X
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

পরিদর্শককে পিটিয়ে সার্জেন্ট ও টিএসআই ক্লোজড

আপডেট : ০৬ মে ২০২১, ০৯:৫৫

বরিশাল জেলা ট্রাফিকের এক পরিদর্শককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। বুধবার সার্জেন্ট মো. আসাদ ও টিএসআই আইউব আলীকে ক্লোজের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ সরদার।

লাঞ্ছিত পরিদর্শক হচ্ছেন মো. ফিরোজ। গত ৩০ এপ্রিল সকালে এ ঘটনার পর তাকে বরিশাল পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

জেলা ট্রাফিক পুলিশের একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, সার্জেন্ট মো. আসাদ ও টিএসআই আইউব আলী বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কের বাকেরগঞ্জ উপজেলার ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় দায়িত্ব পালন করতেন। বোয়ালিয়া দায়িত্বপালন করতেন সার্জেন্ট মো. সুজন ও টিএসআই মো. জলিল। ডিউটির স্পট নিয়ে গত ২৯ এপ্রিল ওই দুই গ্রুপের মধ্যে ঝামেলা হয়। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে খুব ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ডিউটিতে থেকে যানবাহন থেকে চাঁদাবাজি করা।

বিষয়টি ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মো. ফিরোজ জানতে পেরে ঘটনার দিন সকালে ডিউটি স্পটে গিয়ে তাদের চার জনের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর নির্ধারিত সময় ছাড়া ডিউটিতে না আসতে এবং করোনাকালীন সময় যানবাহন থেকে চাঁদাবাজি না করার নির্দেশ দেন।

এ নিয়ে সার্জেন্ট আসাদ ও টিএসআই আইউবের সঙ্গে পরিদর্শকের বাকবিতণ্ডা হয়। এর এক পর্যায়ে অভিযুক্তরা ট্রাফিক কর্মকর্তা ফিরোজকে ধাক্কা দেন এবং তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এতে পরিদর্শক ফিরোজ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত বরিশাল পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ সরদার বলেন, সার্জেন্ট মো. আসাদ ও পিএসআই আইউব আলীর বিরুদ্ধে পরিদর্শক ফিরোজকে ধাক্কা দেওয়াসহ বিভিন্নভাবে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়ায় তাদের পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। এরপর তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

/এফএস/

সম্পর্কিত

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

মায়ের ওপর অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

মায়ের ওপর অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

সিরিয়াফেরত জঙ্গি শাখাওয়াত ফের ৩ দিনের রিমান্ডে

সিরিয়াফেরত জঙ্গি শাখাওয়াত ফের ৩ দিনের রিমান্ডে

ওষুধ কেনার টাকা নেই, ট্রলি ভাড়া দেবো কীভাবে?

ওষুধ কেনার টাকা নেই, ট্রলি ভাড়া দেবো কীভাবে?

রোহিঙ্গা পরিবারের জাতীয়তা সনদ তৈরি, ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা পরিবারের জাতীয়তা সনদ তৈরি, ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নারীপাচার চক্রের আকবর রিমান্ড শেষে কারাগারে

নারীপাচার চক্রের আকবর রিমান্ড শেষে কারাগারে

মোহাম্মদপুরে দিনে-দুপুরে যুবককে কুপিয়ে জখম

মোহাম্মদপুরে দিনে-দুপুরে যুবককে কুপিয়ে জখম

নাসির উদ্দিনের রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী

নাসির উদ্দিনের রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী

আমতলী পৌর শহরে ১৪৪ ধারা

আমতলী পৌর শহরে ১৪৪ ধারা

আনসার আল ইসলামের গ্রেফতার ৪ সদস্য রিমান্ডে

আনসার আল ইসলামের গ্রেফতার ৪ সদস্য রিমান্ডে

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

সর্বশেষ

গাজায় আবারও ইসরায়েলি বিমান হামলা

গাজায় আবারও ইসরায়েলি বিমান হামলা

মিয়ানমারের কাছে সামরিক প্রযুক্তি বিক্রি করছে ভারত

মিয়ানমারের কাছে সামরিক প্রযুক্তি বিক্রি করছে ভারত

সংক্রমণ ঠেকাতে সীমান্ত পাহারায় ভুটানের রাজা

সংক্রমণ ঠেকাতে সীমান্ত পাহারায় ভুটানের রাজা

রোনালদোর এক কথায় কোকা-কোলার সর্বনাশ!

রোনালদোর এক কথায় কোকা-কোলার সর্বনাশ!

আরও ২৭০ কোটি ডলার দান করলেন ম্যাকেঞ্জি

আরও ২৭০ কোটি ডলার দান করলেন ম্যাকেঞ্জি

জার্মানির আত্মঘাতী গোলে ফ্রান্সের উৎসব

জার্মানির আত্মঘাতী গোলে ফ্রান্সের উৎসব

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতাদের লঙ্কাকাণ্ড

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আইনপ্রণেতাদের লঙ্কাকাণ্ড

ওমানের কাছেও হারলো বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ বাছাইওমানের কাছেও হারলো বাংলাদেশ

করোনায় রক্ত জমাটের কারণ জানালেন আইরিশ বিজ্ঞানীরা

করোনায় রক্ত জমাটের কারণ জানালেন আইরিশ বিজ্ঞানীরা

রোনালদোর রেকর্ডময় রাতে উজ্জ্বল পর্তুগাল

রোনালদোর রেকর্ডময় রাতে উজ্জ্বল পর্তুগাল

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

আমি সব সময় প্রস্তুত: জেনেভায় পৌঁছে বাইডেন

আমি সব সময় প্রস্তুত: জেনেভায় পৌঁছে বাইডেন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ২

সিরিয়াফেরত জঙ্গি শাখাওয়াত ফের ৩ দিনের রিমান্ডে

সিরিয়াফেরত জঙ্গি শাখাওয়াত ফের ৩ দিনের রিমান্ডে

ওষুধ কেনার টাকা নেই, ট্রলি ভাড়া দেবো কীভাবে?

ওষুধ কেনার টাকা নেই, ট্রলি ভাড়া দেবো কীভাবে?

রোহিঙ্গা পরিবারের জাতীয়তা সনদ তৈরি, ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা পরিবারের জাতীয়তা সনদ তৈরি, ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আমতলী পৌর শহরে ১৪৪ ধারা

আমতলী পৌর শহরে ১৪৪ ধারা

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

গৃহবধূকে অপহরণ করে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা তরুণীর পরিচয়পত্র তৈরি, সাবেক কাউন্সিলরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নাসির মাহমুদসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে পরীমণির মামলা

নাসির মাহমুদসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে পরীমণির মামলা

পাহাড়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে গ্রামপ্রধান নিহত

পাহাড়ে দুর্বৃত্তের গুলিতে গ্রামপ্রধান নিহত

© 2021 Bangla Tribune