X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

চিকিৎসক ছাড়া চলছে দুপচাঁচিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স!

আপডেট : ০৭ মে ২০২১, ২১:৪৮

মেডিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট ও ওয়ার্ডবয় দিয়ে চলছে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা সেবা। অভিযোগ রয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা থাকলেও চিকিৎসকরা এলাকায় থাকেন না। তারা বেশিরভাগ সময়েই প্রাইভেট প্র্যাকটিস নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। অভিযোগ উঠেছে, শুক্রবার (৭ মে) সকালে চিকিৎসক না থাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ও বিষপানে অসুস্থ দু’জনের চিকিৎসা সেবা পাননি ও তাদের মৃত্যু হয়। বিষয়টি ‘পুলিশ কেস’ হলেও এ বিষয়ে স্থানীয় থানায় অবহিত না করেই স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এসব নিয়ে ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ও সাধারণ জনগণের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইচএফপিও) ডা. আবদুল কুদ্দুস মন্ডল দাবি করেন, চিকিৎসকদের উপস্থিতিতেই দুই জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি থানায় অবহিত করা হয়েছে। তাদের নিয়ে প্রভাবশালী কোনও মহল ষড়যন্ত্র করছে।

তবে দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী বলেন, দুটি অপমৃত্যুর ঘটনা তাদের জানানো হয়নি।

নাম ও পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং স্থানীয়রা জানান, এখানে দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা ব্যবস্থার বেহাল অবস্থা চলছে। ইউএইচএফপিও ডা. আবদুল কুদ্দুস মন্ডলসহ অধিকাংশ চিকিৎসক ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করেন না। তারা ব্যক্তিগত ও অন্যের ক্লিনিকে প্র্যাকটিস নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। ডা. আবদুল কুদ্দুস মন্ডলের বিরুদ্ধে বগুড়া শহরে বসবাস, সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে বাইরের ক্লিনিকে রোগী দেখা, করোনা আক্রান্ত হয়েও চিকিৎসা দেওয়াসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। এসব নিয়ে অভিযোগ হওয়ায় দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয় থেকে তদন্ত চলছে।

স্থানীয়রা আরও অভিযোগ করেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসকরা অন্যত্র অবস্থান করেন। সপ্তাহে এক থেকে দু’দিন এসে রোগী দেখেন। সঠিক সময়ে কেউ আসেন না। একজন নারী চিকিৎসকের পোস্টিং থাকলেও তাকে সেবা দিতে দেখা যায়নি। গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করা হয়নি। এ অবহেলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আজও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। করোনাকালে প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকদের নিজ কর্মস্থল এলাকায় থাকার নির্দেশ দিলেও তা অমান্য করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের।

জানা যায়, শুক্রবার সকালে হাসপাতালে ডা. আশরাফুল ইসলামের দায়িত্ব ছিল। ওইসময় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হামিদ মিয়া নামে এক ব্যক্তি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এছাড়া বিষপানে অসুস্থ জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার সোনাইমাগুড়া গ্রামে মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে আবদুল গফুরকে (৫০) সকাল পৌণে ১০টার দিকে হাসপাতালে আনা হয়। তবে সে সময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনও এমবিবিএস চিকিৎসক ছিলেন না। মেডিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট অরবিন্দ ও ওয়ার্ডবয় ফজলুল হক ওই দুই রোগীকে চিকিৎসা দেন। ওই সময় গুরুতর ওই দুই রোগীর মৃত্যু হয়। পরে কর্মস্থলে আসেন ডা. আশরাফুল ইসলাম। এ মৃত্যুর ঘটনা ‘পুলিশ কেস’ হলেও স্থানীয় থানায় অবহিত করা হয়নি। পুলিশকে না জানিয়েই লাশ দু’টি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শুক্রবার বিকাল ৩.৫০ মিনিটে দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুটি অপমৃত্যুর ঘটনা তাদের অবহিত করা হয়নি।

এ প্রসঙ্গে কথা বলতে চাইলে ডা. আশরাফুল ইসলাম বলেন, কোনও কিছু জানতে চাইলে তথ্য অধিকার আইনের ফরম পূরণ করে আবেদন করতে হবে।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া ইউএইচএফপিও ডা. আবদুল কুদ্দুস মন্ডল জানান, নাইট ডিউটি শেষে ডা. সৈকত শুক্রবার সকাল ৯.২০ মিনিটে চলে যান। ৯.১৮ মিনিটে ডা. আশরাফুল ইসলাম দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন। তাই চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে দুই রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ সঠিক নয়। সব চিকিৎসক সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেন। অনেকে কোয়ার্টারে থাকেন। তিনিও নিয়মের মধ্যেই তার বাসভবনে থাকেন।

ডা. আবদুল কুদ্দুস মন্ডল দাবি করেন, প্রভাবশালী মহল তাদের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতেই চক্রান্ত ও মিথ্যাচার করছেন। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দু’জন রোগী মারা যাওয়ার পর ডা. আশরাাফুল ইসলাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। দায়িত্ব অবহেলার ঘটনাটিকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

মান্দায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ২ জনের

মান্দায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ২ জনের

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

মা-বাবার ঝগড়ায় দায়ের কোপে সন্তানের মৃত্যু

মা-বাবার ঝগড়ায় দায়ের কোপে সন্তানের মৃত্যু

দোহার ও নবাবগঞ্জের সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ থাকবে

দোহার ও নবাবগঞ্জের সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ থাকবে

‘সীমান্তবর্তী দেশ থেকে এলে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন আবশ্যক’

‘সীমান্তবর্তী দেশ থেকে এলে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন আবশ্যক’

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ৮১৬ ডোজ

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ৮১৬ ডোজ

‘ঢাকার পরিস্থিতি নাজুক হয়ে যেতে পারে’

‘ঢাকার পরিস্থিতি নাজুক হয়ে যেতে পারে’

সর্বশেষ

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

ইউএনও থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

ইউএনও থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কার দুই ব্যাটসম্যান মারতে পারলেন বাউন্ডারি!

টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কার দুই ব্যাটসম্যান মারতে পারলেন বাউন্ডারি!

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

প্রযুক্তি পণ্যের সংকটকালে নকল পণ্যে বাজার সয়লাব

প্রযুক্তি পণ্যের সংকটকালে নকল পণ্যে বাজার সয়লাব

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

মান্দায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ২ জনের

মান্দায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ২ জনের

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

মা-বাবার ঝগড়ায় দায়ের কোপে সন্তানের মৃত্যু

মা-বাবার ঝগড়ায় দায়ের কোপে সন্তানের মৃত্যু

৪১৭ টাকা মাসিক আয়ের এমপির সম্পদের হিসাব দিতে লাগলো ৩ মাস

৪১৭ টাকা মাসিক আয়ের এমপির সম্পদের হিসাব দিতে লাগলো ৩ মাস

তৃতীয় দফায় রাজশাহীতে আরও এক সপ্তাহ লকডাউন

তৃতীয় দফায় রাজশাহীতে আরও এক সপ্তাহ লকডাউন

কলেজ মাঠে পশুর হাটের প্রস্তুতি, বন্ধ করলেন ইউএনও

কলেজ মাঠে পশুর হাটের প্রস্তুতি, বন্ধ করলেন ইউএনও

অনির্দিষ্টকালের অবস্থান কর্মসূচিতে ‘অবৈধ’ নিয়োগপ্রাপ্তরা

অনির্দিষ্টকালের অবস্থান কর্মসূচিতে ‘অবৈধ’ নিয়োগপ্রাপ্তরা

© 2021 Bangla Tribune