behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

বর্তমানে দেশে কোনও সুশাসন নেই: এরশাদ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।২১:৪৬, অক্টোবর ০৫, ২০১৫

এরশাদপ্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,গণতন্ত্রের অন্যতম শর্ত হচ্ছে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিধান করা। এটা যেকোনও সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব। বর্তমান সরকার এই দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে। অর্থাৎ দেশে কোনও সুশাসন নাই। আর সুশাসন ছাড়া গণতন্ত্র অর্থহীন।

সোমবার রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দুই বিদেশি হত্যাকাণ্ড নিয়ে এ মন্তব্য করেন এরশাদ।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, সরকার যে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে পারেনি, তারই জ্বলন্ত প্রমাণ হচ্ছে ঈদের পরে সংঘঠিত হত্যাকাণ্ডগুলো। শুধু দেশের সাধারণ মানুষ নয়, বিদেশি নাগরিকরাও এদেশে নিরাপদ নয়। ফলে আন্তর্জাতিক মহলে দেশের ভাবমূর্তি বিনষ্ট হচ্ছে। এতে প্রমাণিত হয় দেশে সুশাসনের অভাব ও বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে।

উদ্বেগ প্রকাশ করে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, প্রতিনিয়ত দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। ঈদুল আজহার আগে গরুর হাটে দলীয় লোকজনের চাঁদাবাজির কারণে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুজন নিরীহ মানুষের নির্মম হত্যাকাণ্ড, ঈদের কয়েকদিন পরেই গুলশানের একজন ইতালিয়ান নাগরিককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আজ পর্যন্ত প্রকৃত হত্যকারীকে খুঁজে বের করতে পারেনি। গাইবান্ধায় একজন সংসদ সদস্য মাতাল অবস্থায় একটি শিশুকে গুলি করে আহত করেছে। এ সরকারের আমলে শিশুরা যে নিরাপদ নয় তা আমরা ঈদের আগেও দেখেছি রাকিব, রবিউল, রাজন হত্যার মধ্য দিয়ে। এমনকি মায়ের পেটে শিশু সুরাইয়াও রক্ষা পায়নি সরকার দলীয় সন্ত্রাসীদের হাত থেকে।

অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার, দলীয় ক্যাডারদের নিয়ন্ত্রণ এবং প্রশাসনকে দলীয় প্রভাবমুক্ত করার দাবি জানান এরশাদ। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা ও তথ্যপ্রযুক্তিতে বাংলাদেশের সফলতা অর্জন করায় প্রধানমন্ত্রী পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। তাঁর এ পুরস্কার পাওয়ায় আমরা খুব খুশি। তবে সন্ত্রাস, রাহাজানি, দলীয়করণ, টেন্ডারবাজি, সুশাসনের অভাবে প্রধানমন্ত্রীর এসব অর্জন ম্লান হয়ে যাচ্ছে।

মেডিক্যালে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে যৌক্তিক মনে করেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন, দেশে সর্বস্তরের পরীক্ষার আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার একটি মহোৎসব শুরু হয়েছে। প্রজাতন্ত্রের কিছু কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগের লোকজন এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত আছে। সম্প্রতি মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়া জাতির জন্য দুঃখজনক। জাতীয় পার্টি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের একমত পোষণ করে। সরকারকে প্রশ্নপত্র ফাঁসের সব প্রক্রিয়া বন্ধ করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় আগামীতে জাতি মেধাশূন্য হিসেবে পরিগণিত হবে।

/সিএ/এএইচ/

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ