X
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

নতুন ১৫৫টি আইএসপি লাইসেন্স দিচ্ছে সরকার

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:০৪

বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা ক্যাটাগরিতে আরও ১৫৫টি আইএসপি (ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান) লাইসেন্স দিচ্ছে সরকার। টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি দেড় শতাধিক আইএসপি লাইসেন্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে তা অনুমোদনের জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে পাঠিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগোযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, লাইসেন্স দেওয়া তো বন্ধ ছিল না। আবেদন জমা পড়েছিল। যেগুলোকে লাইসেন্স দেওয়া যুক্তিযুক্ত মনে হয়েছে, যাদের সক্ষমতা আছে তারা যোগ্যতা অনুযায়ী লাইসেন্স পাবে।

প্রসঙ্গত, দেশে চার ক্যাটাগরিতে ২ হাজারের বেশি আইএসপি লাইসেন্স রয়েছে। নেশনওয়াইড, বিভাগীয় পর্যায়ে, জেলা ও থানা পর্যায়ে আইএসপি অপারেটররা সেবা দিচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, দেশে লাইসেন্সবিহীন অপারেটরের সংখ্যা লাইসেন্সড অপারেটরের দ্বিগুণ।

জানা যায়, বিভাগীয় ক্যাটাগরিতে চারটি, জেলা ক্যাটাগরিতে ৩০টি এবং উপজেলা বা থানা ক্যাটাগরিতে ১২১টি নতুন লাইসেন্স দেওয়া হচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের ইন্টারনেট বাজার, সক্ষমতার পরিসর ছোট। তার ওপরে রয়েছে বৈধ, অবৈধ মিলিয়ে ৬ হাজারের বেশি আইএসপি। লাইসেন্সধারীদেরই ব্যবসা করে টিকে থাকতে কষ্ট হচ্ছে। তারওপর নতুন লাইসেন্স এ খাতে আরও চাপ বাড়াবে। কোথায় আইএসপি একেবারেই নেই সেই জায়গাগুলো খুঁজে বের করে চিহ্নিত করতে হবে। তারা আরও বলেন, দেশে ইন্টারনেটের বাজার বড় করতে পারলে তা এই খাতের জন্যই মঙ্গলজনক।     

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দেশে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবির সভাপতি ইমদাদুল হক বলেন, আমি মনে করি যেসব লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে সেটাই অনেক বেশি। যারা বর্তমানে অপারেশনে আছে, নেশনওয়াইড সেবা দিচ্ছে তাদের আরও সুযোগ দেওয়া উচিত। লাইসেন্সপ্রাপ্ত যারা আছে তারাই তো এখন ব্যবসা করতে হিমশিম খাচ্ছে। বিশেষ করে আমাদের ট্রান্সমিশন স্বল্পতা রয়েছে। এই স্বল্পতা কাটিয়ে উঠে যদি আমাদের নেশনওয়াইড আইএসপিগুলোকে বলা হয় তুমি রোল-আউট অবলিগেশন মেনটেইন করো, বিভাগীয় আইএসপিগুলোর মধ্যে যারা সক্ষম তাদের যদি হালনাগাদ করা হয় সেটাই মনে হয় যথেষ্ট। নতুন করে আমার মনে হয় না নেশওয়াইড বা ডিভিশনাল লাইসেন্স নিয়ে সেবার মাঠে আসার প্রয়োজন আছে।

তবে তিনি মনে করেন বিভিন্ন থানায়, প্রত্যন্ত অঞ্চলে দেখতে হবে সেখানে লাইসেন্স কয়টা আছে। একটা থানায় যদি ২০টা লাইসেন্স দিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে সেটা সংখ্যা অনেক বেশি হবে। তখন দেখা যাবে নিজেদের মধ্যে মারামারি কাটাকাটি হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে আইএসপিএবি সভাপতি বলেন, এমনিতেই দুই হাজারের বেশি আমাদের মেম্বার (সদস্য প্রতিষ্ঠান)। এটা এখন প্রযুক্তি খাতের সবচেয়ে বড় সংগঠন। এরপরে যদি আরও লাইসেন্স দেওয়া হয় তাহলে দেখা যাবে আমাদের আসল কাজ যে সেবাটা দেওয়া সেটা কঠিন হয়ে যাবে। এত সদস্য এই খাতে ব্যবসা করতে পারবে না। সেবার মান খারাপ হয়ে যাবে। আমি যদি বিজনেসই করতে না পারি তখন দেখা যাবে কোয়ালিটি অব সার্ভিস খারাপ হচ্ছে, আমি নজর দেব না।

সরকারকে দেখতে হবে যেখানে লাইসেন্স দেওয়া হচ্ছে তা বাজারে কয়টা আছে, মার্কেটের সাইজ কেমন। যে জায়গায় দেওয়া হচ্ছে সেখানে আসলে কোনও উপকার হবে কিনা। নাকি নতুন একটা মাসল পাওয়ার (পেশি শক্তি) সেখানে অ্যাড করলাম। তিনি এই খাতে পেশিশক্তির দাপট ও রাজনৈতিক ছত্রছায়াকে নেতিবাচক ও উৎপাত হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এদের দাপটে আইএসপিগুলো সব জায়গায় ঢুকতে পারে না। এটা দূর করতে হবে। সরকারকে এ বিষয়ে বিশেষ নজরদারির আহ্বান জানান তিনি।

/এমআর/
সম্পর্কিত
আইএসপিগুলো কি বেঁধে দেওয়া সময়ে সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছাতে পারবে?
আইএসপিগুলো কি বেঁধে দেওয়া সময়ে সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছাতে পারবে?
আইএসপিএবি’র বার্ষিক সাধারণ সভা
আইএসপিএবি’র বার্ষিক সাধারণ সভা
আইএসপিএবি’র নির্বাহী কমিটির নির্বাচন শনিবার
আইএসপিএবি’র নির্বাহী কমিটির নির্বাচন শনিবার
পাল্টালো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের সংজ্ঞা, বাড়লো গতি
পাল্টালো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের সংজ্ঞা, বাড়লো গতি

অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রীর উইচ্যাট আইডি ‘ডাউন’

আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ২০:৩০

অস্ট্রেলিয়া অভিযোগ করেছে উইচ্যাট তাদের প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের উইচ্যাট আইডি মুছে ফেলেছে এবং অ্যাকাউন্টে প্রবেশের চেষ্টা করলে তার ফলোয়ারদের চীনা অস্ট্রেলীয়দের একটি ওয়েবসাইটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ওই ওয়েবসাইটে চীনা অস্ট্রেলীয়দের তথ্য দেখাচ্ছে। তথ্যটি প্রথম নিশ্চিত করেন অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টারি জয়েন্ট কমিটি অন ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের প্রধান জেমস পিটারসন।  তিনি জানান, মরিসনের অ্যাকাউন্ট নিয়ে নেওয়া হয়েছে এবং তা ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আবার তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে বলেও একটি সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানান।

সিএনএন জানায়, পিটারসন ও মরিসন উভয়েই লিবারেল পার্টির সদস্য। উইচ্যাট চীনের সবচেয়ে জনপ্রিয় ম্যাসেজিং অ্যাপ। ২০২০ সালে এর মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারী ছিল ১২০ কোটি। চীন ছাড়াও চীনা অভিবাসীদের কাছেও এটি বেশ জনপ্রিয়। মরিসনের ফলোয়ারের সংখ্যা ছিল ৭৬ হাজার।  উইচ্যাট দিয়ে তিনি মূলত চীনা অস্ট্রেলীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করতেন।

উইচ্যাটের মূল প্রতিষ্ঠান টেনসেন্ট জানায়, তারা অ্যাকাউন্টটি হ্যাকের কোনও প্রমাণ পায়নি তবে অ্যাকাউন্টটির মালিকানা নিয়ে বিতর্ক আছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, অ্যাকাউন্টটি মূলত একজন চীনা নাগরিকের এবং সেজন্যই তাকে অ্যাকাউন্টটি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সিএনএন জানায়, উইচ্যাট ইতোপূর্বেও সমালোচিত হয়েছে।  ২০২০ সালে এটি যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ হয় তথ্য পাচার হতে পারে এমন আশঙ্কায়। পরে উইচ্যাট জানায়, তাদের চায়নিজ সংস্করণ এবং আন্তর্জাতিক সংস্করণ দুটো সম্পূর্ণই আলাদা। তারা আরও জানায়, তথ্য পাচার হওয়ার কোনও কারণ নেই কেননা তারা খুব কঠিনভাবেই এর আইন-কানুন মেনে চলে।

 

/এইচএএইচ/এএ/
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
আইএসপিগুলো কি বেঁধে দেওয়া সময়ে সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছাতে পারবে?
আইএসপিগুলো কি বেঁধে দেওয়া সময়ে সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছাতে পারবে?
আইএসপিএবি’র বার্ষিক সাধারণ সভা
আইএসপিএবি’র বার্ষিক সাধারণ সভা
আইএসপিএবি’র নির্বাহী কমিটির নির্বাচন শনিবার
আইএসপিএবি’র নির্বাহী কমিটির নির্বাচন শনিবার
পাল্টালো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের সংজ্ঞা, বাড়লো গতি
সর্বনিম্ন ২০ এমবিপিএস, ২০৪১-এ হবে ১০ জিবিপিএসপাল্টালো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের সংজ্ঞা, বাড়লো গতি
অব্যবহৃত ডাটা ফেরত যে শর্তে
অব্যবহৃত ডাটা ফেরত যে শর্তে
© 2022 Bangla Tribune