ছাড়া পেলেন বুরকিনা ফাসোতে অপহৃত অস্ট্রেলীয় নারী

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:৪১, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪২, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৬

 

অপহৃত দম্পতি জোসেলিন এলিয়ট ও কেন এলিয়টআফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোতে গত মাসে স্বামীসহ অপহৃত হওয়া অস্ট্রেলীয় নারীকে অবশেষে ছেড়ে দিয়েছে সশস্ত্র অপহরণকারীরা। প্রতিবেশী দেশ নাইজারে তাকে ছেড়ে দেওয়া বলে এক খবরে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। তবে তার স্বামীকে এখনও ছেড়ে দেওয়া হয়নি। নাইজারের তরফে জানানো হয়েছে, তাকে মুক্ত করার চেষ্টা চলছে।
এক অডিও বার্তায় এলিয়টকে ছেড়ে দেওয়ার খবর জানায় আল কায়েদা সংশ্লিষ্ট সশস্ত্র গোষ্ঠী একিউআইএম। অনলাইনে সশস্ত্র সংগঠনগুলোর কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সাইট ইনটেলিজেন্স সেই অডিও বার্তাটির বরাতে জানায়, ‘নারীদের যুদ্ধে জড়ানোর ইচ্ছে নেই জানিয়ে এলিয়টকে ছেড়ে দেয় একিউআইএম।’
গত মাসে বুরকিনা ফাসোর হোটেলে যেদিন সশস্ত্রদের হামলা হয়, সে একই দিন অপহরণের শিকার হন ওই দম্পতি। ওই হামলাটিরও দায় স্বীকার করেছিল একিউআইএম। ছাড়া পাওয়ার পর এলিয়টের সঙ্গে সরকারের যোগাযোগ হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল। আর নাইজারের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র জানান, এলিয়টের স্বামীকেও মুক্ত করার চেষ্টা চলছে।
গত মাসে বুরকিনা ফাসোর মালি সংলগ্ন সীমান্ত এলাকার কাছের জিবো থেকে জোসেলিন এলিয়ট ও তার স্বামী কেনকে অপহরণ করা হয়। তাদের দুজনেরই বয়স ৮০’র ঘরে। ১৯৭০ এর দশক থেকে শহরটির মানুষদের চিকিৎসা সহায়তা দিয়ে আসছিলেন এ দম্পতি।
অপহরণের পর তাদের মুক্তির দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইন শুরু করেন জিবো শহরের বাসিন্দারা। এতে সাড়া পড়ে যায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। সূত্র: বিবিসি
/এফইউ/বিএ/

লাইভ

টপ