বিশ্বের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে চায় বাংলাদেশ: বাণিজ্যমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:০১, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২৬, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘বাংলাদেশ প্রতিবেশীসহ সব দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে এগিয়ে যেতে চায়। সাপটা (সাউথ এশিয়ান প্রেফারেন্সিয়াল ট্রেড এগ্রিমেন্ট), আপটা (এশিয়া প্যাসিফিক ট্রেড এগ্রিমেন্ট), বিবিআইএন (বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপাল), বিসিআইএম–এর (বাংলাদেশ, চীন, ভারত ও মিয়ানমার) মতো জোটে থেকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ তিনটি শর্ত পূরণ করে এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে যাওয়ার প্রথম ধাপ সফলভাবে অতিক্রম করেছে।’

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে ন্যাশনাল কনভেসশন সেন্টারে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের মেম্বর অফ ম্যানেজিং বোর্ডের প্রেসিডেন্ট বরগ ব্রেনডি-এর সঞ্চালনায় জিও স্ট্যাটেজিক ডিসকাশনে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বকশী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা জানানো হয়েছে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘এলডিসি থেকে পাঁচটি দেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হচ্ছে, এর মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশ একত্রে তিনটি শর্ত পূরণ করেছে। বাংলাদেশ বিশ্বের সব দেশের সহযোগিতা চায়।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ এক রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভ করে। শূন্য হাতে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। দেশের সাড়ে সাত কোটি মানুষের খাবার ছিল না, ব্যাংকে টাকা ছিল না, রাস্তাঘাট ছিল না, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল না। দুইটি লক্ষ্য নিয়ে বঙ্গবন্ধু সারাজীবন আন্দোলন করেছেন। একটি বাংলাদেশের স্বাধীনতা, অপরটি দেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলা। তিনি বাংলাদেশ স্বাধীন করে গেছেন। সোনার বাংলা গড়ার কাজ শুরু করলেও তা তিনি শেষ করতে পারেননি। আজ তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করছেন। বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।’

আলোচনা সভায় ভিয়েতনামের ডেপুটি প্রাইম মিনিস্টার ফামবিন মিন, মালয়েশিয়ার ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড মিনিস্টার ইগনেটিয়াস লেইকিং, দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাংকাইয়ুং হুয়া, শ্রীলংকার ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড মিনিস্টার মালিক দেবপ্রিয় সামারাউইকরামা, কম্বোডিয়ার বাণিজ্যমন্ত্রী প্যান সোরাসাক, পাপুয়া নিউ গুইনিয়ার ডেপুটি প্রাইম মিনিস্টার চার্লিস আবেল, তিমুর রেস্টিও পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাইয়োনিশিও দা কসটা বাবোসোয়ার্স বক্তৃতা করেন।

 

/এসআই/এমএ/

লাইভ

টপ