X
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

মাদক মামলায় হেলেনার ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭:৪৮

আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সদস্য পদ থেকে সম্প্রতি বহিষ্কৃত ‘বিতর্কিত’ নেতা হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় দায়ের করা মাদক দ্রব্য আইনের মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ।

রবিবার (১ আগস্ট) আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

শনিবার (৩১ জুলাই) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার পরিদর্শক (অপারেশন) শেখ শাহানুর রহমান এ আবেদন করেন। 

জানা গেছে, আসামি হেলেনা জাহাঙ্গীর বর্তমানে গুলশান থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় তিন দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হলে ওই দিন মাদকের মামলায় গ্রেফতার দেখানোসহ রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বলে।

এর আগে ৩০ জুলাই হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গুলশান থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালত তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই রাতে গুলশানের নিজ বাসা থেকে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। আটকের সময় তার বাসায় থেকে বিপুল পরিমাণ মদ ও ইয়াবা পাওয়া গেছে। এ ছাড়া ক্যাসিনো সরঞ্জাম, হরিণের চামড়াও পাওয়া গেছে তার বাসায়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়েছে। এ ছাড়া বিশেষ ক্ষমতা আইন, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনসহ চারটি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।



/এমএইচজে/এনএইচ/

সম্পর্কিত

কক্সবাজারে হোটেলে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে সাগর

কক্সবাজারে হোটেলে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে সাগর

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

কক্সবাজারে হোটেলে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে সাগর

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪১

কক্সবাজারের আমারী রিসোর্ট নামে একটি হোটেল থেকে উদ্ধার হওয়া নারীর লাশের রহস্য উন্মোচন করেছে র‌্যাব। র‌্যাব বলছে, পূর্ব পরিচয়ের জেরে কক্সবাজারের সেই হোটেলে ওই তরুণীকে নিয়ে যায় সাগর নামে ্েকে যুবক। হোটেলটিতে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে তারা ওঠে। পরবর্তীতে জোরপূর্বক ধর্ষণ ও হত্যা করে এই নারীকে। র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে এমনই তথ্য দিয়েছে গ্রেফতারকৃত সাগর নামের সেই যুবক।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কাওরান বাজারের র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান।

তিনি বলেন, কক্সবাজারের সেই হোটেলে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ওঠার পর সেই নারীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে গ্রেফতারকৃত সাগর। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয় ধস্তাধস্তি এক পর্যায়ে সাগর ভিকটিমের গলা চেপে ধরে দেয়ালে ধাক্কা দিলে ওই নারী মেঝেতে পড়ে যায়। আঘাতের কারণে মৃত্যু হয় তার। পরে সে হোটেল থেকে পালিয়ে যায়।

র‌্যাব-১০ এর একটি আভিধানিক দল রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকার সায়দাবাদ বাস স্ট্যান্ড এর টোল প্লাজার সামনে থেকে সাগর মিজি (২৪) নামের সেই যুবককে শনিবার গ্রেফতার করে। এসময় তার কাছে থাকা ভিকটিমের মোবাইলসহ তিনটি মোবাইল, নগদ ১৫ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

মাহফুজুর রহমান আরও বলেন, সাগর স্কুল-কলেজ পড়ুয়া মেয়েদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে। বিভিন্ন এলাকায় ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কৌশলে ধর্ষণ করতো সে। একাধিক নারীকে মিথ্যা প্রেমের ফাঁদে ফেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে বাধ্য করেছে বলেও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ সেপ্টেম্বর সকালে কক্সবাজারের কলাতলী এলাকার আমারই রিসোর্ট নামক হোটেলে একটি কক্ষ ভাড়া নেয় সাগর। ২০ সেপ্টেম্বর আসামির সাগর ওই তরুণীকে (২৬) নিয়ে  রুমে উঠে।  ২১ সেপ্টেম্বর সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে হোটেল কর্তৃপক্ষ রুমের ভেতর কোনও সাড়া শব্দ না পেলে কক্ষের দরজা ভেঙে মৃতদেহ দেখে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে।

/আরটি/এমআর/

সম্পর্কিত

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:২৬

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌। মানুষের জন্য কাজ করে তাদের হৃদয় ও মন জয় করা যায়। এটা টাকা দিয়ে কেনা যায় না। 

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রেঞ্জের আগস্ট মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে আইজিপি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, পুলিশ যত ভালো কাজ করুক না কেন একটি খারাপ কাজ সব অর্জনকে নষ্ট করে দেয়। সমাজ পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা ও অপরাধ পরিস্থিতিরও পরিবর্তন হয়। সর্বদা সমাজের পরিবর্তনশীল চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে পুলিশিং কার্যক্রম চালু রাখতে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি। 

জুনিয়রদের যোগ্য করে গড়ে তোলা সিনিয়রদের দায়িত্ব উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, জুনিয়রদের জন্য ভালো উদাহরণ তৈরি করতে হবে। ভালো কাজে তাদেরকে মোটিভেট করতে হবে। তাদেরকে সুপারভাইজ করতে হবে। চাকরিতে ‘প্যাশন’ আনতে হবে। প্রত্যেক পুলিশ সদস্যের সম্মান ও মর্যাদাবোধ থাকতে হবে। 

বিট পুলিশিং একটি কার্যকর পদ্ধতি জানিয়ে পুলিশ প্রধান বলেন, বঙ্গবন্ধু প্রতিটি ইউনিয়নে থানা করার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন মূলত বিট পুলিশিং সে লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা করেছিলেন; প্রতিটি গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি ইউনিয়নে অপরাধ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বিট পুলিশিং কার্যকর অবদান রাখতে পারে। 

আইজিপি আবারও দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন, কোনও পুলিশ সদস্য যদি অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে সেটা বন্ধ করতে হবে। পুলিশে কোনও অপরাধীর জায়গা নেই। আইজিপি ঢাকা রেঞ্জের বিভিন্ন ইনোভেশন কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি অন্যান্য ইউনিটেও এ ধরনের ইনোভেশনের চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। 

ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান আগস্ট মাসের সার্বিক অপরাধ পরিস্থিতি, অপরাধ ব্যবস্থাপনা, বেস্ট প্র্যাকটিসেস এবং ইনোভেশন কার্যক্রম সভায় উপস্থাপন করেন। মাদারীপুর জেলা পুলিশ আয়োজিত এ সভায় ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজিগণসহ রেঞ্জাধীন সকল জেলার পুলিশ সুপারগণ এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

/আরটি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০২

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলেই ডিএনসিসি এলাকার ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মালিবাগ এলাকায় এডিস মশা ও ডেঙ্গু মোকাবিলায় ফগিং ও লার্ভিসাইডিংসহ অন্যান্য কার্যক্রম পরিদর্শনকালে ডিএনসিসি মেয়র একথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, এডিস মশার বংশবিস্তার রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন ধরণের প্রায় ১ হাজার ৭০০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পত্র দেওয়া হচ্ছে। সুপারভাইজার এবং মশকনিধন কর্মীদের জন্য একটি নির্দেশিকাও তৈরি করা হয়েছে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, নিজেদের বাসাবাড়ি কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফুলের টব, অব্যবহৃত টায়ার, ডাবের খোসা, বিভিন্ন ধরনের খোলা প্যাকেট বা পাত্র, ছাদ কিংবা অন্য কিছুতে যাতে তিন দিনের বেশি পানি জমে না থাকে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সামনেই কিউলেক্স মশার চ্যালেঞ্জ আসছে, তাই সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩৫

উত্থাপিত ১০ দফা দাবি আদায় না হলে ৪৮ ঘণ্টা কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান, ট্যাংক-লরী, প্রাইম মুভার মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক জনসমাবেশে এ হুঁশিয়ারি দেন পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান।

পরিষদের দাবিগুলো হলো— ট্রাক চালক লিটন হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে; ড্রাইভিং লাইসেন্সের জটিলতা নিরসন করে লাইসেন্স প্রদান করতে হবে; পণ্য পরিবহনের সময় মালামাল চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই রোধে জরুরি কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে ও এর সঙ্গে যেই জড়িত থাকুক না কেন তাকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে; বর্ধিত আয়কর প্রত্যাহার করে করোনাকালে পূর্বের ন্যায় জরিমানা ব্যতীত গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদ করার সুযোগ দিতে হবে; সড়ক-মহাসড়কে কাগজপত্র চেকিং এর নামে পুলিশি হয়রানি, চাঁদাবাজি, মান্থলি বা মাসিক মাসোহারা বন্ধ করতে হবে এবং মালিক ও শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের নির্দেশিকা অনুযায়ী পরিচালন ব্যয় আদায় করার সুযোগ দিতে হবে।

দাবিগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে, বিতর্কিত ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি করার উদ্যোগ বাতিল করতে হবে; সড়ক-মহাসড়কের পাশে এবং প্রত্যেক জেলায় আধুনিক সুযোগ সম্বলিত ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণ করতে হবে; টার্মিনাল ব্যতিরেকে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনসহ সারাদেশের সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার সড়ক এবং মহাসড়কে অবৈধ চাঁদা বন্ধ করতে হবে ও দেশে সড়ক মহাসড়কগুলো শুধুমাত্র হাইওয়ে পুলিশের অধীনে তদারকির ব্যবস্থা করতে হবে। নির্দিষ্ট স্থানে কাগজপত্র চেকিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে।

তবে উপরোক্ত ১০ দফা দাবি আদায় না হলে আগামী ২৭ ও ২৮ সেপ্টেম্বর পণ্য পরিবহনে কর্মবিরতি পালন করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পরিষদের নেতৃবৃন্দরা।

এ সময় সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য সচিব তাজুল ইসলাম, ঢাকা জেলা ট্রাক ট্যাংক-লরী কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হাজী জয়নাল আবদীন, সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল জাব্বার প্রমুখ। 

/বিআই/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৬

গত ২৪ ঘণ্টায় (২৪-২৫ সেপ্টেম্বর) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২২১ জন। তাদের নিয়ে চলতি মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ছয় হাজার ৭৫৯ জন হাসপাতালে ভর্তি হলেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এ তথ্য জানিয়েছে।

কন্ট্রোল রুমের তথ্যানুযায়ী, একদিনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ২২১ জনের মধ্যে ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৬৪ জন আর ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫৭ জন।

দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এক হাজার ৯৯ জন ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৮৮০ জন আর অন্যান্য বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২১৯ জন।

চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ১৭ হাজার ১১৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৫ হাজার ৯৫৭ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। আর চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কন্ট্রোল রুম।

কন্ট্রোল রুম জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২২১ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রোগী ভর্তি হয়েছেন ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সীরা। এই বয়সের রোগী ভর্তি হয়েছেন ২৪ দশমিক আট শতাংশ। এরপর রয়েছে ১১ থেকে ২০ বছর বয়সীরা; ২৪ দশমিক এক শতাংশ, শূন্য থেকে ১০ বছর বয়সীরা রয়েছে ২২ দশমিক ছয় শতাংশ, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে রয়েছে ১২ দশমিক আট শতাংশ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে রয়েছেন পাঁচ দশমিক তিন শতাংশ, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে রয়েছেন চার দশমিক পাঁচ শতাংশ, ষাটোর্ধ রয়েছেন তিন দশমিক আট শতাংশ আর শূন্য থেকে এক বছর বয়সীদের হাসপাতালে ভর্তির হার দুই দশমিক তিন শতাংশ।

/জেএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

টানা দুই দিন করোনায় মৃত্যুহীন বরিশাল 

টানা দুই দিন করোনায় মৃত্যুহীন বরিশাল 

মাস বাকি আরও ৭ দিন, ডেঙ্গু রোগী ছাড়ালো সাড়ে ছয় হাজার 

মাস বাকি আরও ৭ দিন, ডেঙ্গু রোগী ছাড়ালো সাড়ে ছয় হাজার 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কক্সবাজারে হোটেলে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে সাগর

কক্সবাজারে হোটেলে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে সাগর

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

ট্রাংকে ভরে তরুণীর লাশ পাঠালেন ঢাকায়, ছয় বছর পর ধরা যুবক

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

কক্সবাজারে হোটেলে তরুণী ‘হত্যা’য় অভিযুক্ত ঢাকায় গ্রেফতার

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

‘এখনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার হচ্ছে’

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

আইস আসছে মিয়ানমার হয়ে, কারবারে বিদেশফেরত উচ্চ শিক্ষিতরা

আইস আসছে মিয়ানমার হয়ে, কারবারে বিদেশফেরত উচ্চ শিক্ষিতরা

সর্বশেষ

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

ইবি লেকের দুঃখগাথা

ইবি লেকের দুঃখগাথা

© 2021 Bangla Tribune