জার্মানিতে তীর বিদ্ধ হয়ে ৫ জনের রহস্যজনক মৃত্যু

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৫৪, মে ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:১৩, মে ১৪, ২০১৯

জার্মানির বাভারিয়া রাজ্যের পাসাউ শহরের একটি হোটলের কক্ষ থেকে শনিবার তীরবিদ্ধ অবস্থায় তিন জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। এবার ভিটিংগেন শহরের একটি অ্যাপার্টমেন্ট থেকেও দু'টি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়চে ভেলে এ খবর জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়, পাসাউ শহরের হোটেল থেকে উদ্ধার করা তিন মরদেহের মধ্যে এক নারীর মরদেহও ছিল। সোমবার লোয়ার স্যাক্সনি অঞ্চলের ভিটিংগেন শহরের অ্যাপার্টমেন্ট থেকেই সোমবার আরও দুজন নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। শনিবার পাসাউ শহরের একটি হোটেল থেকে মধ্যযুগীয় এক ধরনের তিরে বিদ্ধ অবস্থায় তিন জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে ৫৩ বছর বয়স্ক একজন পুরুষ, ৩৩ বছর ও ৩০ বছর বয়স্ক দুজন নারী ছিলেন। পুলিশ হোটেল কক্ষের বিছানার উপর থেকে নিহত পুরুষ ও ৩৩ বছর বয়স্ক নারীর লাশ উদ্ধার করে। ওই দু'জন জার্মানির রাইনেল্যান্ড-পালাটিনাটের বাসিন্দা। ৩০ বছর বয়সি অপর নারীর মৃতদেহ হোটেল কক্ষটির মেঝে থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি ভিটিংগেন শহরের বাসিন্দা বলে জানায় পুলিশ।

তাৎক্ষণিকভাবে হত্যার কারণ নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। তবে জানিয়েছে, নিহতদের  শরীরে তির বিদ্ধ ছিল। প্রাথমিক তদন্তের সময় পুলিশ হোটেলের কক্ষটি থেকে আরও একটি তির উদ্ধার করে। নিহতরা একে অপরের আত্মীয় কিনা বা তাদের মধ্যে কোনও সম্পর্ক আছে কিনা, সে বিষয়েও এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ ভিটিংগেনের অ্যাপার্টমেন্টটি থেকে সোমবার আরও দুটি মৃতদেহ উদ্ধার করে। পাসাউ শহরের হোটেল ও ভিটিংগেন শহরের ওই অ্যাপার্টমেন্টের হত্যাকাণ্ডের কোনও যোগসূত্র আছে কিনা তা বিবেচনায় নিয়ে পূর্ণ তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

/এএ/

লাইভ

টপ