পর্তুগালকে ইউরো জেতানো এদের নেই বিশ্বকাপে

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১১:৫৩, মে ১৮, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:২৩, মে ১৮, ২০১৮

Portugal-v-France-Final-UEFA-Euro-2016২০১৬ সালে পর্তুগালের ইউরো জয়ে দারুণ অবদান রেখেও বিশ্বকাপের ৩৫ জনের প্রাথমিক দলে ঠাঁই পাননি রেনাতো সানচেস। তার মতোই দুর্ভাগ্যকে বরণ করে নিতে হলো ফ্রান্সের বিপক্ষে ফাইনালে গোল করা এদেরকে। পর্তুগালের বিশ্বকাপ চূড়ান্ত দলে ইউরো জয়ী ১৩ জন জায়গা পেলেও বাদ পড়েছেন এই ৩০ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

আগামী জুনের রাশিয়া বিশ্বকাপের নেতৃত্ব দেবেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। তিনি ছাড়াও দুই বছর আগের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ জেতা ১২ জন যাচ্ছেন রাশিয়াতে। বৃহস্পতিবার ফের্নান্দো সান্তোসের ঘোষিত ২৩ জনের দলে জায়গা হয়েছে ইউরো ফাইনালের একাদশে খেলা ৯ জনের।

সেন্ট ডেনিসে স্বাগতিক ফ্রান্সের বিপক্ষে ফাইনালের ওই একাদশে খেলা ন্যানি ও রেনাতো কেবল নেই এবার।

ফরাসিদের বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ে গোল করা এদের ছাড়াও ইউরোপ জয় করা দলটির আরও কয়েকজন রাশিয়ার বিমানে উঠতে পারছেন না। রিকার্ডো কারভালহো ও আন্দ্রে গোমেস আছেন এই বাদ পড়ার তালিকায়।

এই মৌসুমে বাজে ফর্মে থাকার কারণে জায়গা হলো না এদেরের। লোকোমোতিভ মস্কোর হয়ে রাশিয়ান প্রিমিয়ার লিগ জিতলেও মাত্র ৪ গোল করেছেন তিনি। দেশের জার্সিতে তৃতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা ন্যানি এই মৌসুমে লাৎসিওর সঙ্গে কেবল ২৪ ম্যাচ খেলেছেন।

গোমেসের বার্সেলোনা সতীর্থ নেলসন সেমেদো জায়গা পাননি। স্পোর্তিং লিসবনে ধারে খেলা রিয়াল মাদ্রিদের ফ্যাবিও কোয়েন্ত্রাও বলেছিলেন, খেলার জন্য সেরা অবস্থায় নেই তিনি। তাই রাখা হয়নি তাকে।

ইউরো জয়ী দলের সবাইকে না নিতে পারায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন সান্তোস। তবে এই দলের ওপর ভরসা রাখছেন পর্তুগালের কোচ, ‘যাদের ফিটনেসে আমি বিশ্বাস রাখি তাদের নিয়েই দল বাছাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতে হবে আমাকে। আমি এই দলের ওপর একই ভাবে আস্থা রাখি, ঠিক যেভাবে রেখেছিলাম ২০১৬ সালে ইউরো খেলা খেলোয়াড়দের ওপর।’

চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনাল থাকায় রোনালদোকে ছাড়া বিশ্বকাপ প্রস্তুতি শুরু করবে পর্তুগাল। ২৮ মে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে তারা। এরপর ২ ও ৭ জুন বেলজিয়াম ও আলজেরিয়াকে লড়বে পর্তুগিজরা।

পর্তুগালের বিশ্বকাপ শুরু হবে ১৫ জুন সোচিতে স্পেনের বিপক্ষে। বি গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ইরান ও মরক্কো।

পর্তুগালের চূড়ান্ত দলগোলরক্ষক: আন্থনি লোপেস, বেতো ও রুই পাত্রিসিও।

ডিফেন্ডার: ব্রুনো আলভেস, সেদরিক সোয়ারেস, জোজে ফন্তে, মারিও রুই, পেপে, রাফায়েল গেহেইরো, রিকার্দো পেরেইরা ও রুবিন দিয়াস।

মিডফিল্ডার: আদ্রিয়েন সিলভা, ব্রুনো ফের্নান্দেস, জোয়াও মারিও, জোয়াও মৌতিনিয়ো, মানুয়েল ফের্নান্দেস ও উইলিয়াম কারভালো।

ফরোয়ার্ড: আন্দ্রে সিলভা, বের্নারদো সিলভা, ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, জেসলন মারতিনস, গনসালো গেজিস ও রিকার্দো কুয়ারেজমা। গোল ডটকম

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ