X
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

টিকা নিতে প্রস্তুত তারা

আপডেট : ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ২৩:০৪

দেশে ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আজ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ২৬ জনকে টিকা দেওয়ার মাধ্যমে দেশে টিকাদান কর্মসূচি শুর হয়। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) এ হাসপাতালের সঙ্গে আরও চারটি হাসপাতালে ( ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, মুগদা জেনারেল হাসপাতাল ও কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতাল) টিকা দেওয়া শুরু হবে। আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে শুরু হবে এ কার্যক্রম।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য ইতোমধ্যেই সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে, বসানো হয়েছে চারটি বুথ। সেখানে একটি বুথে প্রথম টিকা দেবেন হাসপাতালের মেডিসিন অ্যান্ড ইনফেকশাস বিভাগের ডা. ফরহাদ উদ্দিন হাছান চৌধুরী মারুফ। নিজের কর্তব্য পালন করছি মন্তব্য করে বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, পরিবারের সবাইকে জানিয়েই ভ্যাকসিন নিচ্ছি। সবাই খুশি।

কোনও অসংকোচ কাজ করছে কীনা জানতে চাইলে ডা. ফরহাদ বলেন, এ ভ্যাকসিন নিয়ে সব ধরনের প্রতিবেদন পড়েছি, জেনেছি-সেখানে এমন কিছু পাইনি যে ভয় পেতে হবে। এই ভ্যাকসিন ইতোমধ্যে পৃথিবীতে লাখ লাখ মানুষ নিয়েছে, সুতরাং এ নিয়ে কোনও ধরনের অসংকোচের বা দ্বিধার অবকাশ নেই। আর আমি টিকা নিলে আমার যারা কাছের মানুষ আছেন, বন্ধুরা আছেন তারাও দ্বিধা থেকে কিছুটা হলেও মুক্ত হবেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম টিকা নেবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ও পরিচালক ( হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুলফিকার আমিন।

ভ্যাকসিন নেওয়াটাকে কিছুই মনে হচ্ছে না অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার কাছে। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, কিছুদিন আগে ইনফ্লুয়েঞ্জার ভ্যাকসিন নিলাম, দুইমাস আগে নিলাম নিউমোনিয়ার ভ্যাকসিন। সেখানে এটাকে কিছু মনে করার নেই, আমার কাছে অস্বাভাবিক কিছু ফিল করার জায়গাই নেই।

ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, বিভ্রান্তিমূলক প্রচারণা...যেগুলো মানুষ বিভিন্ন জায়গায় বলছে, কোনও কিছু নিয়েই আমার কোনও প্রতিক্রিয়া নেই। আমি স্বাভাবিকভাবেই যাচ্ছি। পরিবারের সবার মত আছে কীনা জানতে চাইলে অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, প্রাথমিকভাবে পরিবার থেকে মৃদু আপত্তি ছিল। কিন্তু আমি বলেছি, আমি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, আমি যদি না দেই, তাহলে আমার কলিগরা কী মনে করবেন, তারা সাহস পাবে কোথা থেকে। এই জাস্টিফিকেশন শুনে কেউ আর আপত্তি করে নাই। অনেকেই বলতে পারেন, আমি উপাচার্য হয়ে নিজেকে সুরক্ষা দিতে টিকা নিচ্ছি, কিন্তু বিষয়টি তা নয়। বরং অন্যদের উদ্বুদ্ধ করতে, নিজের দায়িত্বের জায়গা থেকে টিকা নিচ্ছি। আমি একজন চিকিৎসক, দেশবাসী যখন জানবেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ভ্যাকসিন নিয়েছেন তখন তারাও আশ্বস্ত হবেন, তারাও আস্থা পাবেন।

এদিকে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে প্রথম টিকা নিচ্ছেন হাসপাতালেও ওয়ার্ড মাস্টার এ এন এম রেজাউল কবির চৌধুরী। তিনি বলেন, যখন এ হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া শুরু হয়, তখনও সামনে থেকে কাজ করেছি। এখন যখন আমার হাসপাতালে টিকা দেওয়া হবে, তখনও আমিই সামনে থাকতে চেয়েছি।

গত ছয় বছর ধরে এ হাসপাতালে কাজ করছেন জানিয়ে তিনি বলেন, এ হাসপাতালে যখন করোনা রোগীদের চিকিৎসা শুরু হয় তখন আমরা একটা টিম কাজ করছিলাম। তখন থেকেই দেখছিলাম, অনেকের মধ্যে ভয় কাজ করছে, সেটা দূর করার চেষ্টা থেকেই আমি বেশি কাজ করতে চাইতাম, চেষ্টা করতাম। এবারও যখন দেখলাম টিকা নিয়ে অনেক প্রোপাগান্ডা, তখনই ভাবলাম আমরা যদি টিকা নেই তাহলে আরও অনেক স্বাস্থ্যকর্মী এগিয়ে আসবেন। তাদেরকে দেখে আরও অনেকের ভুল ভাঙবে- এ চিন্তা করেই টিকা নিতে উদ্যোগী হওয়া।

পরিবারের সবাই মত দিয়েছেন কীনা জানতে চাইলে রেজাউল কবির বলেন, হাসপাতালে যখন করোনা রোগীদের চিকিৎসা শুরু হয়, তখনও না করেছে, এবারও না করেছে।

এ হাসপাতালেরই শিশু বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. আবু সাঈদ শিমুল টিকা নিচ্ছেন প্রথম দিনেই। ডা. শিমুল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে এক ধরনের বিভ্রান্তি কাজ করছে। প্রথম দিকে এটা হওয়াই স্বাভাবিক। কিন্তু খুবই দুঃখজনক যে ডাক্তারদের একাংশও দ্বিধার মধ্যে আছেন। অথচ এই বিভ্রান্তি ও দ্বিধা দূর করতে চিকিৎসকদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। সে কারণেই প্রথম সুযোগেই ভ্যাকসিন দিতে সম্মত হলাম।

ডা. শিমুল বলেন, এতে কোনও ভয় বা সংশয় কাজ করছে না আমার। বরং এই সুযোগ যে আমি পেয়েছি, সেটাই গৌরবের।

/জেএ/এমআর/

সর্বশেষ

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

আনন্দে আত্মহারা মেসি

আনন্দে আত্মহারা মেসি

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

এমপি বাদশার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গুজব ছড়ানোয় জিডি

এমপি বাদশার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গুজব ছড়ানোয় জিডি

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

রাষ্ট্রীয় সম্মানে শায়িত হলেন নাট্যজন মহসিন

রাষ্ট্রীয় সম্মানে শায়িত হলেন নাট্যজন মহসিন

মোবাইল থেকে কেটে নেওয়া টাকা কবে ফেরত আসবে?

মোবাইল থেকে কেটে নেওয়া টাকা কবে ফেরত আসবে?

‘রমজানে লকডাউন দিয়ে আলেমদের দমন গ্রহণযোগ্য নয়’

‘রমজানে লকডাউন দিয়ে আলেমদের দমন গ্রহণযোগ্য নয়’

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

‘মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার’

‘মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার’

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

বীর মুক্তিযোদ্ধারা পাবেন ডিজিটাল সনদ ও স্মার্ট পরিচয়পত্র

বীর মুক্তিযোদ্ধারা পাবেন ডিজিটাল সনদ ও স্মার্ট পরিচয়পত্র

১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে: কাদের

১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে: কাদের

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

অসহায় ও কর্মহীনদের পাশে দাঁড়ান: ওবায়দুল কাদের

অসহায় ও কর্মহীনদের পাশে দাঁড়ান: ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ইস্যুতে কথা বলতে চাননি দুই কূটনীতিক

ঢাকাসহ কয়েকটি অঞ্চলে হতে পারে ঝড়বৃষ্টি

ঢাকাসহ কয়েকটি অঞ্চলে হতে পারে ঝড়বৃষ্টি

‘লকডাউন’ বাড়ছে

‘লকডাউন’ বাড়ছে

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune