Vision  ad on bangla Tribune

ময়মনসিংহে ৯ পৌরসভায় আ.লীগ ৫, আ. লীগ বিদ্রোহী ২, বিএনপি ২

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি২৩:৫১, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৫

ময়মনসিংহ জেলার ৯ টি পৌরসভার মধ্যে ফুলবাড়িয়া, গফরগাঁও, গৌরীপুর, ভালুকা ও নান্দাইলে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। তবে ত্রিশাল ও ঈশ্বরগঞ্জে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা। অপরদিকে মুক্তাগাছা ও ফুলপুরে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী। এতে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র হয়েছেন ৫ জন। আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ২ জন। অপরদিকে বিএনপির মেয়র হয়েছেন ২ জন। বুধবার রাত সাড়ে ৯ টায় বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ঈশ্বরগঞ্জে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা এমএ সাত্তার নারিকেল গাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ২শ ১১ ভোট। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৬ হাজার ৬শ ৩৬ ভোট। আর তৃতীয় অবস্থানে থেকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ফিরোজ আহমেদ বুলু ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ৪শ ৮২ ভোট।

ময়মনসিংহ

ত্রিশাল পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এবিএম আনিসুজ্জামান জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ১শ ১৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত আমিনুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৮শ ১০ ভোট। তৃতীয় অবস্থানে থেকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম জুয়েল পেয়েছেন ৩ হাজার ৭শ ৭০ ভোট।

গফরগাঁও পৌরসভায় বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকবাল হোসেন সুমন। তিনি নৌকা প্রতীকে পেয়েছে ১২ হাজার ৭শ ১৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতীদ্বন্দ্বী বিএনপির শাহ আব্দুল্লাহ আল মামুন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৫শ ৮৯ ভোট।

গৌরীপুর পৌরসভায় বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম। তিনি নৌকা প্রতীকে পেয়েছে ৭ হাজার এক ১৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শফিকুল ইসলাম হবি পেয়েছেন ৪ হাজার একশ ৪৮ ভোট। তৃতীয় অবস্থানে থেকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সুজিত কুমার দাশ ধানের শীষে ভোট পেয়েছেন ২ হাজার ৭শ’ ২৬ ভোট।

মুক্তাগাছা পৌরসভায় বেসরকারি ভাবে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির শহীদুল ইসলাম শহীদ। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির আতাউর রহমান লেলিন। বিএনপির শহীদুল ইসলাম পেয়েছেন ৯ হাজার ২ শ’ ৪৫ ভোট। জাতীয় পার্টির আতাউর রহমান লেনিন পেয়েছেন ৫ হাজার ৩ শ’ ৯০ ভোট।

নান্দাইল পৌরসভায় মেয়র হিসেবে আওয়ামী লীগের রফিক উদ্দিন ভুইয়া ৯২৯৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপির এএফএম আজিজুল ইসলাম পিকুল। তিনি পেয়েছেন ৬ হাজার ২ শ’৩৮ ভোট।

ফুলপুর পৌরসভায় বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে আমিনুল ইসলাম ৪৮৩৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে শশধর সেন পেয়েছেন ৩৮ শ’৯২ ভোট।

ভালুকায় আওয়ামী লীগের ডা. মেজবাহ উদ্দিন কাইয়ুম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীকে তিনি ভোট পেয়েছেন ৯ হাজার ৯১ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির হাতেম আলী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৩ শ’২১ ভোট।

ফুলবাড়িয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের গোলাম কিবরিয়া মেয়র ৭ হাজার ৭ শত ৯৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হলেন বিএনপির বিদ্রোহী চান মাহমুদ। তিনি ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৯৮ ভোট।

/টিএন/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ