়েছেন অ্যান্ডারসন। টেস্ট ক্যারিয়ারে ৬০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁতে আর ৮ উইকেট প্রয়োজন তার। এছাড়া একটি করে নিয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, স্যাম কারেন ও ক্রিস ওকস।

/এফআইআর/

লাইভ

টপ