স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোনও শর্ত মেনে কাজ করবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৩১, এপ্রিল ০৭, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫২, এপ্রিল ০৭, ২০১৬

বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসে বক্তব্য রাখছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমজনগণের দোরগোড়ায় আধুনিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে হলে এ খাতে আরও বেশি বাজেট বরাদ্দ করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, যেন আমরা বিদেশি সাহায্যের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে পারি।  স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোনও শর্ত মেনে কখনও কাজ করবে না।  বৃহস্পতিবার  বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
‘সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করুণ: ডায়াবেটিক নিয়ন্ত্রণে রাখুন’ প্রতিপাদ্য নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশেও বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত হয়েছে।
বিভিন্ন শর্ত আরোপের ফলে স্বাস্থ্য খাতে সহযোগী সংস্থাদের অর্থ ছাড়ে গতি কমে যাচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব কাজ পরিচালিত হচ্ছে। যন্ত্রপাতিসহ যেকোনও কেনাকাটায় পৃথক কমিটি করা হয়েছে। কোনও যন্ত্রপাতি কেনার প্রয়োজন হলে এই কমিটির অনুমোদন লাগে। জনবল নিয়োগ ও পদোন্নতির জন্য পৃথক কমিটি আছে। কারও একক সিদ্ধান্তে কোনও কাজ হয় না। তারপরও দাতা সংস্থাগুলো নানা অজুহাতে তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করছে না, অর্থ কাটছাঁট করছে।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ধনী জনগোষ্ঠীর জন্য দেশে-বিদেশে অনেক উন্নত হাসপাতাল আছে। গরিব জনগণের জন্য একমাত্র আশ্রয় সরকারি হাসপাতাল। তাই তৃণমূলের গরিব মানুষদের সঠিকভাবে সেবা দিতে এবং স্বাস্থ্য সেবাকে সম্প্রসারিত করতে হলে আমাদের স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ বাড়াতে হবে।

সন্তানদের ফাস্টফুড জাতীয় খাবার কম খাওয়াতে বাবা-মায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘ফাস্ট ফুড’-এর সংস্কৃতি থেকে আগামী প্রজন্মকে মুক্ত করতে হবে। এর কারণে ছেলে-মেয়েরা বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছে। তাই মা-বাবার উচিত স্বাস্থ্য সম্পর্কে সন্তানকে সচেতন করে তুলে ফাস্টফুড ও তামাক থেকে তাদের দূরে রাখা এবং শারীরিক ব্যায়াম ও পরিশ্রমে তাদের উৎসাহিত করা। 

স্বাস্থ্যসচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হকসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

/জেএ/এমএনএইচ/

লাইভ

টপ