X
রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

গুমের ভয় দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৫৫

গাজীপুরের কালীগঞ্জে খুন ও গুমের ভয় দেখিয়ে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রতিবেশী নুরুল হাসান ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর মা বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত নুরুল হাসান উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের বাঙ্গালগাঁও গ্রামের নুরুল ওয়াহাবের ছেলে।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বরাত দিয়ে ওসি মিজানুল হক জানান, প্রায় দেড় বছর আগে হত্যার পর লাশ গুম করার ভয় দেখিয়ে কালীগঞ্জ উপজেলার শহীদ ময়েজ উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে তার প্রতিবেশী চাচাতো ভাই নুরুল হাসান জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বিষয়টি কাউকে জানালে পরিবারসহ তাকে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। এরপর থেকে প্রায় দেড় বছর যাবৎ ভয় দেখিয়ে ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছে যুবকটি। গত ১৫ এপ্রিল রাত সাড়ে আটটার দিকে ওই কিশোরীর ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে নুরুল হাসান। এ সময় কিশোরীর চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে এলে নুরুল হাসান দৌড়ে পালিয়ে যায়। ইতোপূর্বে ধর্ষণ হলেও তার কোন প্রমাণ বা আলামত পাওয়া যায়নি। সর্বশেষ ১৫ এপ্রিল ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার মামলা করেছেন।

অভিযুক্তকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

 

/এনএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

কাপাসিয়ায় অন্তঃসত্ত্বা নারী পুলিশের আত্মহত্যা

কাপাসিয়ায় অন্তঃসত্ত্বা নারী পুলিশের আত্মহত্যা

বিনোদন স্পট বন্ধ, তাই খোলা মাঠ বা নদীর ধারে

বিনোদন স্পট বন্ধ, তাই খোলা মাঠ বা নদীর ধারে

ইবাদত করে দিন কাটে সেই ঐশীর

ইবাদত করে দিন কাটে সেই ঐশীর

যেভাবে ঈদ কাটালেন, যা খেলেন বন্দিরা

কাশিমপুর কারাগারে প্রায় ৫০ হেফাজত নেতাযেভাবে ঈদ কাটালেন, যা খেলেন বন্দিরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

কাপড় ইস্ত্রি করতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

কাপড় ইস্ত্রি করতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী ও সতীন পলাতক

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী ও সতীন পলাতক

মহাসড়কে বাস আছে, যাত্রী নেই!

মহাসড়কে বাস আছে, যাত্রী নেই!

করোনাকালেও গড়ে প্রতিদিন পাঁচজন ধর্ষণের শিকার

করোনাকালেও গড়ে প্রতিদিন পাঁচজন ধর্ষণের শিকার

লকডাউনের মধ্যেই ঢাকায় ১৮ খুন ও ৩৭ ধর্ষণ

লকডাউনের মধ্যেই ঢাকায় ১৮ খুন ও ৩৭ ধর্ষণ

সর্বশেষ

রাস্তায় চলাচলে ডিএমপির পরামর্শ

রাস্তায় চলাচলে ডিএমপির পরামর্শ

প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত রোগীর মৃত্যু

প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত রোগীর মৃত্যু

সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজছাত্রীসহ নিহত ২

সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজছাত্রীসহ নিহত ২

বৃদ্ধাশ্রমের সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে হামলার শিকার ২ সংবাদকর্মী, থানায় জিডি

বৃদ্ধাশ্রমের সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে হামলার শিকার ২ সংবাদকর্মী, থানায় জিডি

বিদ্রোহী শহরের নিয়ন্ত্রণ নিলো মিয়ানমার সেনাবাহিনী

বিদ্রোহী শহরের নিয়ন্ত্রণ নিলো মিয়ানমার সেনাবাহিনী

আমেরিকান নারীদের ১৩০ কোটি ডলার দেবে ড. ইউনূসের প্রতিষ্ঠান

আমেরিকান নারীদের ১৩০ কোটি ডলার দেবে ড. ইউনূসের প্রতিষ্ঠান

টিকা মজুত আছে ৬ লাখ ৮০ হাজার ডোজ

টিকা মজুত আছে ৬ লাখ ৮০ হাজার ডোজ

সাইক্লোন ‘তকতের’ প্রভাব পড়বে বাংলাদেশে?

সাইক্লোন ‘তকতের’ প্রভাব পড়বে বাংলাদেশে?

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে এক কোটি টাকা পেলো হকি ফেডারেশন

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে এক কোটি টাকা পেলো হকি ফেডারেশন

ফিলিস্তিনের সমস্যা সমাধানে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান

ফিলিস্তিনের সমস্যা সমাধানে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান

সীমিত আকারেই চলবে পুঁজিবাজারে লেনদেন

সীমিত আকারেই চলবে পুঁজিবাজারে লেনদেন

‘টিকা উৎপাদনের অনুমতি দেওয়া হয়নি’

‘টিকা উৎপাদনের অনুমতি দেওয়া হয়নি’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কাপাসিয়ায় অন্তঃসত্ত্বা নারী পুলিশের আত্মহত্যা

কাপাসিয়ায় অন্তঃসত্ত্বা নারী পুলিশের আত্মহত্যা

বিনোদন স্পট বন্ধ, তাই খোলা মাঠ বা নদীর ধারে

বিনোদন স্পট বন্ধ, তাই খোলা মাঠ বা নদীর ধারে

ইবাদত করে দিন কাটে সেই ঐশীর

ইবাদত করে দিন কাটে সেই ঐশীর

যেভাবে ঈদ কাটালেন, যা খেলেন বন্দিরা

কাশিমপুর কারাগারে প্রায় ৫০ হেফাজত নেতাযেভাবে ঈদ কাটালেন, যা খেলেন বন্দিরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

কাপড় ইস্ত্রি করতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

কাপড় ইস্ত্রি করতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী ও সতীন পলাতক

গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী ও সতীন পলাতক

মহাসড়কে বাস আছে, যাত্রী নেই!

মহাসড়কে বাস আছে, যাত্রী নেই!

© 2021 Bangla Tribune