মার্কিন পণ্যে ৭৫০০ কোটি ডলারের শুল্কারোপ চীনের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:১৬, আগস্ট ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১৮, আগস্ট ২৩, ২০১৯

মার্কিন পণ্যে ৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলার মূল্যের শুল্কারোপ করার ঘোষণা দিয়েছে চীন। একই সঙ্গে মার্কিন গাড়ি আমদানিতে শুল্ক পুনরায় আরোপ করা হবে বলে শুক্রবার জানিয়েছে দেশটি। চীনা পণ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুল্কারোপ করার পর চীন এই পাল্টা পদক্ষেপ নিলো। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসি এখবর জানিয়েছে।

চীনের স্টেট কাউন্সিল জানায়, ১ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত দুই ধাপে মার্কিন পন্যে ৫ থেকে ১০ শতাংশ হারে ৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলার শুল্কারোপ করা হবে।

বেইজিং আরও জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করা প্রাইভেট কারে ২৫ শতাংশ শুল্ক পুনর্বহাল করা হবে। এছাড়া গাড়ির যন্ত্রাংশ ও সরঞ্জামে ৫ শতাংশ শুল্কারোপ করা হবে। যা ১৫ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

চলতি বছরের এপ্রিলে মার্কিন গাড়ি ও যন্ত্রাংশে এই শুল্ক স্থগিত করেছিল।

আগস্টের শুরুতে ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা পণ্যে নতুন করে ১০ শতাংশ হারে ৩০ হাজার কোটি ডলারের শুল্কারোপের ঘোষণা দেন। স্মার্টফোন, পোশাকসহ বিভিন্ন পণ্যে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে এ শুল্ক কার্যকর হতে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) টুইটারে ট্রাম্প নতুন এ শুল্ক আরোপের ঘোষণা দেন। ২৫ হাজার কোটি ডলার সমমূল্যের চীনা পণ্যে আগে থেকেই ২৫ শতাংশ শুল্ক জারি আছে।

এক বিবৃতিতে চীনের স্টেট কাউন্সিল জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপের কারণে চীনকে পাল্টা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য করা হয়েছে।

চীনের সঙ্গে বিপুল বাণিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে গত বছর থেকে বেইজিংয়ের রফতানি পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে ট্রাম্প প্রশাসন। ‘মেক আমেরিকা গ্রেট অ্যাগেইন’ আর ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নামের কথিত সংরক্ষণশীল নীতির ঘোষণা দিয়ে ক্ষমতায় আসা ট্রাম্প প্রশাসনের এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে বেইজিং-ও মার্কিন পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে। বাণিজ্য নিয়ে উত্তেজনা কমাতে এ বছর ওয়াশিংটন ও বেইজিং কয়েক দফা বৈঠকও করেছে।

 

/এএ/

লাইভ

টপ