X
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ২৯ এপ্রিল ২০২১, ১৫:১০

সম্প্রতি বেশ কিছু গ্রেফতারের সমালোচনার জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘কোনও নিরীহ হেফাজত নেতা বা বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। গ্রেফতার করা হচ্ছে অপরাধীদের। আলেম-ওলামাদের নয়, যারা আগুন সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) চট্টগ্রাম সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভিডিও দেখে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা অপরাধীদের গ্রেফতার করেছে। এখানে কল্পকাহিনি তৈরির কোনও সুযোগ নেই। ঢাকা, হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্য দিবালোকে নারকীয় তাণ্ডব চালানো হয়েছে, তারপরও সন্ত্রাসীদের বাঁচাতে বিএনপি বক্তৃতা বিবৃতির মাধ্যমে মনগড়া কল্পকাহিনি তৈরির অপপ্রয়াস চালাচ্ছে।’

১৫ আগস্ট, ৩ নভেম্বর, তথাকথিত ৭ নভেম্বর এবং ২১ আগস্ট ঘটিয়ে চক্রান্তের পথে ক্ষমতায় যাওয়ার দিন শেষ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ক্ষমতায় যেতে হলে নির্বাচনের বিকল্প নেই। তাই আগামী নির্বাচন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’

বিকল্প দেশ থেকে ভ্যাকসিন সংগ্রহের আলোচনা চলছে

করোনার ভ্যাকসিন সংগ্রহের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তাঁর দক্ষ ও মানবিক নেতৃত্বে প্রথম ডোজের মতো দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিনও বাংলাদেশ সময় মতো সংগ্রহ করবে ইনশাআল্লাহ।’ তিনি বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে ভ্যাকসিন আনার বিষয়ে চুক্তি ছিল। তারা এখন নিজেরা সংকটে পড়ায় ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে পারছে না। তাই বিকল্প দেশ থেকে ভ্যাকসিন সংগ্রহের চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে চীন-রাশিয়াকে ভ্যাকসিন সরবরাহের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও ভ্যাকসিন ইস্যুতে আলোচনা চলছে।’

সেতুমন্ত্রী জানান, ভ্যাকসিন সংগ্রহে সরকারের সদিচ্ছা ও আন্তরিকতার কোনও ঘাটতি নেই। তিনি বলেন, ‘যারা ভ্যাকসিন নিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতপক্ষে তাদের মনের কথা হচ্ছে বাংলাদেশ যেন ভ্যাকসিন না পায়। তারা দেশ ও জনগণের স্বার্থের পরিপন্থী বক্তব্য এবং কাজে সিদ্ধহস্ত, যা ইতোমধ্যে প্রমাণিত।’

শেখ হাসিনার শেকড় এ দেশের মাটির গভীরে

শেখ হাসিনা সরকারের শেকড় এ দেশের মাটির অনেক গভীরে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এ দেশে সরকারের জনভিত্তি ঠিকই আছে, তবে গত একযুগ ধরে বিএনপির নানান আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থতার মধ্য দিয়ে জনগণ প্রমাণ করে দিয়েছে তারা প্রকৃতপক্ষে জনবিচ্ছিন্ন।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতির শেকড় বাংলাদেশের মাটির গভীরে নয়, অন্য কোথাও।’

করোনার এ সংকটকালে বিশ্বের সমৃদ্ধ দেশগুলোও যখন সংকট মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে, তখন ভ্যাকসিন, আইসিইউ, অক্সিজেন ইত্যাদি নিয়ে সংকট তৈরি না করে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধির প্রতি অধিকতর মনোযোগী হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন নিলে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়; তাই বলে মাস্ক ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে না—এসব কথা যারা ভাবেন, তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। তাই আসুন, দলমত নির্বিশেষে সংক্রমণ রোধে সর্বোচ্চ মনোযোগী হই। ঘরে ঘরে সমালোচনার পরিবর্তে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী এখন থেকে দুটি করে মাস্ক পরি।’

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়ক চার লেনে উন্নীত করতে সংশ্লিষ্টদের যত দ্রুত সম্ভব কাজ শুরু করারও আহ্বান জানান। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামের সড়কগুলোতেও গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশনা দেন।

মন্ত্রী বিআরটিসির বহরের গাড়িগুলোর যথাযথ মেরামতের কাজ করতেও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। বিআরটিএ’কে দালালের চক্র থেকে রক্ষা করতে ওবায়দুল কাদের আবারও কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘তা না হলে বিআরটিএ জনগণের যথাযথ সেবা দিতে পারবে না।’

 

/এমএইচবি/আইএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: হাতে তৈরি পণ্য রফতানিতে মিলবে নগদ সহায়তা

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: হাতে তৈরি পণ্য রফতানিতে মিলবে নগদ সহায়তা

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

বিমা খাতের গ্রাহকদের জন্য সরকারের টার্গেট নির্ধারণ

বিমা খাতের গ্রাহকদের জন্য সরকারের টার্গেট নির্ধারণ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ৮৪ হাজার শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ৮৪ হাজার শেষ

সর্বশেষ

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আজ

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আজ

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে নক আউট পর্বে নেদারল্যান্ডস

অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে নক আউট পর্বে নেদারল্যান্ডস

নীল জল থেকে উঠে জড়ালেন অন্তর্জালে!

নীল জল থেকে উঠে জড়ালেন অন্তর্জালে!

ব্রাজিলের অলিম্পিক দলে নেই নেইমার!

ব্রাজিলের অলিম্পিক দলে নেই নেইমার!

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জয়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মমতা

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জয়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মমতা

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

প্রথম ব্যাচের তৃতীয় লিঙ্গের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিলো ফুডপ্যান্ডা

প্রথম ব্যাচের তৃতীয় লিঙ্গের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিলো ফুডপ্যান্ডা

সিলেটের নতুন কারাগারে প্রথম ফাঁসি কার্যকর

সিলেটের নতুন কারাগারে প্রথম ফাঁসি কার্যকর

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

মাঠে নেমেই বেলজিয়ামকে বদলে দিলেন ডি ব্রুইনে

মাঠে নেমেই বেলজিয়ামকে বদলে দিলেন ডি ব্রুইনে

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ৮৪ হাজার শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ৮৪ হাজার শেষ

গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করছে: তথ্যমন্ত্রী

গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করছে: তথ্যমন্ত্রী

ভূমির অবক্ষয় শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে কাজ করছে সরকার: পরিবেশমন্ত্রী

ভূমির অবক্ষয় শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে কাজ করছে সরকার: পরিবেশমন্ত্রী

বাংলাদেশ এখন স্ট্র্যাটেজিক সম্পর্ক চায়

বাংলাদেশ এখন স্ট্র্যাটেজিক সম্পর্ক চায়

টিকা সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: চীনা রাষ্ট্রদূত

টিকা সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: চীনা রাষ্ট্রদূত

দুষ্কৃতিকারীদের রেহাই নেই: বঙ্গবন্ধু

দুষ্কৃতিকারীদের রেহাই নেই: বঙ্গবন্ধু

১০ নম্বর প্রজ্ঞাপন জারি, এরপরও যা বন্ধ

১০ নম্বর প্রজ্ঞাপন জারি, এরপরও যা বন্ধ

দেশে আন্তর্জাতিক মানের ভ্যাকসিন ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করবে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

দেশে আন্তর্জাতিক মানের ভ্যাকসিন ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করবে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

© 2021 Bangla Tribune