মিরপুরে ছয়ের রেকর্ড ভেঙে আফগানদের ১৯৭ রান

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:২৫, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:২১, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

519A0147ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ছক্কা বৃষ্টিতে ভাসিয়ে ৫ উইকেটে ১৯৭ রান করেছে আফগানিস্তান। নাজিবউল্লাহ জাদরান ও মোহাম্মদ নবীর ঝড়ে কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে মিরপুরে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ১৫টি ছয়ের রেকর্ড গড়েছে তারা। এক ইনিংসে ১৪টি ছয়ে আগের রেকর্ডটি ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের, ২০১২ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টিতে।

ম্যাচ শুরু হওয়ার পর হ্যামিল্টন মাসাকাদজা বুঝতে পারেন, টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে কত বড় ভুল করেছেন। রহমানউল্লাহ গুরবাজ তার প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচে চড়াও হন জিম্বাবুয়ান বোলারদের ওপর। তার সঙ্গে মাত্র ৫.৪ ওভারে ৫৭ রানের জুটি গড়ে ফিরে যান হযরতউল্লাহ জাজাই (১৩)। টেন্ডাই চাতারার কাছে ফেরেন এই ওপেনার।

পরের ওভারের শেষ বলে গুরবাজের ঝড় থামান শন উইলিয়ামস। ২৪ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৪৩ রান করেন আফগান ওপেনার। এরপর নাজীব তারাকাই ও আসগর আফগান ক্রিজে নামলে রানের গতি কিছুটা কমে যায়। দুজনে ১৪ রানে বিদায় নিলে নাজিবউল্লাহ জাদরান ও মোহাম্মদ নবী বিধ্বংসী ব্যাটিং করেন।

৯০ রানে আফগানদের চার উইকেট নিলেও এই দুই ব্যাটসম্যানের কাছে জিম্বাবুয়ের প্রায় সব বোলার ভোগান্তির শিকার হন। ১৭তম ওভারের তৃতীয় বল থেকে টানা ৭টি ছয় মেরে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন নাজিব ও নবী। টেন্ডাই চাতারার ১৭তম ওভারের শেষ চার বলে টানা ছয় মারেন নবী। এরপর নেভিল মাদজিভার প্রথম তিন বলে টানা ছয় আসে নাজিবের ব্যাটে। ওই ওভারের চতুর্থ বলে বাউন্ডারি মেরে ২২ বলে ফিফটি ছোঁন তিনি।

ইনিংসের শেষ বলে নবী আউট হলে দুইশ ছোঁয়া হয়নি আফগানদের। তবে মাত্র ৪০ বলে ১০৭ রানের এই জুটি দলকে রেখেছে শক্ত অবস্থানে। চাতারার শেষ ওভারে ১৮ বলে চারটি ছয়ে ৩৮ রানে রায়ান বার্লের ক্যাচ হন নবী। ৫ চার ও ৬ ছয়ে সাজানো ছিল নাজিবের ৩০ বলে ৬৯ রানের অপরাজিত ইনিংস।

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ