X
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে দু’মাসেই ফাটল!

আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০২১, ২১:০০

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে গৃহহীনদেরকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে দেওয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের বেশ কিছু ঘরে নির্মাণের দু’মাসের মধ্যেই ফাটল দেখা দিয়েছে। গত শুক্রবারের ঝোড়ো বাতাসে এসব বাড়ি-ঘরে ফাটলের সৃষ্টি হয়। এতে এসব ঘরে থাকা সুবিধাভোগী নিম্নবিত্ত মানুষগুলো আছেন আতঙ্কে। স্থানীয়দের অভিযোগ, নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ঘর নির্মাণ করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ঘরগুলো দ্রুতই মেরামত করা হবে।

মাত্র দু’মাস আগে সরকারের আশ্রয় প্রকল্পের ঘর বুঝে পান জেলার ভূমিহীনরা। পাকা ঘর পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হলেও গত শুক্রবার রাতের সামান্য ঝোড়ো বাতাসের কবলে পড়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বেশ কয়েকটি ঘরের দেয়াল ও মেঝে ফেটে যায়। ফলে আশ্রয় নেওয়া মানুষগুলো এখন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, জেলার হরিপুর উপজেলার বজ্রমতলি (শান্তির নীড়) গ্রামে আশ্রয়ন প্রকল্পের প্রথম দফায় গড়ে ওঠা ১৩৩টি ঘরের মধ্যে বেশ কয়েকটিতে এমন ফাটলের সৃষ্টি হয়েছে। ঘর পাওয়া দরিদ্র মানুষগুলোর চোখে মুখে এখন দুশ্চিন্তার ভাঁজ।

উপজেলা প্রশাসনের তথ্য মতে, প্রথম দফায় প্রতিটি ঘরের জন্য এক লাখ ৭১ হাজার টাকা ব্যয় ধরে বজ্রমতলি (শান্তির নীড়) গ্রামে ১৩৩টি ঘর নির্মাণ করা হয়। আর এসব ঘর ভূমিহীনদের মাঝে বুঝে দেওয়া হয় গত ফেব্রুয়ারিতে।

ঘরের পেছন দিকে ফাটল দেখাচ্ছেন একজন ভুক্তভোগী।

স্থানীয়দের অভিযোগ, অনেকটাই তড়িঘড়ি করে ঘরগুলো নির্মাণ ও মানসম্মত উপকরণ ব্যবহার না করার কারণেই সামান্য দুর্যোগে ঘরের এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। আর এসব ফাটল ধরা ঘর বসবাসের অনুপযোগী হওয়ায় ঘর ছেড়ে অন্যত্র বসবাস শুরু করেছেন অনেকে। অন্যদিকে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই হচ্ছে জলাবদ্ধতা।

সরকারের ঘর পাওয়া রফিকুল ইসলাম, সাবেরা খাতুন, দুলাল, সেলিমসহ অনেকে জানান, সামান্য বাতাসে বেশ কয়েকটি ঘরে ফাটল ধরেছে, তার কারণ ঘর নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। এখন ছেলে-মেয়ে নিয়ে এসব ফাটল ধরা ঘরে থাকতে ভয় লাগছে।  অনেকে ঘর ছেড়ে বাইরে থাকছে। আমরা ভূমিহীন গরিব মানুষ বলেই ঘর পেয়েছিলাম। কিন্তু, এমন ঘর পেলাম যে ঘরে থাকা এখন ঝুঁকির ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা এ বিষয়ে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সেই সাথে আমাদেরকে ভাল মানের ঘর তৈরি করে দেওয়া হোক। আর যারা ঘর নির্মাণে অনিয়ম করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করছি।

ঘরগুলোতে ফাটল দেখা দিয়েছে স্বীকার করে হরিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান মুকুল জানান, সবকিছুই নির্বাহী অফিসার করেছেন। ঘরগুলো যদি টেকসই না হয় তাহলে তো ব্যর্থতাই বলা যায়। 

হরিপুর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুল করিম জানান, প্রথম ধাপের কাজ ছিল বলেই তাড়াহুড়া করতে হয়েছে। অনিয়মের অভিযোগ এড়িয়ে তিনি দ্রুত ফাটল ধরা ঘরগুলো মেরামত করে বসবাসের উপযোগী করে তোলা হবে বলে জানান।

/টিএন/

সম্পর্কিত

প্রেমিকার বাড়ির পাশে বিয়ের কার্ড বিতরণ করতে এসে শ্রীঘরে

প্রেমিকার বাড়ির পাশে বিয়ের কার্ড বিতরণ করতে এসে শ্রীঘরে

উপাচার্যের ডাকা সিন্ডিকেট সভা বন্ধে শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়উপাচার্যের ডাকা সিন্ডিকেট সভা বন্ধে শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

দেবীগঞ্জে বজ্রাঘাতে দুই জনের মৃত্যু

দেবীগঞ্জে বজ্রাঘাতে দুই জনের মৃত্যু

ঈদকে সামনে রেখে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গি আবু বকরের

ঈদকে সামনে রেখে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গি আবু বকরের

হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

সাবেক ডিসি সুলতানাসহ তিন ম্যাজিস্ট্রেটকে বরখাস্তের জন্য আইনি নোটিশ

সাবেক ডিসি সুলতানাসহ তিন ম্যাজিস্ট্রেটকে বরখাস্তের জন্য আইনি নোটিশ

ভারত ফেরত ৫ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠালো পুলিশ

ভারত ফেরত ৫ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠালো পুলিশ

কমলো চালের দাম

কমলো চালের দাম

বোরোর বাম্পার ফলন, ফসল ঘরে তুলতে ব্যস্ত চাষিরা

বোরোর বাম্পার ফলন, ফসল ঘরে তুলতে ব্যস্ত চাষিরা

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

রাতারাতি মাজার!

রাতারাতি মাজার!

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

সর্বশেষ

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

ভ্যাকসিন ছাড়া সৌদি আরব গেলে নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন

ভ্যাকসিন ছাড়া সৌদি আরব গেলে নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন

নিজের স্বপ্নপুরুষের সঙ্গে কয়েক জন্মের তফাতে জুলেখার মিলন

নিজের স্বপ্নপুরুষের সঙ্গে কয়েক জন্মের তফাতে জুলেখার মিলন

অবিশ্বাস্য গল্প বলেছি বিশ্বাসযোগ্য ভঙ্গিতে : রাশিদা সুলতানা

অবিশ্বাস্য গল্প বলেছি বিশ্বাসযোগ্য ভঙ্গিতে : রাশিদা সুলতানা

উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

ডিজিটাল উপকূল- ১উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

মালয়েশিয়ায় পাচারের সময় ৬ রোহিঙ্গা নারী-শিশু উদ্ধার, আটক ১

মালয়েশিয়ায় পাচারের সময় ৬ রোহিঙ্গা নারী-শিশু উদ্ধার, আটক ১

বার্সা-রিয়াল জোটে থাকলে বাদ রোনালদোরা

বার্সা-রিয়াল জোটে থাকলে বাদ রোনালদোরা

এআইইউবি-তে ৫জি প্রযুক্তি বিষয়ে ওয়েবিনার 

এআইইউবি-তে ৫জি প্রযুক্তি বিষয়ে ওয়েবিনার 

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

বরিশাল সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে ‘ইমাম ভবন’

বরিশাল সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে ‘ইমাম ভবন’

নিঃসঙ্গ জীবনের গল্প

নিঃসঙ্গ জীবনের গল্প

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

প্রেমিকার বাড়ির পাশে বিয়ের কার্ড বিতরণ করতে এসে শ্রীঘরে

প্রেমিকার বাড়ির পাশে বিয়ের কার্ড বিতরণ করতে এসে শ্রীঘরে

উপাচার্যের ডাকা সিন্ডিকেট সভা বন্ধে শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়উপাচার্যের ডাকা সিন্ডিকেট সভা বন্ধে শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

দেবীগঞ্জে বজ্রাঘাতে দুই জনের মৃত্যু

দেবীগঞ্জে বজ্রাঘাতে দুই জনের মৃত্যু

ঈদকে সামনে রেখে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গি আবু বকরের

ঈদকে সামনে রেখে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গি আবু বকরের

হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

হিলি ও বেনাপোল দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

ভারত ফেরত ৫ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠালো পুলিশ

ভারত ফেরত ৫ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠালো পুলিশ

কমলো চালের দাম

কমলো চালের দাম

বোরোর বাম্পার ফলন, ফসল ঘরে তুলতে ব্যস্ত চাষিরা

বোরোর বাম্পার ফলন, ফসল ঘরে তুলতে ব্যস্ত চাষিরা

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

রাতারাতি মাজার!

রাতারাতি মাজার!

© 2021 Bangla Tribune