X
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

‘বঙ্গবন্ধুর ছবি আদর্শ ও অনুপ্রেরণার উৎস’

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২৩

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবির দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ করে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, ‘এটা কোনও ব্যক্তির নয়, এটা বাংলাদেশের ছবি, আদর্শের ছবি, অনুপ্রেরণার ছবি। ব্যক্তিকে অতিক্রম করে সেই ছবি হয়ে উঠেছে আমাদের সকল প্রেরণার উৎস।’

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে জামালপুরের সরিষাবাড়ী কামারাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক স্মরণসভায় প্রধান অতিথির ব্ক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। মুজিব আদর্শ বাস্তবায়নে নিরন্তরভাবে কাজ করে যাওয়া প্রয়াত আবুল কালাম মন্ডল স্মরণে এ সভার আয়োজন করা হয়।

মুরাদ হাসান বলেন, ছবির পেছনের মহানায়ক, আমরা মুক্তিযুদ্ধের পরের প্রজন্ম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি আমাদের পথ দেখায়, জনসেবায় আত্মনিয়োগ করতে উৎসাহ যোগায়। এই ছবিতে নিহিত আছে আদর্শ। এই আদর্শের পথ বেয়ে আজকের বাংলাদেশ ও আগামীর সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ। 

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা দেখেছেন তারা সৌভাগ্যবান, যারা দেখেননি সেই ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য প্রতি ঘরে ঘরে তার ছবি রাখা উচিত। ইতিহাসের হাত ধরেই আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে, আমাদের যেতে হবে সমৃদ্ধির সর্বোচ্চ শিখরে। বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশ নয়, বিশ্বে মুক্তিকামী মানুষের জন্য এক অনন্য ইতিহাস। একটি ছবি যখন অনুপ্রাণিত করে, সেই ছবি আমাদের দৃষ্টিতে থাকা উচিত। কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নয়, নিজেকে আদর্শবান ও নৈতিকতায় বলীয়ান করে অন্যায়ের প্রতিবাদী হতে সাহসও যোগাবে।

কামরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আখতার হোসাইনের সভাপতিত্বে এবং নূরুল ইসলামের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, উপজেলা চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন পাঠান ও মেয়র মনির উদ্দিন প্রমুখ।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

এখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

এখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা

ময়মনসিংহে আরও ৩ রাজাকার গ্রেফতার 

ময়মনসিংহে আরও ৩ রাজাকার গ্রেফতার 

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

জানাজায় যাওয়ার পথে প্রাণ গেলো বৃদ্ধের

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬:১৭

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় অটোরিকশার ওপর গাছ পড়ে মঞ্জুর মন্ডল (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অটোরিকশার আরও পাঁচ যাত্রী।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) বেলা ১২টার দিকে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের মিরপুর ভাঙ্গা বটতলা নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। মঞ্জুর মন্ডল মিরপুর পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড তালতলা গ্রামের কাশেম মন্ডলের ছেলে।

আহতরা হলেন—মিরপুর উপজেলার ছাতিয়ান কালিতলা গ্রামের মহিবুুল (৩৫),  নিহেরনগর গ্রামের খাদিজা (৩০), চিথলিয়া গ্রামের রুপালী (৩৩), একই গ্রামের মৌসুমি (২৫) ও অঞ্জনগাছী গ্রামের মাছুরা খাতুন। 

মঞ্জুরের ভাতিজা স্থানীয় বিএনপি নেতা রহমত আলী রব্বান জানান, রবিবার দুপুরে অটোরিকশাযোগে আমলার নওদাপাড়া গ্রামের এক ব্যক্তির জানাজায় যাচ্ছিলেন তারা। ভাঙ্গা বটতলা নামক স্থানে রাস্তার পাশে গাছ কাটছিলেন কয়েকজন। এ সময় অটোরিকশার ওপরে গাছটি পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান মঞ্জুর। আহত হন আরও কয়েকজন।

মিরপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) দীপঙ্কর দাস জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহতদের মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা চলছে। কাউকে আটক করা যায়নি।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

নৌকা পেলেন ‘রাজাকার পরিবারের’ দুই সন্তান, মুক্তিযোদ্ধাদের ক্ষোভ

নৌকা পেলেন ‘রাজাকার পরিবারের’ দুই সন্তান, মুক্তিযোদ্ধাদের ক্ষোভ

জালিয়াতি করে আড়াই কোটি টাকা তুলে নিলেন হিসাব সহকারী

জালিয়াতি করে আড়াই কোটি টাকা তুলে নিলেন হিসাব সহকারী

ফেসবুকে একাধিক উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

ফেসবুকে একাধিক উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

ভারতে পাচার হওয়ার আড়াই বছর পর দেশে ফিরলো মেয়েটি

ভারতে পাচার হওয়ার আড়াই বছর পর দেশে ফিরলো মেয়েটি

চুল কেটে দেওয়া শিক্ষিকাকে বহিষ্কার না করায় শিক্ষার্থীর বিষপান

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৪৮

সিরাজগঞ্জে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনের স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে আবারও আমরণ অনশনে বসেছেন শিক্ষার্থীরা। সেখানে বক্তব্য দেওয়াকালে প্রকাশ্যে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন রফিকুল ইসলাম শামীম নামে এক শিক্ষার্থী। 

রবিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। রফিকুল ইসলাম সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থী। তাকে অ্যাম্বুলেন্সে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া শিক্ষার্থী আবু জাফর হোসাইন ও রাকিব হোসেন জানান, আজ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আন্দোলনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন শামীম। এ সময় হঠাৎ পকেট থেকে একটি বিষের বোতল বের করে সবার সামনে পান করেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে।

শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল কর্মকর্তা (আরএমও) রাকিব হাসনাত বলেন, রফিকুল ইসলাম শামীম নামে এক শিক্ষার্থীকে দুপুর পৌনে ১টার দিকে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে আমরা চিকিৎসা দিচ্ছি। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত।

চুল কেটে দেওয়া শিক্ষিকার বিষয়ে সিদ্ধান্ত না আসায় ফের অনশন

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনের স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে গত শুক্রবার রাত থেকে দ্বিতীয় দফায় আবারও আন্দোলন ও আমরণ অনশনে বসেন শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বিকালে অভিযুক্ত শিক্ষিকার বিষয়ে সিন্ডিকেট সভায় কোনও সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় দ্বিতীয় দফায় আবারও অনশনের মধ্য দিয়ে আন্দোলন শুরু হয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

ট্রাকচাপায় বিমানবাহিনীর সদস্যসহ নিহত ২

ট্রাকচাপায় বিমানবাহিনীর সদস্যসহ নিহত ২

একসঙ্গে ৩ সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে ৩ সন্তানের জন্ম

রাজশাহীতে ২৪ ঘণ্টায় ৮৬ জন গ্রেফতার

রাজশাহীতে ২৪ ঘণ্টায় ৮৬ জন গ্রেফতার

সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৩০

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তার দায়িত্ব সরকারের। কিন্তু সরকার সম্পূর্ণভাবে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। এর দায় নিয়ে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। 

রবিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীর সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, সরকার হিন্দু ও বৌদ্ধদের নিরাপত্তা দিতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। এমনকি বৃহত্তর জনগোষ্ঠী মুসলিম সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা দিতেও ব্যর্থ হয়েছে। সরকার সাম্প্রদায়িকতা বন্ধ করতে ব্যর্থ। জনগণের সমস্যা থেকে দৃষ্টি সরাতে সাম্প্রদায়িকতা করছে। আগামী জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের মাধ্যমে জাতীয় নির্বাচন করা দাবি থেকে দৃষ্টি সরাতে চায়। দেশে খুন-ধর্ষণ-অরাজকতা থেকে দৃষ্টি সরাতে এই ঘৃণ্য কাজ করছে। ছাত্রলীগের রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংগঠনিক সম্পাদক হাতেনাতে ধরা পড়েছে পুলিশের হাতে। সাম্প্রদায়িক হামলায় যে দুই জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে, তারা ছাত্রলীগ নেতা। কুমিল্লার ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতা। 

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মানুষের মৌলিক অধিকার ধ্বংস করে দিয়েছে। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের স্তম্ভগুলো নষ্ট করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। তারা নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিয়েছে। বিচার বিভাগ দলীয়করণ করেছে। প্রশাসন দলীয়করণ করেছে। গণমাধ্যমগুলো নিয়ন্ত্রণ করছে। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন থেকে সাংবাদিকরা রেহাই পাচ্ছেন না। 

ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় জেলে রাখা হয়েছিল। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান মিথ্যা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে বিদেশে আছেন। বিএনপির ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে সরকার। পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে। হাজারখানেক নেতাকর্মী খুন হয়েছে। চরম নৈরাজ্য ও গণতন্ত্রহীনতার মধ্যে দেশবাসী। 

এ সময় জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য কলিম উদ্দিন আহমেদ মিলন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুল সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেনসহ জেলা বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের জেলার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িক হামলায় আ.লীগ-ছাত্রলীগ জড়িত: মির্জা ফখরুল

সাম্প্রদায়িক হামলায় আ.লীগ-ছাত্রলীগ জড়িত: মির্জা ফখরুল

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু

সিলেট সফরে বিএনপির মহাসচিব

সিলেট সফরে বিএনপির মহাসচিব

মাদকসহ সমাজসেবা কর্মকর্তা গ্রেফতার

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৬

মাদকসহ গ্রেফতার হয়েছেন কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মশিউর রহমান। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিকালে রংপুরের শাপলা চত্বর এলাকা থেকে সাড়ে চার লিটার মদসহ তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-১৩। ওই দিনই তাকে রংপুর কোতয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়। রবিবার র‌্যাব-১৩-এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাহমুদ বশির আহমেদ এ তথ্য জানান।

মশিউর রহমান ২০১৯ সালের জুলাই থেকে উলিপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) ৩৭তম ব্যাচের সদস্য।

মাহমুদ বশির আহমেদ জানান, শুক্রবার বিকালে মশিউর রহমানকে সহযোগী রাসেলসহ গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দিয়ে রংপুর কোতয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

গ্রেফতার উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কী বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানতে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. রোকেনুল ইসলামকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

পীরগঞ্জের ঘটনায় গ্রেফতার সৈকতকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার

পীরগঞ্জের ঘটনায় গ্রেফতার সৈকতকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

সাম্প্রদায়িক হামলায় আ.লীগ-ছাত্রলীগ জড়িত: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৩১

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, ‘দেশ অশান্তিতে রয়েছে। মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারছে না। সাম্প্রতিক দেশে যেসব সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটছে, তাতে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের লোকজন জড়িত।’

রবিবার (২৪ অক্টোবর) সকালে সিলেটের হযরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজার জিয়ারত শেষে এসব কথা বলেন তিনি। এদিন সকালে বিএনপি নেতা ফজলুল হক আসপিয়ার স্মরণসভায় যোগ দিতে সিলেটে আসেন মির্জা ফখরুল। সেখান থেকে তিনি সুনামগঞ্জে স্মরণসভায় যোগ দেবেন। 

মাজার জিয়ারতের সময় বিএনপির মহাসচিবের সঙ্গে সিলেটের দলীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। তাদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেন অনেক নেতাকর্মী। 

মাজার জিয়ারত করে বেরিয়ে এসে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, ‘দেশে সাম্প্রদায়িক সমস্যাগুলো তৈরি করা হয়েছে। আপনারা পত্রপত্রিকায় দেখেছেন, এর নেতৃত্ব দিচ্ছে কারা? নেতৃত্ব দিচ্ছে ছাত্রলীগের ছেলেরা, নেতৃত্ব দিচ্ছে আওয়ামী লীগের লোকেরা। আজও পত্রিকায় এসেছে, রংপুরের ঘটনার নেতৃত্ব দিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা সৈকত।’

তিনি বলেন, ‘এটা খুব পরিষ্কার, সরকারের যেহেতু জনগণের সঙ্গে সম্পর্ক নেই, যেহেতু জনগণের ভোট তারা পায় না– সে জন্য জনগণের দৃষ্টিটাকে ভোটের অধিকার, গণতন্ত্রের অধিকার থেকে সরানোর জন্য এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে।’

ফখরুল ইসলামের অভিযোগ, সরকার জীবনের নিরাপত্তা দিতে পারছে না। তিনি বলেন, ‘একইভাবে আমাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের যারা আছেন, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের যারা আছেন, তাদের নিরাপত্তা সরকার দিতে পারছে না। সেই সঙ্গে আমাদের যে বৃহত্তর জনগোষ্ঠী আছে, মুসলমান সমাজ, ইসলাম ধর্মে যারা বিশ্বাস করেন, তাদেরও এখানে নিরাপত্তা নেই। সামগ্রিকভাবে জনগণের নিরাপত্তা দিতে সরকার ব্যর্থ হয়েছে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু

সিলেট সফরে বিএনপির মহাসচিব

সিলেট সফরে বিএনপির মহাসচিব

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজএখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা

ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিজিবি সদস্যের আত্মহত্যা

ময়মনসিংহে আরও ৩ রাজাকার গ্রেফতার 

ময়মনসিংহে আরও ৩ রাজাকার গ্রেফতার 

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

গফরগাঁওয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতার ৩

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতার ৩

ময়মনসিংহে শনাক্তের সঙ্গে বেড়েছে মৃত্যু 

ময়মনসিংহে শনাক্তের সঙ্গে বেড়েছে মৃত্যু 

নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে জেলা জামায়াতের আমিরসহ গ্রেফতার ১৪ 

নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে জেলা জামায়াতের আমিরসহ গ্রেফতার ১৪ 

পুকুর থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার 

পুকুর থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার 

সর্বশেষ

জানাজায় যাওয়ার পথে প্রাণ গেলো বৃদ্ধের

জানাজায় যাওয়ার পথে প্রাণ গেলো বৃদ্ধের

মারা গেছেন অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ

মারা গেছেন অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ

দক্ষ কর্মকর্তাকে প্রকল্প পরিচালক করার সুপারিশ

দক্ষ কর্মকর্তাকে প্রকল্প পরিচালক করার সুপারিশ

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক যেকোনও অংশীদারের চেয়ে গভীরতর: শ্রিংলা

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক যেকোনও অংশীদারের চেয়ে গভীরতর: শ্রিংলা

বিশ্বকাপ উত্তাপের মাঝেই এল ক্লাসিকো মহারণ

বিশ্বকাপ উত্তাপের মাঝেই এল ক্লাসিকো মহারণ

© 2021 Bangla Tribune