‘আমি পদক নিয়ে কোনও চিন্তাই করিনি’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩০, অক্টোবর ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৭, অক্টোবর ১৮, ২০২০

সংবাদমাধ্যমের সামনে আব্দুল্লাহ হেল বাকী                  -সৌজন্য ছবিঅনেকদিন পর নিজের চিরচেনা গুলশান শুটিং রেঞ্জে কোনও প্রতিযোগিতায় অংশ নিলেন আব্দুল্লাহ হেল বাকী। তাও আবার প্রথমবারের মতো শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক অনলাইন এয়ার রাইফেল প্রতিযোগিতায়। সতীর্থ থেকে শুরু করে শুটিং সংশ্লিষ্ট সবাই অধীর অপেক্ষায় ছিলেন। তাকে ঘিরেই প্রত্যাশা ছিল বেশি। ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের ব্যক্তিগত ইভেন্টে বাকী ব্রোঞ্জ জিতে কিছুটা হলেও প্রত্যাশা পূরণ করেছেন।

রবিবার এয়ার রাইফেল হাতে নিয়ে অবশ্য পদক জয়ের চিন্তাই করতে পারেননি এই শুটার। প্রতিযোগিতা শেষে সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন,‘আমি প্রথমত পদক নিয়ে কোনও চিন্তাই করিনি। কারণ অনুশীলনই শুরু করেছি মাত্র ১০-১২ দিন হলো। তিনটি সিলেকশন হয়েছে প্রতিযোগিতার আগে। সেখানে গড় স্কোর ছিল ৬২৩.৬ । এখানে টার্গেট করেছিলাম ৬২৩-৬২৪ স্কোর। তবে ওরকম স্কোর হয়নি। হলে হয়তো সিলভার মেডেল চলে আসতো।’

গত বছর নেপালে এসএ গেমসের পর কোনও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন কমনওয়েলথ গেমসে টানা দুটি রুপাজয়ী এই শুটার। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তার উপলব্ধি, ‘করোনার কারণে তো সাত-আট মাস অনুশীলনই হয়নি। এস এ গেমসের ফাইনালের পর থেকে। এখন এটা নতুন একটা পরিস্থিতি। মেডিটেশন ও অনুশীলনের মাধ্যমে নিজেকে আরও ভালোভাবে তৈরি করতে হবে। কিছু প্লানও বদল করতে হবে।’

একইদিনে সকালে ইন্দোনেশিয়ার একটি অনলাইন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন বাকী। আরও ভালো স্কোর না করার পিছনে মানসিক সমস্যাও দেখছেন তিনি,‘নিজেদের রেঞ্জে শুটিং করতে পারাটা সবার জন্যই সুবিধা। সকালে ইন্দোনেশিয়ার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছি। একইদিনে দুটি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ নিয়ে সমস্যা দেখছি না। আমার আসলে মানসিক সমস্যা ছিল। মনোযোগী হতে পারি নাই শেষের দিকে। ব্যাড শটের পর অসলে আশা থাকে না ।’ তারপরও এমন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে বাকী খুশি,‘এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের  চাপটা বেশি মনে হয়েছে আমার কাছে। সবাই আমার ফলের জন্য অপেক্ষা করছিল। তবে আবারও অনেকদিন পর প্রতিযোগিতা শুরু করতে পেরেছি। কম্পিটিশনের স্বাদটাই ভুলেই গেছিলাম। চাইলেও আনতে পারছিলাম না। এখন তা কিছুটা পেয়েছি। এমন একটা গেম আয়োজন করতে পারাটা খুব ভালো দিক।’

 

/টিএ/পিকে/

লাইভ

টপ
X