হামলা ঠেকাতে আগাম সতর্কতা ব্যবস্থা বানাবে নাইজেরিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:৪২, অক্টোবর ০৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪৫, অক্টোবর ০৪, ২০১৯

দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ শহরে নাইজেরিয়ার নাগরিকদের ওপর হামলার ঘটনায় আফ্রিকার দুই শীর্ষ অর্থনৈতিক শক্তির মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদু বুহারি। ওই হামলাকে অগ্রহণযোগ্য আখ্যা দিয়ে হামলা ঠেকাতে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বুহারি। আর হামলার নিন্দা জানিয়ে ভবিষ্যতে তা ঠেকাতে আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা স্থাপন করার কথা জানান রামাফোসা।দক্ষিণ আফ্রিকায় উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়েছেন নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট

গত মাসে জোহানেসবার্গে জেনোফোবিক (ভিনদেশিদের নিয়ে আতঙ্ক) হামলার শিকার হয় নাইজেরীয় নাগরিকেরা। ওই সহিংসতায় ১২ জনের প্রাণহানি ঘটলে শত শত মানুষকে হেলিকপ্টারে তুলে নিয়ে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়।

ওই ঘটনার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকায় সফর করছেন নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদু বুহারি। বৃহস্পতিবার সিরিল রামাফোসার সঙ্গে বৈঠকের পর মৃদু হাসি দিয়ে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরালো করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন দুই নেতা। এসময়ে ওই হামলাকে অগ্রহণযোগ্য আখ্যা দিয়ে বুহারি বলেন, এই ধরণের ঘটনার  পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে আমরা সব ধরণের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ বাস্তবায়ন ও জোরালো করার আহ্বান জানিয়েছি। সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট রামাফোসা বলেন, ‘আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা হবে যাতে উভয় পক্ষের মধ্যে অস্থিরতা দেখা গেলে... আমরা একে অপরকে জানিয়ে দিতে পারি। তিনি বলেন, আমরা সমানভাবে আইনের শাসন সমুন্নত রাখতে এবং জাতীয়তা নির্বিশেষে সব অপরাধীকে বিচারের আওতায় আনতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

চলতি বছরের শুরুতে রামাফোসার নতুন প্রশাসন গঠনের পর প্রথমবার দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করছেন বুহারি। ২০১৩ সালের পর নাইজেরিয়ার প্রথম কোনও নেতা হিসেবে বুহারি দেশটিতে তিন দিনের সফরে গেছেন। এই সফরে তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

/জেজে/

লাইভ

টপ