আইটিপি নিবন্ধন পরীক্ষার্থীদের গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ এনবিআরের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৪:৪১, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৫১, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭

এনবিআরআয়কর পেশাজীবী (আইটিপি) নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের কোনও ধরনের গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, করদাতাদের আইনি সহায়তা নিশ্চিত করার জন্য আয়কর পেশাজীবী (আইটিপি) নিবন্ধন-২০১৭-এর কার্যক্রম হাতে নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। এর কার্যক্রম শতভাগ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সঙ্গে সম্পন্ন করতে এনবিআর বদ্ধপরিকর।
এনবিআর সূত্রে জানা গেছে, আইটিপি নিবন্ধনের জন্য ২২ হাজার ১৪১ জন প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবেন। এসব পরীক্ষার্থীদের কোনও ধরনের গুজবে বিশ্বাস না করে যথাযথ প্রস্তুতি নিয়ে লিখিত পরীক্ষায় বসার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।
এনবিআরের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, কর আইনের মতো জটিল বিষয়কে সাধারণ করদাতাদের কাছে সহজবোধ্য করে সরকারের রাজস্ব ভাণ্ডারে অর্থ জোগাতে কর আইনজীবীদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কর বিভাগ ও করদাতাদের মধ্যে কর আইনজীবীরা যোগসূত্র হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।
এ প্রসঙ্গে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, ‘রাজস্ব সংগ্রহে কর আইনজীবীদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তারা আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশীজন। সরকারের সর্বোচ্চ রাজস্ব সংগ্রহকারী সংস্থা হিসেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড তার সব অংশীজনের সঙ্গে সুসর্ম্পক বজায় রাখার পাশাপাশি সবক্ষেত্রে সুশাসন সুনিশ্চিত করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ।’
এনবিআর চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘‘কর বিভাগের কর্মর্কতা-র্কমচারীদের পাশাপাশি কর আইনজীবীরাও উন্নয়নের অক্সিজেন ‘রাজস্ব’ আহরণে একযোগে কাজ করেন। করনেট সম্প্রসারণ, সুশাসন নিশ্চিতকরণ ও রাজস্ববান্ধব কর প্রশাসন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে তারা সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করে থাকেন। তাই, তাদের নিয়োগ প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে আমরা শতভাগ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা অনুসরণ করতে বলেছি।’
উল্লেখ্য, প্রায় ৫ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইটিপি নিবন্ধন পরীক্ষা। আগামী শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে এই নিবন্ধনের লিখিত পরীক্ষা।
আরও পড়ুন-
চাল নিয়ে নতুন সংকট
‘সঞ্চয়পত্র থেকে বেশি অর্থ নেওয়ায় অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে’

/জিএম/টিআর/

লাইভ

টপ