X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

রোহিঙ্গা সঙ্কট ব্যবস্থাপনায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ততা জরুরি

আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০২১, ১৮:১৭

রোহিঙ্গা সঙ্কট ব্যবস্থাপনায় কক্সবাজারের স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহ, বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদগুলোর কার্যকর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার সুপারিশ করেছে কক্সবাজারে কর্মরত ৫০টি স্থানীয় ও জাতীয় এনজিওর নেটওয়ার্ক কক্সবাজার সিএসও এনজিও ফোরাম (সিসিএনএফ)। বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) বিশ্ব মানবিকতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সেমিনারে এসব সুপারিশ করেন বক্তারা।

ভার্চুয়াল সভায় বক্তারা বলেছেন, দুর্যোগে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাই সবার আগে মানুষের পাশে দাঁড়ান। তাই কর্মসূচি প্রণয়নে স্থানীয় প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ততা জরুরি। স্থানীয়করণ ও স্থানীয় প্রতিষ্ঠান শীর্ষক এই সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন সংস্থাটির কো-চেয়ার এবং কোস্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরী এবং আরেকজন কো-চেয়ার এবং পালস’র নির্বাহী পরিচালক আবু মুর্শেদ চৌধুরী। এতে আরও বক্তৃতা করেন স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ ড. তোফায়েল আহমেদ, হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী, পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবসার, হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মরজিনা আক্তার, রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য হেলাল উদ্দিন, ইপসার নির্বাহী পরিচালক মো. আরিফুর রহমান, জাগো নারী সংস্থার প্রধান নির্বাহী শিউলি শর্মা। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কোস্ট ফাউন্ডেশনের মো. মজিবুল হক মনির এবং এতে স্থানীয় ও জাতীয় এনজিও ও গণমাধ্যম প্রতিনিধিগণ বক্তব্য রাখেন।

মজিবুল হক মনির বলেন, রোহিঙ্গারা কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়ার সময় স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে সাথে নিয়ে তাদের পাশে সবার আগে গিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। বিশেষ করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা। জনগণের সবচাইতে কাছে থাকেন বিধায় তারা জনগণের প্রয়োজনটা সবচাইতে ভাল বোঝেন।তাই রোহিঙ্গা সংকট ব্যবস্থাপনার সকল ক্ষেত্রে স্থানীয় সরকার, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অংশগ্রহণ জরুরি।

ড. তোফায়েল আহমেদ বলেন, যেকোনও দুর্যোগ বা মানবিক সংকটে ইউনিয়ন পরিষদ সবার আগে প্রত্যক্ষ শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারে, কিন্তু আমাদের ইউনিয়ন পরিষদগুলোর কাঠামোগত কিছু দুর্বলতা রয়ে গেছে। এই দুর্বলতা কাটাতে জাতীয় নীতি কাঠামোতে কিছু পরিবর্তন প্রয়োজন। নীতিগত সহায়তা পেলে ইউনিয়ন পরিষদ যেকোনও দুর্যোগে কার্যকর ও টেকসই ভূমিকা পালন করতে পারে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় উপজেলা পরিষদগুলোকে এসব ক্ষেত্রে আরও বেশি সম্পৃক্ত করতে হবে।

হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মরজিনা আক্তার বলেন, আমাদের এলাকায় কোনও কর্মসূচি গ্রহণের ক্ষেত্রে আমাদের মতামত নেওয়া হলে আমরা আরও বেশি সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে পারি। রাজাপলং ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য হেলাল উদ্দিন বলেন, স্থানীয়দের জন্য কী পরিমাণ বরাদ্দ আসছে, কী ধরনের প্রকল্প আসছে তার স্পষ্ট ধারণা আমরা পাই না। স্থানীয় এনজিগুলো আমাদেরকে তাদের কর্মসূচিতে সম্পৃক্ত করলেও, আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো সেভাবে আমাদের সম্পৃক্ত করছে না। পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নূরুল আবসার বলেন, কোনও কর্মসূচি গ্রহণ করার আগে স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে একটি চাহিদা যাচাই করে নেওয়া প্রয়োজন। হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, সবাই মিলে, সকলের সমন্বয়ে কাজ করলেই কেবল রোহিঙ্গা ব্যবস্থাপনা যথাযথ ও কার্যকর হতে পারে।

জাগো নারী সংস্থার শিউলি শর্মা বলেন, রোহিঙ্গারা ২০১৭ সালে কক্সবাজারে আসার পর স্থানীয় নারীরা রোহিঙ্গা গর্ভবর্তী ও প্রসূতি মায়েদের সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। তারা বেশ ত্যাগও স্বীকার করেন স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে। তারা তাদের সেই ভূমিকা, সেই স্বেচ্ছাসেবার কোনও স্বীকৃতি পাননি। তাদের স্বীকৃতি দেওয়া প্রয়োজন। মো. আরিফুর রহমান বলেন, ৯১ সালের ঘুর্ণিঝড়ের অভিজ্ঞতা থেকে দেখেছি কক্সবাজারে সকল দুর্যোগে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ সবার আগে মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। তাই স্থানীয়দের জন্য কোনও কর্মসূচি গ্রহণকালে তাদের পরামর্শ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আবু মোর্শেদ চৌধুরী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনসহ প্রাকৃতিক কারণে এমনিতেই কক্সবাজার একটি বিপদাপন্ন এলাকা। কিন্তু বর্তমান সরকারের কক্সবাজারের উপর বিশেষ নজর রয়েছে। বিশাল আশ্রয়ণ প্রকল্পসহ কক্সবাজারের উন্নয়নে অনেক প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এই উদ্যোগগুলোর সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করছে রোহিঙ্গা সংকটের কার্যকর ব্যবস্থাপনার ওপর। আর এক্ষেত্রে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় সরকারের সম্পৃক্ততা গুরুত্বপূর্ণ।

রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, রোহিঙ্গা ব্যবস্থাপনায় আসা মানবিক ও উন্নয়ন সহায়তার কার্যকর স্থানীয়করণ নিশ্চিত করতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে স্থানীয় পর্যায়ে এর জবাবদিহিতাও। অর্থ সহায়তার কার্যকর ব্যবহার ও সংকটের টেকসই সমাধানে স্থানীয় এনজিও-সুশীল সমাজের পাশাপাশি স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর ভূমিকা অনস্বীকার্য। তাই এ সম্পর্কিত সিদ্ধান্তগ্রহণ প্রক্রিয়া বিশেষ করে আইএসসিজি এবং আরআরআরসি’র বিভিন্ন সভায় ইউনিয়ন পরিষদের অংশগ্রহণের একটি ব্যবস্থা থাকতে হবে।

 

/জেইউ/এফএএন/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

কলকাতা প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’র উদ্বোধন ২৮ অক্টোবর

কলকাতা প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’র উদ্বোধন ২৮ অক্টোবর

বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন: গুতেরেস

বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন: গুতেরেস

বাড্ডার আগুন নিয়ন্ত্রণে

বাড্ডার আগুন নিয়ন্ত্রণে

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০০:০৯

রাজধানীর মিরপুর ও দক্ষিণখানে পৃথক ঘটনায় দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি)ভর্তি করা হয়েছে। এসব ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে সংশ্লিট থানার পুলিশ।

মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) পারুল খান জানিয়েছেন, মিরপুরের বড়বাগ এলাকায় শিশুটির একটি মা মেসে কাজ করেন। মাঝেমধ্যেই শিশুটিকে সেখানে নিয়ে যান।

গত ১৯ অক্টোবর শিশুটিকে নিয়ে কাজে যান। সেখানে পাশেই হোমিও ওষুধ বিক্রি করেন আব্দুল কাদের (৫৫) নামে এক ব্যক্তি। শিশুটি তাকে নানা বলে ঢাকতো। ওই দিন শিশুটি খেলা করছিল, তখন ওই হোমিও ওষুধ বিক্রেতা তাকে আদর করার নামে যৌন নির্যাতন করে। বিষয়টি তার মা প্রথমে বুঝতে পারেননি। পরে শিশুটির অসুস্থতা বোধ করলে তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে তার মাকে জানায়। পরে তার মা থানায় অভিযোগ করেন।

এসআই বলেন, ‘আমরা শারীরিক পরীক্ষা জন্য ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি)ভর্তি করেছি। অভিযুক্ত আব্দুল কাদেরকে (৫৫) গ্রেফতার করা হয়েছে।

অপর দিকে, দক্ষিণখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিজিয়া খাতুন জানিয়েছেন, শনিবার সন্ধ্যার দিকে বাড়ির মালিক মুক্তা বেগম ভাড়াটিয়া কিশোরী (১৫) কে বলেন, একই এলাকার প্রতিবেশী আলামিন (২৫) এর কাছ থেকে একশত টাকা নিয়ে আসো। পরে কিশোরী কিছুই বুঝতে পারেনি, সে পাশেই একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে যায়। সেখানে আলামিন তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টা করে, সে বাধা দিতে জোরাজুরি করায় প্রথমে মারধর করে, এক পর্যায় জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। সে সময়ে আলামিনের দুই সহযোগী গেইটে পাহারা দেয়। পরে কিশোরী নিজেই থানায় এসে মামলা করেন।

তিনি বলেন, আমরা অভিযুক্ত আলামিনকে গ্রেফতার করে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছি। আর ভিকটিম কে শারিরীক পরিক্ষার জন্য ঢামেক হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

/এআইবি/এআরআর/জেজে/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুটি পৃথক সালের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিষ্পত্তির নির্দেশ

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুটি পৃথক সালের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিষ্পত্তির নির্দেশ

পলাশীতে গাছ থেকে পড়ে রিকশাচালকের মৃত্যু

পলাশীতে গাছ থেকে পড়ে রিকশাচালকের মৃত্যু

যুবকের জিহ্বা কর্তন: তরুণীসহ তিন জনের জামিন

যুবকের জিহ্বা কর্তন: তরুণীসহ তিন জনের জামিন

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ২৩:৫০

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্রসহ তিন জন আহত হয়েছে। রবিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যার পরে রাজধানীর মিরপুর ও উত্তরা পশ্চিম থানা এলাকায় এসব ঘটনা ঘটেছে। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

আহতরা হচ্ছেন,  মিরপুর সরকারি বেঙ্গল মিডিয়াম উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী আজার উদ্দিন রিয়াদ (১৬) মিরপুরের নুরজাহান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র আল আমিন (১৫) এবং উত্তরা পূর্ব থানা এলাকায় আল আমিন (২০) নামে এক টিসার্ট বিক্রেতা।

সত্যতা নিশ্চিত করেন ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া। তিনি বলেন, আহত তিন জন ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিষয়গুলি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবহিত করা হয়েছে।

মিরপুরে রবিবার সন্ধ্যা ছয়টায় ক্রিকেট স্টেডিয়াম এর বিপরীত পাশে ন্যাশনাল বাংলা হাই স্কুলের পেছনে রাস্তায় দুইজনকে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় দুজনকে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

মিরপুর ২ নম্বরের স্থায়ী বাসিন্দা আহত রিয়াদ জানান, বাসার পাশেই কোচিং করতে গিয়েছিল। সেখানে পূর্ব পরিচিত রাহুলের চাচাতো ভাই বখাটে শরিফ (১৭) তার পথরোধ করে, উল্টাপাল্টা কথা বলে এক পর্যায়ে  পিঠে ছুরিকাঘাত করে‌। এলাকার ছোট ভাই আলামিন তাকে বাধা দিতে গেলে তাকেও ডান হাতে এবং পিঠে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

তবে আরেক জন জানিয়েছেন শরিফ মাদক সেবী। সে এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটিয়েছে।

অন্য দিকে, উত্তরা পূর্ব থানার জয়নাল মার্কেট এর সামনে ৬নং সেক্টর ১০নং রোডে কামাল হোসেন (২০) এক টি-শার্ট বিক্রেতা ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যা ৬টায় দিকে তার বন্ধু শুভ (২২) কামালের কাছ থেকে মোবাইল ফোন চাওয়াকে কেন্দ্র করে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে শুভ ছুরিকাঘাত করে কামালকে। তার পিঠে রক্তাক্ত জখম হয়েছে।

আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে তার অন্য বন্ধুরা।

/এআইবি/এআরআর/জেজে/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুটি পৃথক সালের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিষ্পত্তির নির্দেশ

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুটি পৃথক সালের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিষ্পত্তির নির্দেশ

পলাশীতে গাছ থেকে পড়ে রিকশাচালকের মৃত্যু

পলাশীতে গাছ থেকে পড়ে রিকশাচালকের মৃত্যু

যুবকের জিহ্বা কর্তন: তরুণীসহ তিন জনের জামিন

যুবকের জিহ্বা কর্তন: তরুণীসহ তিন জনের জামিন

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন প্রধান বিচারপতি

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫২

রাজারবাগ পীর ও দরবারের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসিকে তদন্ত করতে বলা হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের করা আবেদনের শুনানি থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের কার্য তালিকা অনুসারে মামলাটি শুনানির শুরুতে এ ঘটনা ঘটে।

আদালতে পীরদের আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী এম কে রহমান। রিটকারীদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির।

এদিন মামলাটির শুনানির আগে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আমাকে এ মামলা থেকে বাদ দিয়ে রাখেন। বেঞ্চের অপর জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ এ বিষয়ে আদেশ দেবেন।’

এরপর এই মামলার শুনানি হয়। শুনানি শেষে মামলাটির আদেশের জন্য সোমবার (২৫ অক্টোবর) দিন নির্ধারণ করেন আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতির সরে দাঁড়ানোর বিষয়ে জানতে চাইলে মামলার সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা জানান, প্রধান বিচারপতি চাইলে যেকোনও মামলা থেকেই নিজেকে সরিয়ে নিতে পারেন। মূলত মামলার বিষয়ে বাইরে থেকে কোনও হস্তক্ষেপ কিংবা ব্যক্তিগত কারণে মামলা থেকে বিচারপতিদের সরে দাঁড়ানোর নজির এর আগেও অনেক রয়েছে।

এর আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরিফের সব সম্পদের তথ্য খুঁজতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), তাদের জঙ্গি সম্পৃক্ততা আছে কিনা, তা তদন্ত করতে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) এবং উচ্চ আদালতে রিটকারী ৮ জনের বিরুদ্ধে করা হয়রানিমূলক মামলার বিষয়ে তদন্ত করতে সিআইডিকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব আদেশ দেন।

পরে ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন জানানো হয়েছিল। গত ১১ অক্টোবর চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত না করে আবেদনটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর দিল্লুরসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী ৮ ব্যক্তির পক্ষে অ্যাডভোকেট শিশির মনির হাইকোর্টে  রিটটি দায়ের করেন।

রিটকারীদের মধ্যে শিশু, নারী, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, মাদ্রাসার শিক্ষক ও ব্যবসায়ী রয়েছেন। তাদের প্রত্যেকে রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর ও তাদের মুরিদদের হয়রানিমূলক মামলার শিকার।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব ও আইজিপিসহ মোট ২০ জনকে বিবাদী করা হয়।

/বিআই/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ এর চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ এর চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত

২০ দিনে দুই হাজারেরও বেশি জেলে গ্রেফতার

২০ দিনে দুই হাজারেরও বেশি জেলে গ্রেফতার

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ এর চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:৩৭

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির উদ্যোগে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত ১০০ দিনব্যাপী দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন ভিত্তিক ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (২৪ অক্টোবর) বিকাল ৩টায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের অডিটোরিয়ামে এই লটিারি অনুষ্ঠিত হয়।

করোনা মহামারি উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত এ লটারি অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য  রাখেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ আয়োজনের সার্বিক বিষয়ের ওপরে উপস্থাপনা প্রদান করেন প্রিয় ডটডটকম-এর প্রধান নির্বাহী জাকারিয়া স্বপন।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন— তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ।

২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর থেকে ১০ মার্চ ২০২১ পর্যন্ত, ১০০ দিন ধরে চলা এই প্রতিযোগিতার ৬৭ লাখ ৩০ হাজার ৩৭৩টি সঠিক উত্তরের মধ্য থেকে কম্পিউটারাইজড লটারির মাধ্যমে অতিথিরা ১০০ জনকে চূড়ান্ত বিজয়ী হিসেবে নির্বাচন করেন। আশা করা যাচ্ছে যে, পরবর্তীতে সুবিধাজনক সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লটারিতে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করবেন।

অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন— জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির কার্যালয়ের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিশ্বিবিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সহযোগিতায় আয়োজিত এ লটারি অনুষ্ঠানে স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার ছিল তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বাস্তবায়ন সহযোগী হিসেবে ছিল প্রিয়ডটকম। এছাড়া এই আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল দারাজ বাংলাদেশ, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনাইটেড গ্রুপ ও টেলিটক বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানটি প্রিয়ডটকমের ফেসবুক ও ইউটিউব পেজে সরাসরি  প্রচার করা হয়। খবর: বাসস

 

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন প্রধান বিচারপতি

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন প্রধান বিচারপতি

২০ দিনে দুই হাজারেরও বেশি জেলে গ্রেফতার

২০ দিনে দুই হাজারেরও বেশি জেলে গ্রেফতার

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

ইলিশ সংরক্ষণ

২০ দিনে দুই হাজারেরও বেশি জেলে গ্রেফতার

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:৫৩

ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে গত ২ দিনে অন্তত দুই হাজার ৭০ জন জেলেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একই সময়ে এক হাজার ৪৫টি মাছ ধরা নৌকা ডুবিয়ে দিয়েছে নৌ-পুলিশ। এ সময় নৌ-পুলিশের পর হামলার ঘটনাও ঘটেছে। এসব ঘটনায় দুই শতাধিক মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযানে জব্দ হওয়া ৩০ হাজার কেজি ইলিশ মাছ বিতরণ করা হয়েছে বিভিন্ন এতিমখানায়

গত ৪ অক্টোবর থেকে ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান শুরু হয়। ২ অক্টোবর ছিল অভিযানের ২০তম দিন। এই ২০ দিনে দেশের ইলিশ প্রজনন নদীতে অভিযান চালায় নৌ-পুলিশ।

গ্রেফতার ও হামলা

নিষে অমান্য করে মাছ শিকারের ঘটনায় ২২৯টি মামলা হয়েছে। এরমধ্যে ২২৬টি মামলা মৎস্য আইনে এবং তিনটি পুলিশের পর আক্রম করার মামলা।

অপরদিকে২৪৩টি মোবাইল কোর্টে ৩৭৮ জনকে প্রায় ৩০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ৮৬৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে। মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ২৭৫ জনকে

ডুবিয়ে দেয়া হয়েছে সহস্রাধিক নৌকা

২০ দিনে দুই হাজারের বেশি মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলার আটক করেছে নৌ-পুলিশ। এরমধ্যে অন্তত এক হাজার ৪৫টি নৌকা ডুবিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। ৪৪৪টি নৌকা নৌ-পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে। দুটি নৌকা মালিকের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে আটক করা ৪২৯টি ট্রলারের মধ্যে ৯০টি নৌ-পুলিশের ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে।ধ্বংস করা হয়েছে ৩২৯টি ট্রলার। মালিকের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে ৫টিচারটি ট্রলার নেওয়া হয়েছে মৎস্য অফিসারদের হেফাজতে এবং একটি ট্রলার মুচলেকার মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ৩৬টি ফিশিং বোট মালিকের জিম্মায় ফেরত দেওয়া হয়েছে।

পোড়ানো হয়েছে ৮০ কোটি মিটার জাল

অভিযানে ৮০ কোটি চার লাখ ৩৬ হাজার মিটার বিভিন্ন ধরনের জাল জব্দ করা হয়। এরমধ্যে কারেন্ট জালচায়না চাইসিনথেটিক জালচরঘেরা জালরিং জালবেড়া জালটোনা জালমশারি জাল ও সুতার জাল রয়েছে। সবই পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

নৌ-পুলিশের অতিরিক্ত এসপি সাথী রানী শর্মা জানান, ‘ইলিশ সংরক্ষণে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী নৌ-পুলিশ দেশের নদীগুলোতে কড়া পাহারায় ছিল। যারা আইন অমান্য করে ইলিশ ধরেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সাড়ে পাঁচ লাখ জেলে পরিবারকে সহায়তা

ইলিশ আহরণ বন্ধ থাকাকালে এ বছর ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪৪টি জেলে পরিবারের জন্য ১১ হাজার ১১৮ দশমিক ৮৮ মেট্রিক টন ভিজিএফ চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ সময় পাশের দেশের জেলেরা যাতে দেশের সীমানায় মাছ ধরতে না পারে সেজন্য তৎপর ছিল কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী

উল্লেখ্যইলিশ সংরক্ষণে প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ অ্যাক্ট১৯৫০’-এর অধীনে প্রণীত প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ রুলস১৯৮৫’ অনুযায়ী ৪ থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণপরিবহনমজুত, বাজারজাতকরণক্রয়-বিক্রয় নিষিদ্ধ করে গত ২৬ সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। আইন অমান্যকারী কমপক্ষে ১ ও সর্বোচ্চ ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড অথবা পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে।

/এফএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন প্রধান বিচারপতি

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন প্রধান বিচারপতি

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ এর চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ এর চূড়ান্ত লটারি অনুষ্ঠিত

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

মাল্টায় বৈধভাবে অভিবাসন খরচ ২ লাখ টাকার বেশি নয়: আয়েবা

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

রেণু হত্যা মামলা: সাক্ষ্য দিলেন বাদীসহ ৩ জন

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

কলকাতা প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’র উদ্বোধন ২৮ অক্টোবর

কলকাতা প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’র উদ্বোধন ২৮ অক্টোবর

বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন: গুতেরেস

বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন: গুতেরেস

বাড্ডার আগুন নিয়ন্ত্রণে

বাড্ডার আগুন নিয়ন্ত্রণে

বিএফইউজের সভাপতি ওমর ফারুক ও মহাসচিব দীপ আজাদ

বিএফইউজের সভাপতি ওমর ফারুক ও মহাসচিব দীপ আজাদ

বাড্ডায় ফার্নিচার গোডাউনে আগুন

বাড্ডায় ফার্নিচার গোডাউনে আগুন

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

ডেমরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রঙমিস্ত্রির মৃত্যু

ডেমরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রঙমিস্ত্রির মৃত্যু

সর্বশেষ

১০ জন নিয়ে ড্র করলো পিএসজি

১০ জন নিয়ে ড্র করলো পিএসজি

কলম্বিয়ার মাদক মাফিয়া আটক, পাঠানো হবে যুক্তরাষ্ট্রে

কলম্বিয়ার মাদক মাফিয়া আটক, পাঠানো হবে যুক্তরাষ্ট্রে

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর ব্যবস্থা সন্তোষজনক: ব্রিটিশ হাইকমিশনার

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর ব্যবস্থা সন্তোষজনক: ব্রিটিশ হাইকমিশনার

পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর ভারতীয় সমর্থকদের হামলায় দুই ভাই আহত

পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর ভারতীয় সমর্থকদের হামলায় দুই ভাই আহত

© 2021 Bangla Tribune