উয়েফার বর্ষসেরা সেই লেভানদোভস্কিই

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:২০, অক্টোবর ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:২১, অক্টোবর ০২, ২০২০

উয়েফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন লেভানদোভস্কি।এবার ইউরোপের বর্ষসেরা পুরস্কারটা রবের্ত লেভানদোভস্কির হাতেই দেখছিলেন অনেকে। তেমনটা বলেছিলেন, জার্মান কিংবদন্তি লোথার ম্যাথুসও। প্রথমবার মানুয়েল নয়্যার আর কেভিন ডি ব্রুইনার সঙ্গে সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান পেয়েছিলেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ এই ফরোয়ার্ড। শেষ পর্যন্ত ভোটাভুটিতে ৩৬১টি ভোট পেয়ে উয়েফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় হয়েছেন লেভানদোভস্কিই।

বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় একই সঙ্গে ঘোষণা করা হয় চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র ও ইউরোপের বর্ষসেরা ফুটবলারের নাম।

অবশ্য লেভানদোভস্কির বর্ষসেরা না হওয়ার কারণ ছিল না। বায়ার্নের জার্সিতে পুরো মৌসুম জুড়েই পাদপ্রদীপের আলোয় ছিলেন তিনি। ৩১ ম্যাচে ৩৪ গোল করে বায়ার্নকে জিতিয়েছেন বুন্দেসলিগা। চ্যাম্পিয়নস লিগে ১৫ গোলের সঙ্গে ৬টি অ্যাসিস্টে ক্লাবটির ষষ্ঠ চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জেতাতেও অবদান রেখেছেন। সঙ্গে জার্মান কাপ তো রয়েছেই। 

তবে এবারের ব্যতিক্রমটি হলো প্রথমবার সেরা তিনে ছিলেন না মেসি-রোনালদোর মতো খেলোয়াড়রা। কোচ ও সাংবাদিকদের ভোটে লেভানদোভস্কি সবচেয়ে বেশি ভোট পেলেও তার পরেই অবস্থান পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পের। তিনি পেয়েছেন ৭২ ভোট। ৬২ ভোট পেয়ে নেইমারের অবস্থান তিনে।  

তাই প্রথমবার ইউরোপ সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার হাতে পাওয়ার পর লেভানদোভস্কির প্রতিক্রিয়া ছিল এমন, ‘আমাকে বলতেই হচ্ছে এটা সত্যিই আশ্চর্যজনক একটি ব্যাপার। কঠোর পরিশ্রম করে এমন ট্রফি পাওয়া মানে বিশেষ কিছুই।’

তাই সতীর্থদের ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি, ‘আমি সতীর্থ, কোচ সব স্টাফদেরই ধন্যবাদ জানাই। কারণ আমাকে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত করতে তারাই কঠোর পরিশ্রমটা করে থাকে। ধন্যবাদ জানাই আমার পরিবারকেও, যারা সব সময়ই আমাকে সমর্থন দেয়।’

এদিকে মেয়েদের ফুটবলে বর্ষসেরা হয়েছেন পারনিলে হার্ডার। মৌসুম সেরা গোলকিপার হয়েছেন বায়ার্ন অধিনায়ক নয়্যার। বর্ষসেরা কোচ হয়েছেন বায়ার্নকে সাফল্যময় মৌসুম উপহার দেওয়া হানসি ফ্লিক।

 

 

/এফআইআর/

লাইভ

টপ