ইউল্যাবে অনুষ্ঠিত হলো ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমি ফর দ্য ফিউচার অব উইমেন বাংলাদেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৩৭, মে ০৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৭, মে ০৪, ২০১৯


ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব) এর সহযোগিতায় ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমি ফর দ্য ফিউচার অব উইমেনের ( ডব্লিউএএফডব্লিউ) সমাপনী অনুষ্ঠান। শনিবার ইউল্যাব অডিটোরিয়াম ধানমণ্ডিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ডব্লিউএএফডব্লিউয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রীদেরকে তাদের নেতৃত্বমূলক প্রশিক্ষণের উপর অর্জিত সনদ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভেরউয়েজ।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষা ভবিষ্যতের প্রবেশ মাধ্যম তাদের জন্য যারা এখন পর্যন্ত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি। আমি দেখে অত্যন্ত আনন্দিত যে, আমরা সামনে বসা এই নারীরা নিজেদেরকে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করেছে। আমি ইউল্যাবকে ধন্যবাদ জানাই বিশ্বমানের এই লিডারশীপ প্রোগ্রাম বাংলাদেশে আয়োজন করার জন্য। আমরা এধরনের আরও প্রোগ্রাম চাই যা শিক্ষার্থীদের   বাস্তব জীবনে দক্ষতা উন্নয়নে কাজে লাগবে। আমাদের উচ্চ শিক্ষায় আরও বিনিয়োগের প্রয়োজন আছে। আমি পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সামনে এগিয়ে আশার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। একজন শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে আমার দায়িত্ব মান ও পরিমাণ, জ্ঞান ও দক্ষতা, শিক্ষাদান ও শিক্ষা গ্রহণের মধ্যে ভারসম্য নিশ্চিত করা। যাতে শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক বাজারে নিজেদেরকে তুলে ধরে পারে, কিংবা উদ্যোক্তা হিসেবেও দাড়াতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমরা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের চেষ্টা করছি। নারীরা এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। যখনই আমরা পৃথিবী সম্পর্কে কথা বলি, আমরা যখনই উন্নয়ন নিয়ে কথা বলি এমনকি অর্থবহ জীবন নিয়ে কথা বলি সব জায়গায় নারীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউল্যাবের বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সদস্য ইউল্যাবের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ও সাংসদ কাজী নাবিল আহমেদ, তাহেরা হক, সাবেক কূটনীতিজ্ঞ ও ডব্লিউএএফডব্লিউয়ের একজন শিক্ষক মাইকি ভেন ভ্লি; ইউল্যাবের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সামসাদ মর্তূজা।

ইউল্যাবের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ও সাংসদ কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, এই প্রোগ্রামে উত্তীর্ণ সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই। ইউল্যাব এই প্রোগ্রাম আয়োজন করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত। ইউল্যাবের প্রতি আমাদের যে এতো বছরের ভালবাসা তা এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য। লিডারশীপ, বিশ্বে নারীর ভূমিকা, সাসটেইনিবিলিটি, লিডারশীপ গোল, আমাদের সীমানার বাইরে এবং আমার মনস্তত্তে অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং। যেহেতু চ্যালেঞ্জিং তাই আমরা এটা করি। আমি বিশ্বাস করি এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে আপনারা যা শিখেছেন তা আজকেই শেষ নয়, এটা মাত্র শুরু। আমি আপনাদের সারাজীবনের সাফল্য কামনা করি। আমি অংশগ্রহণকারীদের সবাইকে অংশ নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাই।

ইউল্যাবের উপাচার্য প্রফেসর ড. জহিরুল হক শিক্ষামন্ত্রীর হাতে শুভেচ্ছা স্বারক ক্রেস্ট তুলে দেন ও ইউল্যাব বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর বিশেষ উপদেষ্টা প্রফেসর ইমরান রহমান বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভেরউয়েজ-এর হাতে শুভেচ্ছা স্বারক ক্রেস্ট তুলে দেন।

অতিথিদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন রেড-অরেঞ্জ মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন, আমাল ফাউন্ডেশন, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ), বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনের কার্যনির্বাহী সদস্যবৃন্দ।

বিগত দশ বছর ধরে চীন এবং নেপালে নিজেদের কার্যক্রম অব্যহত রাখার পর,ইউল্যাবের সহযোগিতায় বাংলাদেশে ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমি যাত্রা শুরু করে গত বছরের ১৪ অক্টোবর। এটি একটি আট মাস ব্যাপী নেতৃত্ব প্রশিক্ষণ কর্মসূচি। জাতিসংঘের ১৭টি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার উপর ভিত্তি করে এই পাঠ্যক্রম পরিকল্পনা করেছেন ডব্লিউএএফডব্লিউ প্রতিষ্ঠাতা জেরি উবার্লি।

ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে নারী দক্ষ্যতা অত্যাবশ্যক। এই আটটি মডিউলে নারীদের বিশ্বব্যাপী অগ্রগতির জন্য প্রয়োজনীয় নেতৃত্বমূলক শিক্ষা প্রদান করা হয়ে থাকে যার মাধ্যমে পৃথিবীর সকল প্রান্তে একজন নারী স্বনির্ভর এবং সচেতন নাগরিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে ও ভবিষ্যতে অন্যান্য নারীদের পথ প্রদর্শক হিসেবেও সক্রিয় ভুমিকা রাখতে পারে।

ওয়ার্ল্ড অ্যাকাডেমির বেশিরভাগ স্বেচ্ছাসেবী প্রশিক্ষক জার্মানি, চীন, আমেরিকা এবং নেদারল্যান্ডসের নাগরিক। বিশ্বমানব তৈরির লক্ষে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এই সকল স্বেচ্ছাসেবী নিজেদের নেতৃত্বজ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তৈরি করেছেন এই অত্যাধুনিক পাঠ্যক্রম।

/এফএএন/

/এফএএন/

লাইভ

টপ