X
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বন্যার পানিতে ভেসে গেছে ২১ কোটি টাকার মাছ

আপডেট : ০২ জুলাই ২০২০, ১১:৫৩

বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জ সদর, বিশ্বম্ভরপুর, দোয়ারাবাজার, ছাতকসহ ১১টি উপজেলার দুই হাজার ৮৪৬টি পুকুরের মাছ ও মাছের পোনা ভেসে গেছে। অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে পুকুরের। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন পাঁচ শতাধিক মৎস্যচাষি। ১১টি উপজেলায় পুকুর ও মাছের ২১ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় জেলা মৎস্য অফিস। বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

সীমান্তের ওপাড় থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণে সৃষ্ট বন্যায় ১১টি উপজেলার পুকুরের মাছ ভেসে যায়। পানির চাপে পুকুরের পাড় উপচে কয়েক দিনের ব্যবধানে ভেসে যায় ২০ কোটিও বেশি টাকার মাছ, মাছের পোনা ও রেনু। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সদর ও বিশ্বম্ভরপুর এবং দোয়ারাবাজার উপজেলা।  বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

জেলা মৎস্য বিভাগের হিসাব মতে, সদর উপজেলার এক হাজার ২১৮টি পুকুর, বিশ্বম্ভরপুরে ৪৫০টি, দোয়ারাবাজারে ২৯৩টি, ধর্মপাশায় ৩৪২টি, ছাতকে ২১০টি, জামালগঞ্জে ১১১টি, তাহিরপুরে ৭০টি, দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ৯০টি, শাল্লায় ছয়টি, দিরাইয়ে ২৬টি, জগন্নাথপুরে ৩০টি, দিরাইয়ে ২৬টি পুকুরের এক হাজার ২৬৮ মেট্রিক টন মাছ ও ১২২ মেট্রিক টন মাছের পোনা ভেসে যায়। যার বাজারদর ২০ কোটি ৩১ লাখ টাকা। বন্যায় পুকুরের পাড় ভেঙে  অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে এক কোটি ১৪ লাখ টাকার। বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, জেলায় দুই হাজার ৮৪৬টি পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। বন্যায় ৫২৯ হেক্টর জমির পুকুর ও দীঘির মাছ ভেসে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন চাষিরা। সুনামগঞ্জে এক লাখ ২১ হাজার ৭৪৩ জন জেলে রয়েছেন। তাদের মধ্যে মৎস্যজীবী কার্ড প্রাপ্ত জেলে রয়েছেন ৭৫ হাজার ৮৯০ জন। বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

এদিকে নদীর পানি কমতে শুরু করায় উঁচু এলাকাগুলো থেকে বন্যার পানি নেমে গেছে। কিন্তু নিচু হাওর ও সুনামগঞ্জ শহরের নিচু এলাকার পানি না নামায় লোকজন দুর্ভোগে রয়েছেন। হাওর ও ছয় ৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১২১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

সুনামগঞ্জ শহরের নিচু এলাকার সড়কে নৌকা দিয়ে লোকজন শহরে আসা-যাওয়া করছেন। পৌর এলাকার ৪০ ভাগ ঘরবাড়ি ও আঙিনায় এখনও বন্যার পানি রয়ে গেছে। সুনামগঞ্জ শহরের নিচু এলাকায় এখনও রয়েছে বন্যার পানি

জেলা প্রশাসনের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলায় এক লাখ ২১ হাজার ৩৫৪টি পরিবার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া তিন হাজার ২৬৫ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যায় প্রায় ২১ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে সুনামগঞ্জে

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে চাল, চিড়া, মুড়ি, গুড়, বিস্কুট, দিয়াশলাই, মোমবাতি, খাবার স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেটসহ প্রয়োজনীয় ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে।

 

/এফএস/

সম্পর্কিত

সিলেট বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো ৪৪১ জনের

সিলেট বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো ৪৪১ জনের

সিলেটে ৩ জনকে গলা কেটে হত্যায় পারিবারিক বিরোধ দেখছে পুলিশ

সিলেটে ৩ জনকে গলা কেটে হত্যায় পারিবারিক বিরোধ দেখছে পুলিশ

উপনির্বাচনে অংশ নিতে চাওয়ায় বিএনপি নেতাকে শোকজ

উপনির্বাচনে অংশ নিতে চাওয়ায় বিএনপি নেতাকে শোকজ

সিলেটে মা ও দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যা

সিলেটে মা ও দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যা

প্রতিনিয়ত হটস্পট বদলাচ্ছে করোনা, এরপর কোথায়?

প্রতিনিয়ত হটস্পট বদলাচ্ছে করোনা, এরপর কোথায়?

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৬ প্রার্থী

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৬ প্রার্থী

বিয়ের বাজারের জন্য ডেকে নিয়ে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

বিয়ের বাজারের জন্য ডেকে নিয়ে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

নতুন গ্যাসক্ষেত্র হতে পারে জকিগঞ্জ

নতুন গ্যাসক্ষেত্র হতে পারে জকিগঞ্জ

বিভাগে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সিলেট জেলায়

বিভাগে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সিলেট জেলায়

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

‘ফোন দিলে অবস্থা খারাপ হবে’ বলেই সার্জেন্টকে মারধর যুবকের

‘ফোন দিলে অবস্থা খারাপ হবে’ বলেই সার্জেন্টকে মারধর যুবকের

শাহজালালের মাজারে এবারও ওরস হচ্ছে না

শাহজালালের মাজারে এবারও ওরস হচ্ছে না

সর্বশেষ

বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংকে লেনদেন সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংকে লেনদেন সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

ওয়ারীতে লেগুনা উল্টে চালকের স্ত্রীর মৃত্যু

ওয়ারীতে লেগুনা উল্টে চালকের স্ত্রীর মৃত্যু

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

এটিএম কার্ড জালিয়াতি করে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ

পালিয়েছে ব্যাংক কর্মকর্তা, চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

ইলিয়াস সানিকে ইট ছুড়ে মারলেন সাব্বির

ইলিয়াস সানিকে ইট ছুড়ে মারলেন সাব্বির

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সিলেট বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো ৪৪১ জনের

সিলেট বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো ৪৪১ জনের

সিলেটে ৩ জনকে গলা কেটে হত্যায় পারিবারিক বিরোধ দেখছে পুলিশ

সিলেটে ৩ জনকে গলা কেটে হত্যায় পারিবারিক বিরোধ দেখছে পুলিশ

উপনির্বাচনে অংশ নিতে চাওয়ায় বিএনপি নেতাকে শোকজ

উপনির্বাচনে অংশ নিতে চাওয়ায় বিএনপি নেতাকে শোকজ

সিলেটে মা ও দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যা

সিলেটে মা ও দুই সন্তানকে গলা কেটে হত্যা

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৬ প্রার্থী

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৬ প্রার্থী

বিয়ের বাজারের জন্য ডেকে নিয়ে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

বিয়ের বাজারের জন্য ডেকে নিয়ে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

নতুন গ্যাসক্ষেত্র হতে পারে জকিগঞ্জ

নতুন গ্যাসক্ষেত্র হতে পারে জকিগঞ্জ

বিভাগে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সিলেট জেলায়

বিভাগে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সিলেট জেলায়

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে সিলেটের পাহাড়ে ১০ হাজার মানুষের বসবাস

‘ফোন দিলে অবস্থা খারাপ হবে’ বলেই সার্জেন্টকে মারধর যুবকের

‘ফোন দিলে অবস্থা খারাপ হবে’ বলেই সার্জেন্টকে মারধর যুবকের

© 2021 Bangla Tribune