নতুন ফুটেজে রিফাতের ওপর হামলার দৃশ্য (ভিডিও)

Send
সুমন সিকদার, বরগুনা
প্রকাশিত : ১৫:৩১, জুলাই ০৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫৬, জুলাই ০৭, ২০১৯

 রিফাত শরীফবরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যার ঘটনায় সিসিটিভি’র নতুন ফুটেজ পাওয়া গেছে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে রিফাতের ওপর হামলার ঘটনা ও হামলাকারীদের চেহারা স্পষ্ট। হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী নয়ন বন্ড হলেও হত্যাকাণ্ডে সক্রিয় ছিল রিফাত ও রিশান ফরাজীসহ আরও ১৫-২০ জন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুকরা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন ২৬ জুন সকাল থেকেই বরগুনা সরকারি কলেজের সামনের সড়কে অবস্থান নেয় নয়ন বন্ড বাহিনী। সকাল ১০টা ৪ মিনিটের সময় কলেজের ভেতর থেকে রিফাত ফরাজীর সঙ্গে রায়হান, রাব্বি আকন, মুছাসহ ৬ জন বের হয়ে ক্যালিক্স একাডেমির সামনে অবস্থান নেয়। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান নিয়েছিল নয়ন, রিশান ফরাজী ও তাদের সহযোগীরা। ১০টা ৫ মিনিটের দিকে ক্যালিক্স একাডেমির সামনে থেকে রিশান তার এক সহযোগীকে নিয়ে কলেজের মূল ফটকের পাশের পকেট গেটের সামনে অবস্থান নেয়। এরপর কলেজের ভেতরে ঢুকে রিফাতকে মারধর শুরু করে। এ ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়া যায়নি।

নতুন ফুটেজে দেখা গেছে, রিফাত ফরাজী কলেজ গেটে এসে রিফাত শরীফকে কলেজ থেকে বের করে পূর্ব দিকে নেওয়ার ইশারা দেয়। ১০টা ১২ মিনিটের সময় কলেজের পকেট গেট দিয়ে রিফাতকে মারতে মারতে বের করে আনা হয়। ১০টা ১৩ মিনিটের সময় রিফাত ও রিশান ফরাজী তাকে মারতে মারতে ক্যালিক্স একাডেমির সামনে নয়নের কাছে নিয়ে যায়। এ সময় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিও তাদের পেছন পেছন যান। সেখানে নয়নের সঙ্গীরা তাকে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি মারতে থাকে। মিন্নি তাদের থামানোর চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে রিফাত ফরাজী পূর্ব দিকে দৌড়ে গিয়ে দু’টি রামদা নিয়ে আসে। একটি রামদা নয়নের হাতে তুলে দেয়, অন্যটি দিয়ে নিজেই রিফাতকে কোপাতে শুরু করে। এ সময় মিন্নি হত্যাকারীদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলেও নয়ন ও রিফাত ফরাজী রিফাতকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এ সময় নয়নের একটি কোপ রিশানের হাতে লাগে। ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে রামদা হাতে নিয়ে কলেজ রোডের পশ্চিম দিকে চলে যায় রিফাত ফরাজী, নয়নসহ বাকিরা। তাদের পেছনে আহত অবস্থায় কয়েকজন রিশানকে নিয়ে যেতে দেখা যায়। এ সময় রাস্তায় উপস্থিত জনতা দাঁড়িয়ে ঘটনা দেখলেও সহযোগিতা করতে এগিয়ে আসেনি।

প্রসঙ্গত, ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওইদিন বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। এছাড়া এজাহারভুক্ত ৫ জন ও হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ৬ জন হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

 

আরও পড়ুন: 

নির্মম সেই হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিলেন রিফাতের স্ত্রী মিন্নি (ভিডিও)

ভিডিও বিশ্লেষণ: ওরা কি দর্শক?

‘কলেজের গেট থেকে রিফাতকে টেনে-হিঁচড়ে বের করে কয়েক যুবক’ 

‘মাথা ও ঘাড়ে গুরুতর ৩ ক্ষতসহ অসংখ্য কোপের আঘাত রিফাতের শরীরে’

রিফাত হত্যায় গ্রেফতার দুই, জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রিফাত খুনের ঘটনায় মন্ত্রীরা যা বললেন

রিফাত হত্যা: আসামিদের দেশত্যাগ ঠেকাতে সীমান্তে এলার্ট জারির নির্দেশ হাইকোর্টের

দুপুরের মধ্যে ডিসি-এসপি’র ‘অ্যাকশন’ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

খুনিরা চিহ্নিত, আমরা এদের পেছনে লেগেছি: বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি

রিফাত হত্যা: ফেসবুকে ঘৃণার ঝড়

রিফাত হত্যা: ১২ জনের নামে মামলা, গ্রেফতার ১

আমার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে: রিফাতের বাবা

স্বামীকে বাঁচাতে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যুদ্ধ নারীর, তবুও শেষ রক্ষা হলো না

 

/এসটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ