উন্নত প্রযুক্তির চাঁদ পর্যবেক্ষণাগার স্থাপন করছে সৌদি আরব

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:০০, জুন ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:০৩, জুন ০৮, ২০১৯

চাঁদ দেখা নিয়ে জটিলতা নিরসনে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, খুব শিগগিরই সর্বাধুনিক প্রযুক্তির টেলিস্কোপ স্থাপনের মাধ্যমে চাঁদ দেখার প্রক্রিয়াকে আরও সহজ করার পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে রিয়াদ।

চাঁদের সঙ্গে ইসলাম ধর্মীয় সংস্কৃতির সম্পর্ক সুগভীর। রমজানের ফরজ হিসেবে রোজা রাখা, শাওয়ালে ঈদ-উল-ফিতর আর জিলহজ মাসে ঈদ-উল-আজহা উদযাপন থেকে হজ সম্পাদন করার সময় নির্ধারিত হয় চন্দ্রের হিসেবে। চাঁদ দেখা নিয়ে বিতর্কও কম নেই। সৌদি আরবও সেই বিতর্কের বাইরে নয়। এমন বাস্তবতায় উন্নত প্রযুক্তির সহায়তা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

সৌদি বাদশাহর একান্ত সহকারী ইয়াসিন মালিকি গত শুক্রবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আল বায়ানকে বলেন, ‘আগামী রমজান থেকে পবিত্র নগরী মক্কার ঐতিহ্যবাহী সুউচ্চ ‘ক্লক টাওয়ার’-এ সর্বাধুনিক উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন টেলিস্কোপ স্থাপন করে তাকে চাঁদ পর্যবেক্ষণাগার হিসেবে ব্যবহার করা হবে।'

ইয়াসিন মালিকি বলেন, ‘মক্কা টাওয়ারে টেলিস্কোপ স্থাপন করে চাঁদের সন্ধান করা হবে। আর তাতে সহজেই রোজা ও ঈদের চাঁদ দেখার কাজ সম্পন্ন হবে।' তিনি বলেন, চাঁদ দেখার ব্যাপারে মুসলিম বিশ্বের প্রথম পর্যবেক্ষণাগার হিসেবে এটি মহাকাশ গবেষণা সংস্থাগুলোকেও সহযোগিতা করবে। 

এবারও চাঁদ দেখা নিয়ে বিভক্তির মুখে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলোতে ভিন্ন ভিন্ন দিনে ঈদুর ফিতর উদযাপিত হয়েছে। সৌদি আরব, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক যেখানে বৃহস্পতিবার ঈদ উদযাপন করেছে; জর্দান, ফিলিস্তিনি আর ইরানে দিনটি উদযাপিত হয়েছে শুক্রবার। সৌদি আরবের সর্বাধুনিক টেলিস্কোপ গবেষণাগারটি ইসলামের ইবাদত পালনকে ঘিরে চলমান বিতর্ক নিরসনে সহায়ক হবে বলে দাবি করছে রিয়াদ।

/বিএ/

লাইভ

টপ