টেকনাফে শিশু আলো হত্যা মামলায় তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী কারাগারে

Send
কক্সবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:৩০, এপ্রিল ১৬, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৩২, এপ্রিল ১৬, ২০১৮

দিদার মিয়াকক্সবাজারের টেকনাফের আলোচিত শিশু আলী উল্লাহ আলো (৭) হত্যা মামলার আসামি ও স্বরাষ্টমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী দিদার মিয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে কক্সবাজার বিচারিক আদালতের জ্যেষ্ঠ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (টেকনাফের দায়িত্বপ্রাপ্ত) তামান্না ফারাহ এই আদেশ দেন।
সীমান্তের শীর্ষ ইয়াবা কারবারি দিদার মিয়া বর্তমান টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদের ছেলে।
গত ২০১১ সালের ৯ সেপ্টেম্বর টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর শিশু পুত্র আলোকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। পরে নিহতের বাবা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। পরে ওই মামলায় সিআইডির তদন্তে দিদার মিয়া ও মুহিবুল্লাহকে উক্ত মামলায় অন্তর্ভুক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন।
বাদীপক্ষের আইনজীবী আমিন উদ্দিন বলেন, মুহিবুল্লাহ পলাতক থাকলেও দিদার মিয়া জামিনে ছিলেন। সোমবার দুপুরে হাজিরা দিতে আসলে আদালত দিদার মিয়াকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
আইনজীবী আরও বলেন, আলোচিত এই মামলায় এখনও দুইজন আসামি জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছেন।
মামলার বাদী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, উপজেলার চেয়ারম্যানের ছেলেসহ তারা আমার সন্তানকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। অবশেষে ওই মামলার আসামি দিদার মিয়াকে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন।
তিনি আরও বলেন, হত্যার ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে আমাকে ও ভগ্মিপতিকে জড়িয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

/এআর/

লাইভ

টপ