সেকশনস

নিউ জার্সিতে শিক্ষক ও গণপরিবহন কর্মীদেরও আগে টিকা পাচ্ছেন ধূমপায়ীরা

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৪২
image

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে ভ্যাকসিন প্রদানের ক্ষেত্রে ধূমপায়ীদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। ‘উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা মানুষ’দের ক্যাটাগরিতে রেখে এ বিশেষ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে তাদের। অথচ সে তালিকায় নেই শিক্ষক ও গণপরিবহন কর্মীরা। সন্মুখ সারির মানুষদের বাদ দিয়ে ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে ধূমপায়ীদের প্রাধান্য দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন স্থানীয়দের কেউ কেউ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেককে এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে দেখা গেছে।

করোনা মহামারি প্রতিরোধে কাদেরকে আগে ভ্যাকসিন দিতে হবে সে ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র (সিডিসি)-এর একটি নির্দেশনা রয়েছে। সে তালিকায় সন্মুখ সারির যোদ্ধারাসহ বিভিন্ন বিবেচনার মানুষ থাকলেও আলাদা করে ধূমপায়ীদের ব্যাপারে বলা নেই। তাদেরকে সাধারণ মানুষের তালিকাতেই রাখা হয়েছে। তবে ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য আবার ভিন্ন ভিন্ন নির্দেশনা তৈরি করেছে।

নিউ জার্সির রাজ্য প্রশাসনের কোভিড-১৯ তথ্য কেন্দ্র প্রদত্ত তালিকা অনুযায়ী যারা ভ্যাকসিন পাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন- স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মী, নার্সিং হোমের বাসিন্দা ও কর্মী, সন্মুখ সারিতে কাজ করা করোনা যোদ্ধা, উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা মানুষ।

শেষে থাকা এ ‘উচ্চ ঝুঁকির মানুষ’ এর ক্যাটাগরিটি নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। কারণ, এ ক্যাটাগরিতে ৬৫ এর বেশি বয়সী মানুষদের পাশাপাশি আরও কিছু বিশেষ বিবেচনার মানুষকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। তারা হলেন-ক্যানসার আক্রান্ত, দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগে আক্রান্ত, ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারিতে আক্রান্ত, ডাউন সিন্ড্রোম, হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তি, স্থূলতা, মারাত্মক স্থূলতা, সিকেল সেল ডিজিজ, ধূমপায়ী ও টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগী।

সবে ফার্স্ট রেসপন্ডার ও উচ্চ ঝুঁকির মানুষদের ভ্যাকসিন দিতে শুরু করেছে নিউ জার্সি কর্তৃপক্ষ। অনলাইনে তারা জানিয়েছে, ফ্রন্টলাইনে অন্য জরুরি কাজে নিয়োজিত থাকা কর্মীদেরকে পরবর্তীতে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এর পরের ধাপে ভ্যাকসিন পাবেন অন্য জরুরি কর্মী ও সাধারণ জনগণ।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি ছাড়া অন্যান্য অঙ্গরাজ্যে ধূমপায়ীদের অগ্রাধিকার না দেওয়া হলেও কিছু কিছু অঙ্গরাজ্য ভ্যাকসিন প্রদানের ক্ষেত্রে শিক্ষকদেরকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে না। সম্প্রতি আলাবামা অঙ্গরাজ্যের ভ্যাকসিন প্রদানের অগ্রাধিকার তালিকা শিক্ষকদের নিচের দিকে রাখা হয়েছে। অবশ্য, ম্যারিল্যান্ডের মতো কিছু অঙ্গরাজ্যে সোমিবার (১৮ জানুয়ারি) থেকে শিক্ষকদেরকে ভ্যাকসিন প্রদান শুরুর পরিকল্পনা আছে।

আমেরিকান ফেডারেশন অব টিচারস-এর প্রেসিডেন্ট ডনা এম. সিয়েরা ইয়াহু লাইফকে বলেন, ‘নিউ জার্সির অনেক শিক্ষকই এ সিদ্ধান্তের ব্যাপারে ক্ষুব্ধ হয়েছেন এবং নিজেদেরকে অসম্মানিত বোধ করছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘অঙ্গরাজ্য কর্তৃপক্ষ মিশ্র বার্তা দিচ্ছে। আমাদেরকে বলা হয়েছে যে শিক্ষার্থীদেরকে শ্রেণিকক্ষে ফিরিয়ে আনতে হবে, শিক্ষা ব্যবস্থাকে স্বাভাবিক করতে হবে। তবে সেটা যেন নিরাপদ হয়। আমরা জানি ধূমপান হলো আসক্তি। তা ছেড়ে দেওয়াটা সহজ কাজ নয়। এসব মানুষের ভাইরাসের সংস্পর্শে আসাটা খুব ঝুঁকির। তবে শিক্ষকদেরকে ভ্যাকসিনের তালিকা থেকে বাদ রেখে আপনারা এ কথা বলতে পারেন না যে স্কুল খোলাটাই প্রধান অগ্রাধিকারের বিষয়।’

সিয়েরা জানান, উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত অনেকের কাছ থেকে শুনেছেন ভ্যাকসিনের তালিকায় গ্রুপ ১সি তে থাকায় তারা হতাশ। ভ্যাকসিন পেতে তাদেরকে মে-জুন মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। নিম্ন-মাধ্যমে নিয়োজিত শিক্ষকদের চেয়েও তারা পিছিয়ে আছেন। নিম্ন মাধ্যমের শিক্ষকদের রাখা হয়েছে গ্রুপ বি-তে।

নিউ জার্সি এডুকেশন অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক স্টিভেন বেকার ইয়াহু লাইফকে বলেন, ‘শুরু থেকে আমাদেরকে বলা হচ্ছে যে ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে শিক্ষকদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। শিক্ষা প্রদানের কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরা যেন নিরাপদে কাজে ফিরতে পারেন তা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে এটি এক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।’

বেকার আশাবাদী যে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন আরও ভালো নেতৃত্ব দেবে।

নিউ জার্সি কর্তৃপক্ষের এ পদক্ষেপকে মেডিক্যাল কমিউনিটিও ভালো চোখে দেখছে না। এ ব্যাপারে সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ রিচার্ড ওয়াটকিন্স বলেন, ‘এটা দুর্ভাগ্যজনক সিদ্ধান্ত। মানুষ নিজেদের পছন্দে ধূমপান বেছে নিয়েছে। শরীরের ওপর এর খুব নেতিবাচক প্রভাব পড়ে।’

ধূমপায়ীদেরকে আগে ভ্যাকসিন দিয়ে মহামারি ঠেকানো সম্ভব হবে কিনা সে ব্যাপারে সন্দেহ জানিয়েছেন ওয়াটকিন্স।

তবে আরেক সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অমেশ এ. আদালিয়া মনে করেন, ধুমপায়ীদেরকে আগে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছেন। তার মতে, ধূমপায়ীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার মধ্য দিয়ে তাদেরকে মারাত্মক জটিলতায় আক্রান্ত হওয়া থেকে ঠেকানো যাবে। আর তখন হাসপাতালের ওপর চাপ কমবে এবং মৃত্যু হারও কমবে।

সব কিছুর পরও বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ধূমপায়ীরা যদি ধূমপান ছেড়ে দিতে পারেন তবে সেটাই হবে সবচেয়ে মঙ্গলজনক দিক।

/এফইউ/

সম্পর্কিত

তাজমহলে বোমাতঙ্ক

তাজমহলে বোমাতঙ্ক

ভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

ধর্ষণ প্রশ্নে বিতর্কিত মন্তব্যভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

আস্থা ভোটের মুখোমুখি হচ্ছেন ইমরান খান

আস্থা ভোটের মুখোমুখি হচ্ছেন ইমরান খান

হাজার হাজার ডোজ নকল করোনা ভ্যাকসিন আটক

হাজার হাজার ডোজ নকল করোনা ভ্যাকসিন আটক

হামলার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট অধিবেশন বাতিল

হামলার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট অধিবেশন বাতিল

ইসরায়েলি যুদ্ধাপরাধের আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু

ইসরায়েলি যুদ্ধাপরাধের আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

মারা গেছেন দ. কোরিয়ার তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম সেনা সদস্য

মারা গেছেন দ. কোরিয়ার তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম সেনা সদস্য

তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়!

তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়!

সর্বশেষ

মা হচ্ছেন শ্রেয়া

মা হচ্ছেন শ্রেয়া

ভয়ঙ্কর মাদক ‌‘আইস’র সবচেয়ে বড় চালান জব্দ, আটক ১

ভয়ঙ্কর মাদক ‌‘আইস’র সবচেয়ে বড় চালান জব্দ, আটক ১

‘বাবলের’ মধ্যেই সাতজনের করোনা, পিএসএল স্থগিত

‘বাবলের’ মধ্যেই সাতজনের করোনা, পিএসএল স্থগিত

ভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

ধর্ষণ প্রশ্নে বিতর্কিত মন্তব্যভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

বিবাহ ও বিচ্ছেদ ডিজিটালাইজেশনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বিবাহ ও বিচ্ছেদ ডিজিটালাইজেশনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

হঠাৎ বেড়েছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা, শিশুই বেশি

হঠাৎ বেড়েছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা, শিশুই বেশি

বাংলাদেশের সাহিত্য : স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর | শেষ পর্ব

বাংলাদেশের সাহিত্য : স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর | শেষ পর্ব

সীমান্তে প্রতিটি হত্যাকাণ্ড দুঃখজনক: জয়শঙ্কর

সীমান্তে প্রতিটি হত্যাকাণ্ড দুঃখজনক: জয়শঙ্কর

ভূমি অবক্ষয় কমিয়ে আনতে হবে: পরিবেশ মন্ত্রী

ভূমি অবক্ষয় কমিয়ে আনতে হবে: পরিবেশ মন্ত্রী

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

জলের গানে আরও এক গায়ক (ভিডিও)

জলের গানে আরও এক গায়ক (ভিডিও)

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মিললো তিন কোটি টাকার ‘আইস’

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মিললো তিন কোটি টাকার ‘আইস’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তাজমহলে বোমাতঙ্ক

তাজমহলে বোমাতঙ্ক

ভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

ধর্ষণ প্রশ্নে বিতর্কিত মন্তব্যভারতে জোরালো হচ্ছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবি

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

ভারতে রাজনৈতিক স্বাধীনতা সীমিত হয়েছে: প্রতিবেদন

আস্থা ভোটের মুখোমুখি হচ্ছেন ইমরান খান

আস্থা ভোটের মুখোমুখি হচ্ছেন ইমরান খান

হাজার হাজার ডোজ নকল করোনা ভ্যাকসিন আটক

হাজার হাজার ডোজ নকল করোনা ভ্যাকসিন আটক

হামলার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট অধিবেশন বাতিল

হামলার আশঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট অধিবেশন বাতিল

ইসরায়েলি যুদ্ধাপরাধের আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু

ইসরায়েলি যুদ্ধাপরাধের আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.