X
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

করোনায় মৃত ব্যক্তির লাশ কাঁধে নিয়ে নিচে নামতে হয় রামেকে

আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০২১, ১৬:১৭

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে আইসিইউ ও অক্সিজেন সংকট রয়েছে। সেইসঙ্গে পর্যাপ্ত ব্যবস্থাপনার অভাবে করোনার সংক্রমণ ও ভোগান্তি বাড়ছে।  তিনতলায় করোনা ওয়ার্ড করায় এবং সেখানে লিফট না থাকায় রোগী মারা যাওয়ার পর লাশ কাঁধে নিয়ে নিচে নামতে হয় স্বজনদের।  

রামেক হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে রামেক হাসপাতালে ৮৬ জন করোনা রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য মাত্র ১০টি আইসিইউ বেড ও ১৮টি ভেন্টিলেটর সুবিধা রয়েছে। কিন্তু বিদ্যমান আইসিইউ এর চেয়ে আইসিইউ বেড লাগবে এমন রোগীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ। এখন প্রতিদিন প্রায় ৮ থেকে ১০ জন রোগীকে সিরিয়ালের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে। অক্সিজেনের সংকট রয়েছে। অপর্যাপ্ত আইসিইউসহ অক্সিজেনের অভাবে রোগীকে যেমন ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। আইসিইউ এর অপেক্ষার প্রহর গুণতে গুণতে রোগী মারাও যাচ্ছেন।

ক্রমবর্ধমান করোনা রোগীর চাপে হাসপাতালের উত্তরের একটি বিল্ডিংয়ের তিন তলায় অবস্থিত ২৫ নম্বর চক্ষু ওয়ার্ডকে করোনা ওয়ার্ড হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। যে ওয়ার্ডটি এখনও পুরোপুরি প্রস্তুত হয়নি। কিন্তু রোগী বাড়তে থাকাই অর্ধপ্রস্তুতকৃত এই ওয়ার্ডেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। হাসপাতালে আইসিইউ ও অক্সিজেন সংকটসহ পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকলেও থেমে নেই চিকিৎসা। তবে সংকটের সঙ্গে ব্যবস্থাপনাগত ত্রুটিগুলোকেও করোনা রোগীদের কার্যকর সেবা নিশ্চিতের প্রতিবন্ধকতা হিসেবে দায়ী করছেন রোগী ও তার স্বজনসহ সংশ্লিষ্টরা।

করোনা রোগী বাড়তে থাকায় তিন তলায় অবস্থিত চক্ষু ওয়ার্ডটিকে করোনা ওয়ার্ড হিসেবে প্রস্তুত করা হয়েছে। কিন্তু এই ওয়ার্ডে থাকা  রোগীদের জন্য খুবই কষ্টকর। কেননা এখানে কোনও লিফটের ব্যবস্থা নেই। একজন করোনা রোগীকে হেঁটে এই তিন তলায় উঠতে হচ্ছে। এতে রোগীর শারীরিক অবস্থারও অবনতি হচ্ছে।

রামেকে রোগী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রোগীর স্বজন জানান, তার রোগীকে করোনার লক্ষণসহ ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। রোগীকে তিনতলা হেঁটে ওপরে উঠতে হয়েছে। তারপর ডাক্তার দেখার পর আইসিইউ লাগবে বলে জানান। কিন্তু আইসিইউ ফাঁকা ছিল না। শেষ পর্যন্ত আইসিইউ না পেয়ে তার রোগী মারা যান।

তিনি আরও জানান, রোগী মারা যাওয়ার পর তাদের বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়। তিনতলায় কোনও লিফট নেই। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার রোগী হেঁটে তিন তলাই উঠলো। রাতপোহানোর আগেই লাশকে কাঁধে নিয়ে নিচে নামাতে হয়েছে। আর এখানে রোগীর দেখাশোনার জন্য তেমন কোনও লোক না থাকায় স্বজন হিসেবে তাদেরই সবসময় রোগীর কাছে থাকতে হয়েছে।  

অন্যদিকে, এই ওয়ার্ডের আরেক রোগীর স্বজন মোসা. রজিনা বেগম জানান, আমার রোগীকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে নিয়ে এসেছি। শ্বাসকষ্ট হওয়ায় ডাক্তার এখানে পাঠিয়েছে। এখনও কোনও বেড পাইনি, অক্সিজেন পাইনি। এই ওয়ার্ডের বারান্দায় রোগীকে রেখেছি। সে আমার স্বামী। আমরা দু’জনেই এসেছি। বাসায় ছোট ছেলে আছে। তাকেও নিয়ে আসিনি।

এদিকে, হাসপাতালে করোনা রোগীর পাশাপাশি অন্যান্য রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। কিন্তু সেই অনুযায়ী রোগীদের মাঝে বাড়েনি সচেতনতা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকেও এ বিষয়ে কার্যকর তেমন কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি।

রামেকে করোনা রোগী বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) হাসপাতালের বর্হিবিভাগ ও জরুরি বিভাগগুলো ঘুরে দেখা যায়, হাসপাতালের মধ্যেও অনেকেই মাস্ক ব্যবহার করছেন না। বর্হিবিভাগের টিকিট কাউন্টার থেকে শুরু করে ডাক্তারদের রুমের বাইর পর্যন্ত রোগীদের সিরিয়ালে সামাজিক দূরত্বের কোনও বালাই ছিল না। এমন চিত্র শুধু বহির্বিভাগ নয়, জরুরি বিভাগের অবস্থাও প্রায় একই। শিশু ওয়ার্ড, নিউরোমেডিসিন ওয়ার্ড, গাইনি ওয়ার্ডসহ আরও কয়েকটি ওয়ার্ডে রোগীদের চাপ ছিল বেশি। ওয়ার্ডের বাইরে বারান্দা থেকেও অনেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। রোগীদের সঙ্গে থাকা একাধিক স্বজনে ভিড় আরও বাড়িয়েছে। এতে জরুরি বিভাগেও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত হচ্ছে না।

এ বিষয়ে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, রামেক হাসপাতালে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বর্তমানে প্রায় ৮৬ জন রোগী ভর্তি আছে। এ পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা থাকায় তারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এরই মধ্যে ২৫ নম্বর ওয়ার্ডকে করোনা ওয়ার্ড করা হয়েছে। নতুন করে ২২ নম্বর ওয়ার্ডকে প্রস্তুত করা হচ্ছে। যেটা শনিবারই চালু হয়ে যাবে। এগুলো শেষ হলে ১৬ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডও প্রস্তুত করা হবে। তবে এটা সত্য ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে করোনা রোগীদের ওঠা-নামাই সমস্যা হচ্ছে। তবে এ সমস্যা সামনে থাকবে না। রোগীদের মধ্যে যারা একটু সুস্থ তাদেরই ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে পাঠানো হবে।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, তাদের নানা সীমাবন্ধতার মধ্যে কাজ করতে হচ্ছে। তাদের ইচ্ছা থাকলেও সবকিছু করতে পারছেন না। হাসাপাতালে আইসিইউ সংকট আছে। এটা স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়েও জানানো হয়েছে। সামনে কিছুদিনের মধ্যে হয়তো ৮টি আইসিইউ পাওয়াও যাবে। আর অক্সিজেনের যেন সংকট না হয় সেজন্য কাজ চলমান রয়েছে। করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে সাধারণ রোগীদের কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। তবে তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আর বহির্বিভাগসহ জরুরি বিভাগে স্বাস্থ্যবিধির বিষয় নিশ্চিত করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু রোগীরা সচেতন হচ্ছে না। তাদের বলেও কাজ হচ্ছে না। এ কারণে তো আর চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধও রাখা যায় না। সুতরাং রোগীদের আরও সচেতন হতে হবে। আর তারাও এ বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্যে সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

/আইএ/

সম্পর্কিত

যে কারণে উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাতের পরামর্শ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

যে কারণে উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাতের পরামর্শ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

গাজায় সহিংসতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালেন রওশন এরশাদ

গাজায় সহিংসতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালেন রওশন এরশাদ

হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসাইন রিমান্ড শেষে কারাগারে

হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসাইন রিমান্ড শেষে কারাগারে

প্রায় শতভাগ কারখানায় বেতন-বোনাস পরিশোধ, দাবি বিজিএমই’র

প্রায় শতভাগ কারখানায় বেতন-বোনাস পরিশোধ, দাবি বিজিএমই’র

শ্রমিকদের ছুটি নিয়ে বিশৃঙ্খলা এড়িয়ে চলার অনুরোধ বিজিএমইএ’র  

শ্রমিকদের ছুটি নিয়ে বিশৃঙ্খলা এড়িয়ে চলার অনুরোধ বিজিএমইএ’র  

সিনোফার্মের টিকা পাবেন যারা

সিনোফার্মের টিকা পাবেন যারা

জেলেদের জন্য ১৬ হাজার ৭২১ মেট্রিক টন ভিজিএফ বরাদ্দ

জেলেদের জন্য ১৬ হাজার ৭২১ মেট্রিক টন ভিজিএফ বরাদ্দ

আরও ৪০ জনের মৃত্যু

আরও ৪০ জনের মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রী মানবিক বলেই দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়েছেন: কাদের

প্রধানমন্ত্রী মানবিক বলেই দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়েছেন: কাদের

যাদের প্রয়োজন সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়ার চেষ্টা করছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

যাদের প্রয়োজন সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়ার চেষ্টা করছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আল-আকসা মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

আল-আকসা মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

আজ চাঁদ না উঠলে পোশাকশিল্প এলাকায় বৃহস্পতিবারও ব্যাংক খোলা

আজ চাঁদ না উঠলে পোশাকশিল্প এলাকায় বৃহস্পতিবারও ব্যাংক খোলা

সর্বশেষ

যে কারণে উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাতের পরামর্শ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

যে কারণে উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাতের পরামর্শ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

যেকোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত হামাস: ইসমাইল হানিয়া

যেকোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত হামাস: ইসমাইল হানিয়া

মোবাইলে দেখা যাবে বিটিভি, অ্যাপ উদ্বোধন করলেন তথ্যমন্ত্রী

মোবাইলে দেখা যাবে বিটিভি, অ্যাপ উদ্বোধন করলেন তথ্যমন্ত্রী

গাজায় সহিংসতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালেন রওশন এরশাদ

গাজায় সহিংসতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানালেন রওশন এরশাদ

কাশিমপুর কারাগারে মামুনুল হকসহ ১৪ হেফাজত নেতা

কাশিমপুর কারাগারে মামুনুল হকসহ ১৪ হেফাজত নেতা

রিমান্ড শেষে কারাগারে জুনায়েদ আল হাবিব

রিমান্ড শেষে কারাগারে জুনায়েদ আল হাবিব

হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসাইন রিমান্ড শেষে কারাগারে

হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসাইন রিমান্ড শেষে কারাগারে

প্রায় শতভাগ কারখানায় বেতন-বোনাস পরিশোধ, দাবি বিজিএমই’র

প্রায় শতভাগ কারখানায় বেতন-বোনাস পরিশোধ, দাবি বিজিএমই’র

থেমে থাকা মাইক্রোবাসে অপর মাইক্রোবাসের ধাক্কা: র‌্যাব সদস্যসহ নিহত ২

থেমে থাকা মাইক্রোবাসে অপর মাইক্রোবাসের ধাক্কা: র‌্যাব সদস্যসহ নিহত ২

শ্রমিকদের ছুটি নিয়ে বিশৃঙ্খলা এড়িয়ে চলার অনুরোধ বিজিএমইএ’র  

শ্রমিকদের ছুটি নিয়ে বিশৃঙ্খলা এড়িয়ে চলার অনুরোধ বিজিএমইএ’র  

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ছাড়িয়েছে

বাবুল আক্তার ৫ দিনের রিমান্ডে

বাবুল আক্তার ৫ দিনের রিমান্ডে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিমুলিয়া ঘাটে জনসমুদ্র

শিমুলিয়া ঘাটে জনসমুদ্র

ঘরমুখো মানুষ, কিছুতেই থামানো যাচ্ছে না

ঘরমুখো মানুষ, কিছুতেই থামানো যাচ্ছে না

অপরিপক্ব ফলে সয়লাব বাজার

অপরিপক্ব ফলে সয়লাব বাজার

ঝড়ো হাওয়ায় উড়ে গেলো উপহারের ঘরের টিন, ভেঙে পড়লো পিলার!

ঝড়ো হাওয়ায় উড়ে গেলো উপহারের ঘরের টিন, ভেঙে পড়লো পিলার!

বিকালে শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীর ঢল

বিকালে শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীর ঢল

বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ৩ জনের

বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ৩ জনের

ঝড়-শিলায় ধান ও সবজির ব্যাপক ক্ষতি

ঝড়-শিলায় ধান ও সবজির ব্যাপক ক্ষতি

রুমায় সন্ত্রাসী আস্তানা থে‌কে অত্যাধুনিক অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

রুমায় সন্ত্রাসী আস্তানা থে‌কে অত্যাধুনিক অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

খণ্ড খণ্ড জটে ধীরগতি, চেকপোস্টে ভোগান্তি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কখণ্ড খণ্ড জটে ধীরগতি, চেকপোস্টে ভোগান্তি

যে যেভাবে পারছেন, ঝুঁকি নিয়ে ছুটছেন

যে যেভাবে পারছেন, ঝুঁকি নিয়ে ছুটছেন

© 2021 Bangla Tribune