‘গরু’ শব্দ শুনলেই কিছু মানুষের চুল খাড়া হয়ে যায়: মোদি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:৩৬, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৮, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘ওম’ ও ‘গরু’ শব্দ দুটি শুনলেই কিছু মানুষের চুল খাড়া হয়ে যায়। তারা ভাবেন দেশ ষোড়শ শতাব্দীর দিকে পিছিয়ে যাচ্ছে। বুধবার উত্তর প্রদেশের মথুরায় এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। সেখানে তিনি গবাদি পশুর রোগ প্রতিরোধমূলক এক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, “দেশের দুর্ভাগ্য যে, ‘ওম’ এবং ‘গরু’ জাতীয় শব্দ শোনা মাত্র এমন অনেক মানুষ আছেন যাদের চুল খাড়া হয়ে যায়। তারা ভাবেন, এবার বুঝি দেশ পিছিয়ে ষোড়শ শতাব্দীতে চলে গেল।”

নরেন্দ্র মোদি আরও বলেন, ‘যারা দেশকে বিনষ্ট করতে চেয়েছিলেন, তারা বিশেষ কিছু বাকি রাখেননি।’

মোদির এই মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদ-উল-মুসলিমীন প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়েইসি। ভারতের বিভিন্ন স্থানে ‘গো-রক্ষক’দের দ্বারা ঘটিত গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনা তুলে ধরে তিনি বলেন, গো-রক্ষার নামে মানুষ খুন হলে নরেন্দ্র মোদির উচিত তাতে উদ্বিগ্ন হওয়া। যখন গরুর নাম করে মানুষ মারা হচ্ছে এবং সংবিধানের সর্বনাশ করা হচ্ছে, তখন মোদির কান খাড়া হওয়া উচিত।

ওয়েইসি আরও বলেন, যদিও আমাদের হিন্দু ভাইদের কাছে গরু একটি পবিত্র প্রাণি, তবু বলব, সংবিধানে কিন্তু জীবন ও সাম্যের অধিকার মানুষকেই দেওয়া হয়েছে। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

/এএ/

লাইভ

টপ