জাতীয় গ্রিডে এলএনজি সরবরাহ অক্টোবরেই: নসরুল হামিদ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:০১, অক্টোবর ০৯, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০২, অক্টোবর ০৯, ২০১৮





বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, এ মাসের মধ্যে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) জাতীয় গ্রিডে যোগ হবে।
মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ ভবনে অনুষ্ঠিত এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিলের (ইপিআরসি) একটি চুক্তি সই অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
গত ১৮ আগস্ট থেকে এলএনজি সরবরাহ শুরু হলেও এখনও জাতীয় গ্যাস গ্রিডে সরবরাহ করা যাচ্ছে না। চট্টগ্রামের আনোয়ারা থেকে ফৌজদারহাট পাইপলাইনের কর্ণফুলী অতিক্রমের (রিভার ক্রসিং) কাজ শেষ না হাওয়ায় জাতীয় গ্যাস গ্রিডে এলএনজি সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এ মাসের মধ্যে রিভার ক্রসিংয়ের কাজ শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ‘ঢাকায় গ্যাসের ঘাটতি রয়েছে। ঢাকার গ্যাস ঘাটতি মেটাতে এলএনজি জাতীয় গ্রিডে আনা প্রয়োজন। পাইপলাইনের সামান্য কাজ বাকি রয়েছে। পাইপলাইনের কাজ শেষ হলেই এলএনজি সরবরাহ করা যাবে।’
বর্তমানে চট্টগ্রাম এলাকায় দৈনিক ৩০০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি সরবরাহ করা হচ্ছে। তবে এক্সিলারেট এনার্জির ভাসমান টার্মিনালটির দৈনিক ৫০০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি সরবরাহের ক্ষমতা রয়েছে। এখান থেকে গ্যাস জাতীয় গ্রিডে এলএনজি আনা সম্ভব হলে সামগ্রিক ঘাটতির পরিবর্তন ঘটবে বলে আশা করা হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী জানান, আগামী বছরের জুনে মধ্যে আরও ৫০০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি আসবে। এতে এলএনজি সরবরাহ দৈনিক একহাজার মিলিয়ন ঘনফুট হবে। যদিও আগামী বছরের শুরুর দিকে সামিট গ্রুপের এলএনজি টার্মিনালটির উৎপাদনে আসার কথা।
অনুষ্ঠানে ইপিআরসি দুটি উদ্ভাবনী প্রকল্পে অর্থায়ন করেছে। সিস্টেম লস ও বিদ্যুৎ চুরি ঠেকাতে ভবিষ্যতের গ্রিড সিস্টেম বা স্মার্ট গ্রিড এবং মানববর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে।
অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, জ্বালানি সচিব আবু হেনা মো রহমাতুল মুনীম, ইপিআরসি চেয়ারম্যান শাহিন রহমান চৌধুরী, পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসএনএস/এইচআই/

লাইভ

টপ