আবরার হত্যা মামলায় অমিত সাহা আটক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১২:০৭, অক্টোবর ১০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:০৬, অক্টোবর ১২, ২০১৯

আবরার হত্যা মামলায় আটক অমিত সাহাবাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক অমিত সাহাকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর সবুজবাগ থানার রাজারবাগ কালীবাড়ি এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, রাজারবাগ কালীবাড়ি এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসা থেকে অমিত সাহাকে আটক করা হয়েছে। তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে এই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে।
আবরার ফাহাদকে যে কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেটি ২০১১ নম্বর কক্ষ। সেই কক্ষের বাসিন্দা অমিত সাহা।

উল্লেখ্য, আবরার ফাহাদকে রবিবার (৬ অক্টোবর) রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সোমবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে আবরারের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি বলেন, ‘ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।’ নিহত আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরে বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

এ হত্যার ঘটনায় সোমবার আবরারের বাবা বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের ১৩ জন নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া এই হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার দায়ে ছাত্রলীগ থেকেও স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১১ নেতাকে। 

আরও পড়ুন: আবরার হত্যা মামলায় আরও ৩ জনসহ মোট গ্রেফতার ১৩

                আবরার হত্যার ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে মামলা 

               বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যায় ৯ ছাত্রলীগ নেতা আটক 
               ফোনে ডেকে নেওয়ার পর লাশ মিললো বুয়েট শিক্ষার্থীর 

/এসজেএ/ওআর/এমএমজে/

লাইভ

টপ