বন্যার্তদের পাশে তরুণরা

Send
নীলাঞ্জনা অদিতি
প্রকাশিত : ১৮:৫১, আগস্ট ০৪, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০১, আগস্ট ০৪, ২০১৬

লাইটার ইয়ুথ ফাউন্ডেশন...

মাত্র ৬০১ টাকা!

কী কী করি আমরা ৬০১ টাকা দিয়ে? হয়তো সিএনজির যাওয়া-আসার ভাড়া মেটাই, ভালো ফাস্টফুড কিংবা চাইনিজ খাই। কেউ হয়তো একই অংকের টাকা একবারেই মোবাইলে রিচার্জ করে ফেলি। আরও কতভাবে, কত অবহেলায় এই টাকা খরচ করি, তার তো কোনও ইয়ত্তা নেই!

 অথচ এই টাকাতেই একটি পানিবন্দি পরিবার পাবে-ছয় কেজি চাল, এক কেজি ডাল, এক কেজি লবণ, দুই কেজি চিড়া, ৭০০ গ্রাম গুড়, দুই কেজি আলু, ১০টি স্যালাইন, পাঁচটি বড় মোমবাতি! এমনকি একটি হাইজেনিক স্যানিটারি ন্যাপকিনও দেওয়া হবে।

 হ্যাঁ, জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের পানিবন্দি ৫০০ পরিবারের মাঝে এরকম ত্রাণসামগ্রী নিয়ে হাজির হতে চাইছে 'লাইটার ইয়ুথ ফাউন্ডেশন' নামের একটি সংগঠন। সংগঠনটি বিগত দুই বছরেও গাইবান্ধার এড়েন্দাবাড়ি এবং সাঘাটায় ত্রাণ বিতরণ করেছিল।

 সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট মুক্তার ইবনে রফিক বলেন, '১৯৮৮ সালের বন্যার পর এবারের বন্যার অবস্থা খুবই ভয়াবহ। আমরা যেখানটায় ত্রাণ দিতে যাব, সেখানে বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় সব ফসলের জমি ডুবে গেছে, কৃষকের ধানের গোলা নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। থাকার জায়গাও নেই। সব জায়গায় শুধু পানি আর পানি। আমাদের সংগঠনের সবাই কলেজ-ভার্সিটির শিক্ষার্থী, আমরা তো নিজেদের বেস্ট এফোর্ট দিচ্ছি। সমাজের বিত্তবান মানুষরা যদি এই উদ্যোগের পাশে দাঁড়াত, তাহলে আমরা কত বন্যার্ত পরিবারের মাঝে বেঁচে থাকার রসদ জোগাতে পারতাম!'

 জলবন্দি মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে 'লাইটার ইয়ুথ ফাউন্ডেশন'। মুক্তার এই যাত্রায় সর্বসাধারণের অংশগ্রহণও আশা করেন। 

/এফএএন/

লাইভ

টপ