ভিডিও বিতর্ক, জামালপুরের ডিসিকে প্রত্যাহার ও শাস্তির দাবি

Send
জামালপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:২৯, আগস্ট ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২৬, আগস্ট ২৪, ২০১৯

জামালপুর-জেলা-প্রশাসকনারী অফিস সহায়কের সঙ্গে জামালপুর জেলা প্রশাসকের (ডিসি) ভিডিও নিয়ে নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জেলা প্রশাসক আহমেদ কবিরকে প্রত্যাহার ও শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন জামালপুরবাসী। তবে, এ বিষয় নিয়ে মুখ খলছেন না জেলা প্রশাসনের কোনও কর্মকর্তা।

জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মুহম্মদ বাকী বিল্লাহ বলেন, ‘এ ঘটনায় জামালপুর জেলাবাসীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। প্রশাসনিকভাবে নিরপেক্ষ তদন্ত করে বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তি হওয়া প্রয়োজন। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে মানবাধিকারকর্মী জাহাঙ্গীর সেলিম বলেন, ‘এ ধরনের অনৈতিক কাজের বিচার না হলে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নারীরা নিরাপত্তাহীনতায় পড়বেন।’

শিক্ষক সমিতির নেতা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আব্দুল হামিদ বলেন, ‘দেশের প্রচলিত আইনে তাকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে।’

রাজনীতিবিদ অধ্যাপক আমীর উদ্দিন বলেন, ‘বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়, একজন জেলা প্রশাসক এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারেন।’ চরম অনৈতিক এ ঘটনায় তিনি দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ তাকে দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানান।

প্রত্যাহার ও শাস্তির দাবির প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক আহমেদ কবিরের বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি তাদের সঙ্গে কথা বলে পরে আমার বক্তব্য জানাবো।’

উল্লেখ্য, জামালপুর জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এবং ফেসবুকের মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দিবাগত রাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। ভিডিওটিতে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে তার অফিসের এক নারী অফিস সহায়ককে দেখা গেছে। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) ভোর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তবে সকাল থেকে খন্দকার সোহেল আহমেদের আইডিতে ওই ভিডিওটি আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। কিন্তু, সেটি ফেসবুক মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে পড়ে। তবে, ভিডিওটি সাজানো দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক।

আরও খবর...

জামালপুরের ডিসির ভিডিও বিতর্ক

 

/এনআই/

লাইভ

টপ