X
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

খরা আর পোকার আক্রমণে ঝুঁকিতে পাট চাষ

আপডেট : ০৫ মে ২০২১, ০৯:৫৭

একদিকে প্রখর খরা অন্যদিকে পোকার আক্রমণ। ফলে ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে ফরিদপুরের পাট চাষিরা। স্যালো মেশিন আর মটরের সাহায্যে সেচে দিয়ে অনেক কৃষক পাট আবাদ করলেও হঠাৎ অনেক স্থানে পানিও ঠিক মতো উঠছে না। আবার কিছু কিছু এলাকায় বড় হওয়া পাট ক্ষেতে দেখা দিয়েছে ঘোড়া পোকা, বিছা পোকার আক্রমণ। পোকা পাট পাতা খেয়ে ফেলছে। বৃষ্টি ও সেচের অভাবে পাট ক্ষেতের মাটি ফেটে চৌরির হয়ে যাচ্ছে। অনেক জায়গায় যেখানে সেচ ব্যবস্থা নেই একমাত্র বৃষ্টির পানির ওপর নির্ভরশীল এমন জমিতে এখনও পাট বুনতে পারেননি কৃষক। সব মিলিয়ে সোনালী আঁশ খ্যাত পাটের আবাদ ফরিদপুরে এবার অনেকটাই ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। 

জানা গেছে, দেশের মধ্যে সিংহভাগ ও ভালো মানের পাটের আবাদ হয় একমাত্র ফরিদপুর জেলায়।মাটি,পানি,আবহাওয়া সবকিছুতেই পাট আবাদের জন্যও সেরা ফরিদপুর অঞ্চল। গত বছর ফরিদপুরে প্রায় ৮৫ হাজার হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ হয়েছিল। এ বছর আরও বেশি জমিতে পাটের আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পাট ক্ষেত

বোয়ালমারীর টোংরাইল গ্রামের পাটচাষি মহানন্দ বিশ্বাস, কালি কুমার বিশ্বাস, জয়দেব বিশ্বাস জানান, শ্যালো মেশিনে সেচ দিয়ে পাট বপন করেছিলাম, কয়েক দফা সেচ দেওয়া হয়েছে, বৃষ্টির জল না হলে পাট ভালো হয় না। এখন যে খরা তাতে সেচ দিয়েও কুলানো যায় না, তাই চিন্তায় আছি এবার পাট চাষের কী অবস্থা হয়।

সালথা এলাকার মজিবর, সিদ্দিক মাতুব্বর, মান্নান মাতুব্বর জানান, আমাদের এলাকার অনেক কৃষকের পাট বেশ বড় হয়ে উঠেছে। প্রখর রোদ্দুর আর পোকার আক্রমণে পাটের আবাদ নিয়ে বেশ চিন্তায় আছি।

মধুখালী উপজেলার কামারখালী-আড়পাড়া এলাকার চাষিরা জানান, বৃষ্টির দেখা নেই, প্রখর রোদে পুড়ছে বসতি, মাটি ফেটে চৌচির। ফলে পাটের আবাদ নিয়ে সংশয়ে আছি। তবে এখনও যদি বৃষ্টি হয় তাহলে অনেক পাট খেত রক্ষা পাবে।

ক্ষতিগ্রস্ত পাট ক্ষেত

ফরিদপুর পাট গবেষণা ইনস্টিটিউটের কৃষিবিদ রণজিৎ কুমার ঘোষ বলেন, প্রচণ্ড এই তাপদাহ পাটের জন্য ক্ষতিকর। এতে পোকার আক্রমণ দেখা দিচ্ছে। মাটি ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে। পোকারা পাটের কচি পাতা ও ডগা কেটে দিচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে করণীয় হিসেবে তিনি বলেন, পোকাগুলো দিনে মাটির নিচে লুকিয়ে থাকে। সন্ধ্যায় বেরিয়ে আসে। নিড়ানি দিলে উপকার মিলবে। তাছাড়া কয়েক দফা সেচ দিলে কিছুটা পরিত্রাণ পাওয়া যাবে।

ক্ষতিগ্রস্ত পাট ক্ষেত

জেলার সালথা, নগরকান্দা, বোয়ালমারী, মধুখালী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কয়েকটি মাঠে গিয়ে দেখা গেছে, চাষিরা ক্ষেতে যত্ন নিচ্ছেন। কোথাও কোথাও মাটি ফেটে গেছে। কেউ সেচ দিচ্ছেন। কেউ অপেক্ষার প্রহর গুনছে বৃষ্টির জন্য। এসব এলাকার পাট চাষিরা তাদের দুশ্চিন্তা কথা জানিয়েছেন।

ফরিদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক ড. হযরত আলী বলেন, চলতি মৌসুমে ফরিদপুরের ৯ উপজেলায় ৮৬ হাজার ২২০ হেক্টর জমিতে পাটে আবাদ হচ্ছে। তার মধ্যে লক্ষ্যমাত্রার ৯০ শতাংশ পাট চাষ হয়েছে। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে বোরো ধান কাটা হয়ে গেলে বাকিটায় শুরু হবে। বৃষ্টিতে তো মানুষের হাত নেই,অপেক্ষা করা ছাড়া কিছুই করার থাকে না, অনেকেই সাধ্য মতো সেচ দিচ্ছেন আবার অনেক জায়গায় সেচের ব্যবস্থা নেই তারা সমস্যায় পড়েছেন।

 

/এসটি/

সম্পর্কিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সাজোয়া যানে হামলাকারী হেফাজত কর্মী গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সাজোয়া যানে হামলাকারী হেফাজত কর্মী গ্রেফতার

শিশু ও বয়স্কদের নিয়ে শপিংমল ও বাজারে না যেতে গণবিজ্ঞপ্তি

শিশু ও বয়স্কদের নিয়ে শপিংমল ও বাজারে না যেতে গণবিজ্ঞপ্তি

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

ধান চাষে দেশে নতুন কৃষি বিপ্লব ঘটবে: কৃষিমন্ত্রী

ধান চাষে দেশে নতুন কৃষি বিপ্লব ঘটবে: কৃষিমন্ত্রী

বন্ধের নির্দেশনার মধ্যেও চলছে ৩ ফেরি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটবন্ধের নির্দেশনার মধ্যেও চলছে ৩ ফেরি

পাটুরিয়ায় পারের অপেক্ষা

পাটুরিয়ায় পারের অপেক্ষা

ফেরি বন্ধ, তবু উপচে পড়া ভিড়  

ফেরি বন্ধ, তবু উপচে পড়া ভিড়  

যাত্রী পরিবহনের আড়ালে ফেনসিডিল পাচার

যাত্রী পরিবহনের আড়ালে ফেনসিডিল পাচার

ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি

ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি

'আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যার রায় দ্রুত কার্যকরের উদ্যোগ নেওয়া হবে'

'আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যার রায় দ্রুত কার্যকরের উদ্যোগ নেওয়া হবে'

হেফাজতের তাণ্ডবে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হেফাজতের তাণ্ডবে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নারায়ণগঞ্জে অনলাইন জুয়ার ২ এজেন্ট গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জে অনলাইন জুয়ার ২ এজেন্ট গ্রেফতার

সর্বশেষ

দেড় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রেলের কর্মকর্তা আটক

দেড় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রেলের কর্মকর্তা আটক

বাবা হওয়ার আগে তোমায় বুঝিনি মা...

মা দিবসে তাদের গানবাবা হওয়ার আগে তোমায় বুঝিনি মা...

মাকে মনে পড়ে

মাকে মনে পড়ে

ম্যানসিটিকে শিরোপা উৎসব করতে দিলো না চেলসি

ম্যানসিটিকে শিরোপা উৎসব করতে দিলো না চেলসি

মা দিবসে নতুন স্টিকার এনেছে হোয়াটসঅ্যাপ

মা দিবসে নতুন স্টিকার এনেছে হোয়াটসঅ্যাপ

ভারত বাঁচাতে ওরাও মরিয়া

ভারত বাঁচাতে ওরাও মরিয়া

পূর্ব লন্ডনে লুৎফুরের ‘ইয়েস ক্যাম্পেইন’র বিজয়

পূর্ব লন্ডনে লুৎফুরের ‘ইয়েস ক্যাম্পেইন’র বিজয়

ইফতারিতে চেতনানাশক খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

ইফতারিতে চেতনানাশক খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

অ্যাম্বুলেন্সে রোগী সেজে ফেন্সিডিল পাচার

অ্যাম্বুলেন্সে রোগী সেজে ফেন্সিডিল পাচার

ছাত্রদের মুক্তি দিতে প্রধান বিচারপতির কাছে চিঠি

ছাত্রদের মুক্তি দিতে প্রধান বিচারপতির কাছে চিঠি

কোয়ালার লেজ

কোয়ালার লেজ

তেত্রিশ মামলায় ৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকার অধিক জরিমানা

তেত্রিশ মামলায় ৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকার অধিক জরিমানা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সাজোয়া যানে হামলাকারী হেফাজত কর্মী গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের সাজোয়া যানে হামলাকারী হেফাজত কর্মী গ্রেফতার

শিশু ও বয়স্কদের নিয়ে শপিংমল ও বাজারে না যেতে গণবিজ্ঞপ্তি

শিশু ও বয়স্কদের নিয়ে শপিংমল ও বাজারে না যেতে গণবিজ্ঞপ্তি

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

ধান চাষে দেশে নতুন কৃষি বিপ্লব ঘটবে: কৃষিমন্ত্রী

ধান চাষে দেশে নতুন কৃষি বিপ্লব ঘটবে: কৃষিমন্ত্রী

বন্ধের নির্দেশনার মধ্যেও চলছে ৩ ফেরি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটবন্ধের নির্দেশনার মধ্যেও চলছে ৩ ফেরি

পাটুরিয়ায় পারের অপেক্ষা

পাটুরিয়ায় পারের অপেক্ষা

ফেরি বন্ধ, তবু উপচে পড়া ভিড়  

ফেরি বন্ধ, তবু উপচে পড়া ভিড়  

ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি

ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবি

হেফাজতের তাণ্ডবে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হেফাজতের তাণ্ডবে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নারায়ণগঞ্জে অনলাইন জুয়ার ২ এজেন্ট গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জে অনলাইন জুয়ার ২ এজেন্ট গ্রেফতার

© 2021 Bangla Tribune