মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে লড়ছে বাংলাদেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৫৬, জুন ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২৪, জুন ২০, ২০১৯

হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন মুশফিকট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার ৩৮১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। স্কোর ৪৪ ওভারে ৪ উইকেটে ২৮৯।

লিটন দাসের আউটের পর মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েছেন মুশফিকুর রহিম। এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ইতিমধ্যে পূরণ করেছেন হাফসেঞ্চুরি। ৫৪ বলে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৫তম ফিফটি পেয়েছেন মুশফিক। ব্যাট করছেন ৮১ রানে, মাহমুদউল্লাহ ব্যাট করছেন ৫৮ রানে। 

এবার পারলেন না লিটন

ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিপক্ষে জয়ের পথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল লিটন দাসের। তার হার না মানা ৯৪ রানের ইনিংসে বড় স্কোর তাড়া করে জয় পায় বাংলাদেশ। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে পারলেন না তিনি। ২০ রান করে আউট হয়ে গেছেন লিটন।

অ্যাডাম জাম্পার এলবিডাব্লিউয়ের শিকার ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ফিল্ড আম্পায়ার আউট দিলেও রিভিউ নিয়েছিলেন লিটন, তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি।

হাফসেঞ্চুরির পর তামিমের বিদায়

অবশেষে ছন্দ ফিরে পেলেন তামিম ইকবাল। এবারের বিশ্বকাপে প্রথমবার হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন এই ওপেনার। যদিও ফিফটি পূরণ করার পর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি, ৬২ রানে মিচেল স্টার্কের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আগের ম্যাচেই ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ৪৮ রানের ইনিংস খেলে। এবার হাফসেঞ্চুরিও তুলে নিলেন তামিম। ৬৫ বলে পূরণ করেছেন তিনি ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪৭তম ফিফটি।

যদিও লম্বা হয়নি তামিমের ইনিংস। স্টার্কের বল তার ব্যাটে লেগে আঘাত করে স্টাম্পে। ৭৪ বলের ইনিংসে মেরেছেন তিনি ৬ বাউন্ডারি।

এবারের বিশ্বকাপে প্রথমবার ফিফটি হলো না সাকিবের

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এবারের বিশ্বকাপে ষষ্ঠ ম্যাচে নেমেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া ম্যাচ বাদে আগের চার খেলাতেই অন্তত ৫০ রান পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে থাকা এই ব্যাটসম্যানের সেই ধারায় ছেদ পড়লো এবার। ৪১ রানে আউট হয়ে গেছেন তিনি।

টানা দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিলেন সাকিব। ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচের আগে নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও ৫০ ছাড়ানো ইনিংস খেলেছিলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। টানা চার ম্যাচে ব্যাট হাতে আলো ছড়ানো সাকিব অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও শুরুটা করেছিলেন দারুণ।

কিন্তু এবার থামতে হয়েছে ৪১ রানে। মার্কাস স্টোইনিসের স্লোয়ার ডেলিভারিতে মিডঅনে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৪১ বলের ইনিংসটি সাজান ৪ বাউন্ডারিতে।

সাকিব-তামিমের প্রতিরোধ

সৌম্য সরকারের রান আউটের পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। তামিম ইকবালকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েছেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান সাকিব আল হাসান। তাদের ব্যাটে বিশাল লক্ষ্যের পথে ছুটছে টাইগাররা। ৯.৫ ওভারে ৫০ রান পূরণ করার পর আক্রমণাত্মক মেজাজে আছেন সাকিব-তামিম।

রান আউটে ফিরলেন সৌম্য

বিশাল লক্ষ্যে ব্যাটিং নেমে শুরুতেই ধাক্কা বাংলাদেশের। দুঃখজনক রান আউটে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন সৌম্য সরকার।

নিয়মিত বোলার না হলেও বল হাতে জাদু দেখিয়েছেন সৌম্য। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে ‘আসল’ কাজ ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন তিনি। প্রত্যাশাও ছিল অনেক। কিন্তু তামিম ইকবালের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয়েছে তাকে মাত্র ১০ রান করে।

মিডঅনে বল পাঠিয়ে সিঙ্গেলের জন্য দৌড়েছিলেন তামিম। নন-স্ট্রাইকে থাকা সৌম্যও এগিয়ে এসেছিলেন অনেকটা। কিন্তু অ্যারন ফিঞ্চের হাতে বল দেখে যে যার প্রান্তে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ফিঞ্চের সরাসরি থ্রো স্টাম্পে আঘাত হানার আগে নিজের জায়গায় যেতে ব্যর্থ হন সৌম্য। ফলাফল, দুঃখজনক রান আউটে ফিরতে হয় তাকে।

বাংলাদেশের লক্ষ্য ৩৮২

ডেভিড ওয়ার্নারের শুরুটা ছিল মন্থর। কিন্তু সময় গড়ানোর সঙ্গে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে খেলেছেন ঝলমলে এক ইনিংস। তার ১৬৬ রানের সঙ্গে উসমান খাজা (৮৯) ও অ্যারন ফিঞ্চের (৫৩) হাফসেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে রানের পাহাড় গড়েছে অস্ট্রেলিয়া। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে তাদের রান ৩৮১।

ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে হলে তাই রান পাহাড় ডিঙাতে হবে বাংলাদেশকে। রান তাড়ায় এত বড় স্কোর পাড়ি দেওয়ার নজির নেই টাইগারদের। গত বিশ্বকাপে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১৮ রান টপকে যাওয়া এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড। জিততে হলে তাই রেকর্ড গড়তে হবে মাশরাফিদের।

অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের দাপটের দিনে জ্বলে উঠেছিলেন বাংলাদেশের এক ‘পার্ট-টাইম’ বোলার। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারানো ৫ উইকেটের তিনটিই সৌম্য সরকারের শিকার। ৮ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে তিনি ফিরিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তিন সেরা ব্যাটসম্যান- ফিঞ্চ, ওয়ার্নার ও খাজাকে।

/কেআর/

লাইভ

টপ