হিজবুল্লাহ নেতাকে কালো তালিকাভূক্ত করলো সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৫৪, মে ১৯, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৮, মে ১৯, ২০১৭

লেবাননের শিয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের সংগঠন হিজবুল্লাহ-র গুরুত্বপূর্ণ নেতা হাশেম সাফিয়েদ্দিনকে সন্ত্রাসীদের কালো তালিকাভূক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরব। শুক্রবার সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে পৃথক ঘোষণায় এ তালিকাভূক্তির কথা জানানো হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

হাশেম সাফিয়েদ্দিন সৌদি আরবের আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সৌদি আরব সফরের একদিন আগে হিজবুল্লাহ নেতাকে কালো তালিকাভূক্তির ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে অবস্থান করবেন ট্রাম্প। এ সফরে গুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা ও বাণিজ্য চুক্তি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, সৌদি সরকার আজ (শুক্রবার) এক হিজবুল্লাহ নেতাকে কালো তালিকাভূক্ত করেছে। যার নাম হাশেম সাফিয়েদ্দিন।

সাফিয়েদ্দিন হিজবুল্লার নির্বাহী পরিষদের সভাপতি। তার দায়িত্বের মধ্যে রয়েছে সংগঠনটির সামাজিক ও আর্থিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা। হিজবুল্লাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভূক্ত করেছে।

লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলে ইসরায়েলের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ১৯৮০ সালে গড়ে ওঠে হিজবুল্লাহ। ২০০০ সালে ইসরায়েলের দখলমুক্ত হয় লেবাননের ওই অঞ্চলটি। বর্তমানে হেজবুল্লাহ সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের হয়ে উপসাগরীয় আরব সুন্নি রাষ্ট্র সমর্থিত বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে।

সুন্নিদের নেতৃত্বাধীন সৌদি আরব ও শিয়াদের নেতৃত্বাধীন ইরান মধ্যপ্রাচ্যে প্রভাব বিস্তারে একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী রূপে দীর্ঘদিন ধরেই মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে যাচ্ছে।

সৌদি আরব ও উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রগুলো ২০১৬ সালে হিজবুল্লাহকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। সূত্র: রয়টার্স।

/এএ/

লাইভ

টপ