X
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

সাতক্ষীরা হয়ে উঠুক বাংলাদেশ

আপডেট : ০৭ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৩৯

সাতক্ষীরার কয়েকজন মানুষ, কয়েকটি সংগঠনের অভিজ্ঞতা সুতার ফোঁড়ে বুনে বুনে তৈরি করেছেন অনন্য উদাহরণ। যখন কিনা টেলিভিশনের টকশোতে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারকে সমালোচনা করে নানা বক্তব্য দেওয়ার প্রবণতা বেশি, তখন সাতক্ষীরার নানা পেশার কয়েকজন মানুষ নিজেদের কাঁধে তুলে নিয়েছেন দায়িত্ব।৯টি দলে ভাগ হয়ে মাইকিংয়ের মাধ্যমে সতর্ক করে চলেছেন— করোনা থেকে বাঁচতে হলে কী করতে হবে। এই মুহূর্তে বাংলাদেশের যে অবস্থা, তাতে করে সাতক্ষীরার এই মানুষগুলোর মতো প্রতিটি শহরে আপামর জনসাধারণকে সচেতন করে তুলবেন, এমন মানুষ দরকার। 

করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে একবছর ধরে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার কাজ করলেও গত কয়েকদিন হলো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রায়ই দেখা যাচ্ছে— তাদের কার্যক্রমের বিষয়ে বিভিন্ন পোস্ট। 

কী করছেন আপনারা, কবে থেকে করছেন এমন প্রশ্নে বেসরকারি সংস্থা ‘স্বদেশ’ এর নির্বাহী পরিচালক মাধব দত্ত বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘তেমন কিছু করতে পারছি কই? ৩৫ জন কোভিড নিয়ে মারা গেলো, শত শত কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা গেলো। কী যে আছে সামনে! এরপরেও এলাকার মানুষ সতর্ক না। স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। আমরা তাদেরকে সেই জায়গায় সতর্ক করার চেষ্টা করছি।’

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের কর্মকর্তা ফেসবুকে লিখেছেন— ‘মাধব দত্ত। একজন নিবেদিত প্রাণ মানবাধিকারকর্মী। করোনার ভয়াবহতা রোধে এলাকার মানুষকে সতর্ক করতে একজন সহকর্মীকে নিয়ে রাস্তায় নেমেছেন। তাদের ছবিটা দেখছি আর ভাবছি, মানুষকে নিঃস্বার্থ ভালোবাসার মানুষ ফুরিয়ে যায় নাই।’

তবে মাধব দত্ত এ কাজের কৃতিত্ব নিজে নিতে রাজি নন। তিনি বলেন, ‘সারা দেশের মতো আমাদের এখানেও জেলা প্রশাসনের নিয়মিত কার্যক্রম রয়েছে। কিন্তু সাধারণ নাগরিক হিসেবে আমাদেরও কিছু দায়িত্ব রয়েছে। সেখান থেকেই রাজনৈতিক-সামাজিক অ্যাক্টিভিস্ট, চিকিৎসক, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা মিলে কাজটা করছি।’  মাধব দত্ত বলেন, ‘আগামী কয়েকদিন আমরা প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে সচেতনতার কাজ করবো। আপনারা জানেন, সাতক্ষীরা সীমান্ত এলাকা। ভারতে কোভিড পরিস্থিতি ভালো না। ফলে সীমান্ত এলাকায় কাজ করা দরকার। এছাড়া

আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় মানুষ আদৌ সতর্ক জীবন-যাপন করছে কিনা, আমরা সেটাও মনিটর করবো।’ প্রতিটি মানুষ নিজের দায়িত্বটুকু পালন করলে শিগগিরই এই দুরাবস্থাকে পরাস্ত করা সম্ভব হবে বলেও মনে করেন তিনি।

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

গণপরিবহন না থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছেন রিকশাচালকরা

গণপরিবহন না থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছেন রিকশাচালকরা

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর রামেকে ভর্তি এমপি বাদশা

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর রামেকে ভর্তি এমপি বাদশা

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

৭ সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ খালি নেই

৭ সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ খালি নেই

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

কুম্ভ মেলায় অংশ নিয়ে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হাজার হাজার মানুষ

কুম্ভ মেলায় অংশ নিয়ে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হাজার হাজার মানুষ

সর্বশেষ

বাড়ি ফিরে জানতে পারলেন বাঘের থাবায় মরে গেছেন তিনি!

বাড়ি ফিরে জানতে পারলেন বাঘের থাবায় মরে গেছেন তিনি!

রমজানে পুলিশের ফ্রি ইফতার অ্যান্ড সেহরি শপ

রমজানে পুলিশের ফ্রি ইফতার অ্যান্ড সেহরি শপ

মসজিদ কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে একজন গুলিবিদ্ধ

মসজিদ কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে একজন গুলিবিদ্ধ

‘কঠোর বিধিনিষেধের’ প্রথম দিনে হয়রানির শিকার চিকিৎসকরা

‘কঠোর বিধিনিষেধের’ প্রথম দিনে হয়রানির শিকার চিকিৎসকরা

মতিন খসরুর মৃত্যুতে সংসদীয় গণতন্ত্রে বিরাট শূন্যতা তৈরি হলো: আইনমন্ত্রী

মতিন খসরুর মৃত্যুতে সংসদীয় গণতন্ত্রে বিরাট শূন্যতা তৈরি হলো: আইনমন্ত্রী

আবারও আলোচনায় সেই বাবর আজম

আবারও আলোচনায় সেই বাবর আজম

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

কাভার্ড ভ্যানের চাপায় প্রাণ গেলো একই পরিবারের ৪ জনের

কাভার্ড ভ্যানের চাপায় প্রাণ গেলো একই পরিবারের ৪ জনের

দিদি-মোদি নাটক করছে: রাহুল গান্ধী

দিদি-মোদি নাটক করছে: রাহুল গান্ধী

এবারও মাঠে সেই ‘রিয়েল লাইফ হিরো’, সঙ্গে ছাত্রলীগ

এবারও মাঠে সেই ‘রিয়েল লাইফ হিরো’, সঙ্গে ছাত্রলীগ

আড়াই লাখ মুভমেন্ট পাস ইস্যু

আড়াই লাখ মুভমেন্ট পাস ইস্যু

হোয়াটসঅ্যাপের যে ফিচারে পরিবর্তন আসছে

হোয়াটসঅ্যাপের যে ফিচারে পরিবর্তন আসছে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

সন্ধ্যার পর অলিগলিতে আড্ডা

গণপরিবহন না থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছেন রিকশাচালকরা

গণপরিবহন না থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছেন রিকশাচালকরা

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

মতিন খসরুর দাফন হবে গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়

মতিন খসরুর দাফন হবে গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়

আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অবদান উজ্জ্বল হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অবদান উজ্জ্বল হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune