মাশরাফিদের দুই ঘণ্টার কঠোর অনুশীলন

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট, শ্রীলঙ্কা (কলম্বো) থেকে২১:৪৬, মার্চ ২০, ২০১৭

অনুশীলন মাঠে মাশরাফিরা২৫ মার্চ ডাম্বুলাতে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে। এরই মধ্যে মাশরাফিরা সিরিজের প্রস্তুতি শুরু করেছেন। তারই অংশ হিসেবে সোমবার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শততম টেস্ট একাদশের বাইরের সবাই অনুশীলন করেছেন।

প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য সাইফউদ্দিন ও আবুল হাসান রাজুকে উড়িয়ে এনেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। তারাও ছিলেন অনুশীলনে। প্রেমাদাসার অনুশীলন মাঠে তিনটি নেটে প্রথমে ব্যাটিং করেন মাশরাফি, মাহমুদউল্লাহ ও নুরুল হাসান।

ব্যাটিং পরামর্শক থিলান সামারাবীরার তত্ত্বাবধানে প্রায় ২০ মিনিট চলে তাদের ব্যাটিং অনুশীলন। মাশরাফির ব্যাটিংটা শেষ মুহূর্তে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে দলের জন্য। এ কারণেই তার ব্যাটিং নিয়ে বাড়তি কাজ করছেন কোচ।

মাশরাফি খানিকক্ষণ ব্যাটিং করে এসে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিলেন। এর পর প্রায় চার ওভার বোলিং করেছেন নেটে। যার বেশ কয়েকটি তরুণ অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিনের স্টাম্প উপড়ে দিয়েছে। দারুণ কিছু ডেলিভারিতে অধিনায়ক ভড়কে দিয়েছিলেন তরুণ সাইফউদ্দিনকে।

বল করে এসে কিছুটা ক্লান্ত হয়ে পড়লেন মাশরাফি। যদিও আশ্বস্ত করলেন তেমন কিছুই না, খানিকটা মাথা ব্যাথা। এর পরই প্রশ্ন উঠল ফিটনেস নিয়ে, কেমন অবস্থা এই মুহূর্তে। অধিনায়ক বলেন, ‘আমি সর্বোচ্চ ফিটনেস নিয়েই খেলার চেষ্টা করছি। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি। আরও দুই একটা খেলতে পারলে ভালো হতো। আঙুল নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। আমি চেষ্টা করছি।’

মাহমুদউল্লাহকেও সোমবার কঠোর পরিশ্রম করতে দেখা গেছে। অন্য ব্যাটসম্যানরা একবার নেট করলেও মাহমুদউল্লাহ দুইবার নেটে গিয়েছেন। ফর্মহীনতায় টেস্টে বাদ পড়া এ অলরাউন্ডার ওয়ানডে সিরিজে নিজের আসল রূপ ফেরাতে চান।

অনুশীলনে উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানকে প্রায় আধাঘণ্টা কিপিং অনুশীলন করান ফিল্ডিং কোচ রিচার্ড হ্যালসল। তরুণ এই কিপার ছুড়ে দেওয়া ক্যাচগুলো বেশ ক্ষীপ্ত গতিতেই লুফে নিয়েছেন।

সবমিলিয়ে সোমবার ঐচ্ছিক অনুশীলন পর্বটা ভালোই কাটাল বাংলাদেশ। মঙ্গলবার দুপুরে এই প্রেমাদাসাতেই সব ক্রিকেটাদের একসঙ্গে পাবেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। হয়তো সাকিব-তামিম থাকবেন না এই সেশনে। বুধবার সকালে কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব মাঠে ৫০ ওভারের একটি প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

/আরআই/এফএইচএম/

লাইভ

টপ