X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

তামিম বাঁহাতি হলেও ছেলে ব্যাট করেন ডান হাতে

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৪৩

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার পর আস্তে-ধীরে অনুশীলনে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। কয়েক দিন ধরেই মিরপুরে ব্যাটিং অনুশীলন করছেন তিনি। আপাতত তার লক্ষ্য হিমালয়ের বুকে অনুষ্ঠেয় এভারেস্ট টি-টোয়েন্টি লিগে খেলা। বুধবার মিরপুরের সবচেয়ে চমকপ্রদ ঘটনাটি হলো, এদিন তামিমের অনুশীলন সঙ্গী হয়েছেন তার ছেলে আরহাম ইকবাল।

আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে নেপালের এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগের প্রথম আসর। তামিম ইকবাল এ আসরে ভাইরাহাওয়া গ্ল্যাডিয়েটরসের হয়ে খেলবেন। ইনজুরির কারণে তার জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি খেলা হয়নি। তাই এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগ দিয়েই মাঠে ফেরার অপেক্ষায় আছেন তিনি। দীর্ঘ বিরতির পর মাঠে সেরাটা দিতে মিরপুরের সেন্টার উইকেটে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি।

ব্যাট করছেন আরহাম। বুধবার তামিম যখন অনুশীলনে আসেন, তখন তার সঙ্গী ছিল পুত্র আরহাম ইকবাল। সেন্টার উইকেটের একপাশে একজন স্লিপ, একজন কিপার রেখে ছোট্ট আরহাম ব্যাটিং করেছেন। গায়ে ছিল বাংলাদেশের জার্সি, ছাই রঙের হাফপ্যান্ট ও নীল রঙের ক্যাপ। ব্যাটিং শেষে আরহাম কিছুক্ষণ বোলিংও করেছেন। ছোট্ট রানআপে ব্যাটসম্যানদের বরাবর বল ছুড়েছেন। নিজের অনুশীলন শেষ হতে বাবার অনুশীলন মুগ্ধ হয়ে দেখেছেন।

নেটে বেশ আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে দেখা গেছে তামিমকে। বেশ কিছু বল ডাউন দ্য উইকেটে এসে খেলেছেন। কভার ড্রাইভ, স্ট্রেইট ড্রাইভ তো ছিলই। সব মিলে তার ফিরে আসার আভাসটা দুর্দান্তই বলা চলে!

/আরআই/এফআইআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

আইপিএলে নতুন দুই দল

আইপিএলে নতুন দুই দল

ম্যারাডোনা কাপে খেলবে বার্সা-বোকা

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৩:১২

ফুটবল বিশ্বের কাছে ২৫ নভেম্বর শোকাবহ একটি দিন। গত বছরের এ দিনটাতেই অসীমে পাড়ি জমিয়েছেন ফুটবল ঈশ্বর ডিয়েগো ম্যারাডোনা। তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১৪ ডিসেম্বর আয়োজিত হচ্ছে ম্যারাডোনা কাপ।

ম্যারাডোনা কাপে মুখোমুখি হবে লা লিগা জায়ান্ট বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার ঘরোয়া ক্লাব বোকা জুনিয়র্স। সোমবার এমন তথ্য জানিয়েছে দুই ক্লাব। বিবৃতিতে বার্সেলোনা জানিয়েছে, ‘ম্যারাডোনা কাপে ১৪ ডিসেম্বর বার্সেলোনা ও বোকা জুনিয়র্স মুখোমুখি হবে। ডিয়েগো ম্যারাডোনা স্মরণে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।’

আর্জেন্টাইন জায়ান্ট বোকাও জুনিয়র্সও জানিয়েছে, ঐতিহাসিক এই ম্যাচে তারা অংশ নেবে। আর সেটি অনুষ্ঠিত হবে সৌদি আরবের রিয়াদের মারসুল পার্কে। ফুটবল ঈশ্বরের স্মরণে এধরনের ম্যাচ আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করেছিল সৌদি।

১৯৮৬ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানো ম্যারাডোনা একটা সময় ওই দুটি ক্লাবের হয়েও খেলেছেন। জিতেছেন ট্রফি। কিন্তু তার সবচেয়ে সাফল্যমণ্ডিত ক্যারিয়ার ছিল ইতালির ক্লাব নাপোলিতে।

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নিয়ে রোমাঞ্চিত পর্তুগিজ কোচ

বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নিয়ে রোমাঞ্চিত পর্তুগিজ কোচ

বাংলাদেশ দলে জায়গা পেলেন কাতার প্রবাসী নবাব

বাংলাদেশ দলে জায়গা পেলেন কাতার প্রবাসী নবাব

১০ জন নিয়ে ড্র করলো পিএসজি

১০ জন নিয়ে ড্র করলো পিএসজি

ম্যানইউকে গোল বন্যায় ভাসালো লিভারপুল

ম্যানইউকে গোল বন্যায় ভাসালো লিভারপুল

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৭

দুই মাস আগে বাংলাদেশের কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার মতে, বাংলাদেশ ক্রিকেটের সংস্কৃতি বুঝবে এমন কোচকেই নিয়োগ দেওয়া উচিত। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অধিনায়কত্বের ভুল ও বাজে ফিল্ডিংয়ে ম্যাচ হাতছাড়া হওয়ার পর আবারও কোচ নিয়ে মন্তব্য করেছেন সাবেক এই অধিনায়ক। এবার তো কোচের ভূমিকা নিয়েই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৭২ রানের লক্ষ্য দিয়ে সাকিবের জোড়া আঘাতে একটা সময় ম্যাচের মোমেন্টাম বদলে ফেলেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আসালাঙ্কা ও রাজাপাকশে মিলে ফের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেন ম্যাচের। তখন সাকিবকে ভীষণ প্রয়োজন ছিল। কিন্তু সাকিব কিংবা নাসুমের হাতে বল তুলে না দিয়ে অফস্পিনার আফিফ এবং নিজে বোলিংয়ে আসেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। এই সিদ্ধান্তই পরে কাল হয়ে দাঁড়ায়।

শ্রীলঙ্কার কাছে এমন হারের পেছনে মাশরাফি দায় দেখছেন কোচিং স্টাফদের। ফেসবুকে ৬৭৫ শব্দের বিশাল পোস্টে তিনি সেইসব বিস্তারিত লিখেছেন, ‘ম্যাচের একদিন পার হয়ে গেলো, কতো কথা শুনলাম যার অনেক কিছুরই যুক্তি আছে, কারণ দল হেরে গেলে মানুষ তার প্রতিক্রিয়া নিজের মতো করে দেবে এটা স্বাভাবিক। আমার মনেও অনেক কিছুই এসেছে। তবে দুটি জিনিস খুব বেশি মনে হচ্ছে, ম্যাচটা হারার জন্য কি শুধুই রিয়াদ আর লিটনই দায়ী আর কোন বিষয় কি নেই?’ মাশরাফি মোট তিনটি বিষয়কে সামনে এসেছেন।

১. ম্যাচের ৯.৪ ওভার ৭৯ রানে ওদের ৪ উইকেট ঠিক তখন আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী ড্রিংক্স ব্রেক, তার মানে কোচ মাঠের ভেতর আসবে। আমাদের কোচও এসেছিল? তাহলে উনি এসে রিয়াদের সঙ্গে কী কথা বলেছিল। যদি বলে থাকে তাহলে কি সব দায় রিয়াদের? মানলাম অন ফিল্ড ক্যাপ্টেন কল ইজ ফাইনাল। তবে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের ক্রাঞ্চ মোমেন্টে কি কোচ আলোচনা করে না, কারণ ক্যাপ্টেন তখন বিভিন্ন বিষয়ে চাপে থাকে। তার প্ল্যান কি কোচ জানতে চেয়েছিল, আর যদি কথা হয়ে থাকে তাহলে কি কোচের প্রেস হ্যান্ডেল করা উচিত ছিল কিনা। কারণ রিয়াদের ভুলটা ধরা হয়েছে ঠিক ওই সময় থেকেই। ১১ নম্বর ওভার করে দলের মূল বোলার মেহেদী, ১২ নম্বর ওভার করে রিয়াদ সম্ভবতো ৫/৬ রান দেয়, ১৩ নম্বর ওভার করে আফিফ যে ওভারে ১৫ রান হয়। কিন্তু রিয়াদ যে চিন্তা থেকে আফিফকে এনেছিল সেটাতেও কিন্তু সুযোগ তৈরি হয়েছিল। যদি সুযোগ হাতছাড়া না হতো তাহলে আমরা বলতাম দারুণ ক্যাপ্টেনসি। ক্যাচ মিসের অজুহাত না দিলেও এটাই সত্য ক্যাচ মিস এই প্রথম হয়নি আর লিটন দলের সেরা ফিল্ডারদের একজন। কোন কোন সময় ভাগ্যটাও সঙ্গে থাকতে হয়। তাহলে স্রেফ দল সফল না হওয়ার কারণে এই দুজনকে এতটা তুলোধুনো করা কতটা ঠিক, আমি শিওর না। আর ঠিক এ কারণেই আমার মনে হয়েছে, যদি কোচ এ বিষয়ে রিয়াদের সঙ্গে কথা না বলে থাকে, তাহলে তো ব্রেকের সময় দলের টিম বয়কেই মাঠে পাঠিয়ে দেওয়া যায় হাই-হ্যালো করতে। কোচের আর প্রয়োজন কি।

২. ম্যাচের আগে উইকেট অ্যাসেস শুধু ক্যাপ্টেন করে না, পুরো টিম ম্যানেজমেন্ট সঙ্গে থাকে। তাহলে টিম করার সময় চিন্তা করেছে উইকেট স্লো হবে, যার কারণে তাসকিনকে বসিয়ে নাসুমকে খেলানো। কিন্তু নাসুমকে পাওয়ার প্লের পর বোলিং করানো হলো না, কারণ দুজন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান উইকেটে, তাহলে আগেই চিন্তা করা উচিত ছিল শ্রীলঙ্কার টপ ওর্ডারে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বেশি, তার ওপর মাঠের একপাশে মাত্র ৫৬ গজ। যখন নাসুমকে নেওয়া হয়েছে, ব্রেকের সময় কোচ রিয়াদকে কি বলেছে যে, নাসুম দলের মূল বোলার ওকে ব্যাক করো। কারণ ওই নাসুম-ই ব্রেকটা পরে দিয়েছে, ততক্ষণে ম্যাচ প্রায় শেষ।তাহলে ওই সময় কোচ কি বসে বসে কোন প্ল্যান না করে শুধু খেলা দেখেছে? আবারও বলছি, সিদ্ধান্ত রিয়াদ নিবে কিন্তু ওকে তো হেল্প করতে হবে কারণ মাঠে ক্যাপ্টেন কখনও কখনও অসহায় হয়ে পড়ে। আর ঠিক তখনই টিম ম্যানেজমেন্টকে টেকওফ করতে হয়। অন্যান্য দলে তো তাই দেখি।

৩. আরও অনেক বিষয় আছে বলা যায়, তবে লিটনের ক্যাচ মিসের কোন এক্সকিউজ দিবো না, এমনকি লিটন নিজেও দেবে না। তবে ক্যাচ মিস খেলার একটা অংশই। কিন্তু ফিল্ডিং কোচের কাছে কি এ বিষয়গুলো নিয়ে জানতে চাওয়া হয়? ক্যাচ মিস কি এই প্রথম হলো? ২০১৯ বিশ্বকাপের পর ম্যানেজমেন্ট এর প্রায় সবাই চাকরি হারিয়েছে স্রেফ বর্তমান ফিল্ডিং কোচ ছাড়া। তাহলে আমরা বিশ্বকাপে বা তারপর কি সেরা ফিল্ডিং সাইড হয়ে গিয়েছি? এখন টিম ম্যানেজমেন্ট দেখলে মনে হয় একটা রিহ্যাব সেন্টার, যেখানে সাউথ আফ্রিকার সব চাকরি না পাওয়া কোচগুলো একসঙ্গে আমাদের রিহ্যাব সেন্টারে চাকরি করছে। এদের বাদ দেওয়া আরও বিপদ। কারণ চুক্তির পুরো টাকাটা নিয়ে চলে যাবে। তাহলে দাঁড়ালো কী? তারা যতদিন থাকবে আর মন যা চাইবে তাই করবে। হেড কোচ এক এক করে নিজ দেশের সবাইকে আনছে, এরপর যারা অস্থায়ী ভাবে আছে তাদেরও সরাবে আর নিজের মতো করে ম্যানেজমেন্ট সাজাবে। তাও মেনে নিলাম কিন্তু রাসেল(হেড কোচ)ম্যানেজমেন্ট এর জন্য যেভাবে স্টেপআপ করে মূল দলের জন্য তাহলে লুকিয়ে কেন? কেন তামিম, মুশফিক, রিয়াদ ভালো থাকে না। এটা ঠিক করা তার কাজ না?

শেষ দিকে মাশরাফি লিখেছেন ম্যাচ হারের ব্যর্থতা ক্রিকেটারদেরই নিতে হবে, ‘তার পরও দায় খেলোয়াড়দেরকে নিতে হয়, হবে। এটাই স্বাভাবিক, কারণ মাঠে তারাই খেলে কিন্তু একটা বিষয় পরিষ্কার যে, খেলোয়াড়দেরকে সেরকম পরিবেশ করে দিতে হবে। তাদের কে বুঝাতে হবে তাদের বিপদে কেউ পাশে না থাকুক অন্ততো টিম ম্যানেজমেন্ট থাকবে। আমি আমার ক্যাপ্টেনসির শেষ প্রেস কনফারেন্সে বলেছিলাম, এই দলের কোচ যেই হোক না কেন, এখন এই দলের রেজাল্ট করার সময়, পরীক্ষার না। কোচের চাহিদা মেটানোর আগে আমাদের দেশের স্বার্থ দেখতে হবে। কারণ ক্রিকেট দেশের মানুষের কাছে এখন স্রেফ খেলা না, রীতিমতো আবেগে পরিণত হয়েছে। ভালো করুক আমার প্রিয় দল। আল্লাহ সহায় হোন আমাদের।’

/আরআই/এফআইআর/

সম্পর্কিত

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

আইপিএলে নতুন দুই দল

আইপিএলে নতুন দুই দল

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৯

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তারা। ব্যাট হাতে যাদের ধুন্ধুমার ব্যাটিং স্টেডিয়াম মাত করে রাখে। সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ টুর্নামেন্ট শুরু করেছে বাজেভাবে! তাও আবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫৫ রানে অলআউট হয়ে। মারমুখী ব্যাটিংয়ের মূল্যই দিতে হয়েছে তাদের। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ। ক্যারিবীয় কোচ ফিল সিমন্স জানালেন, তার পরেও আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না তার দল।

প্রথম ম্যাচের ব্যাটিংটাকে তিনি স্রেফ বাজে শট সিলেকশনের মাঝেই ফেলে দিলেন, ‘আমার জন্য শনিবারটা ছিল বাজে শট সিলেকশনের দিন। বোলিংটাও আহামরি কিছু ছিল না। অথচ ইংলিশদের বিপক্ষে আমরা আগেও মুখোমুখি হয়েছি। তাই বিষয়টাকে বাজে শট সিলেকশনের মাঝেই ফেলবো।’

অথচ ক্যারিবীয়দের এই ব্যাটিং লাইন আপটা বারুদ ঠাসা।  যাদের মূল মন্ত্র পাওয়ার হিটিং।তাই সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্লো ও নিচু উইকেটে সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে রাসেল-পোলার্ডদের। সিমন্স স্বীকার করেছেন, বিষয়টা প্রভাব ফেলেছে ঠিকই। কিন্তু খেলার স্টাইলে বদল আনবে না তারা। তবে পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে খেলার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছেন তিনি, ‘আমাদের খেলার ধরনটা সব সময়ই একটা স্টাইল মেনে চলে। তবে একটা বিষয়টা আমাদের ভাবা উচিত। সেটা হলো সময়ের সঙ্গে পরিস্থিতি বুঝে উঠা এবং তার সঙ্গে মানিয়ে খেলতে পারা। আমার মনে হয়, দলে যথেষ্ট অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে সেটা করতে পারার জন্য।তাই আগ্রাসী মনোভাবটা ছাড়বো না। কিন্তু শট সিলেকশন ও পরিস্থিতি বুঝে ওঠার ব্যাপারটায় আমাদের আরও ভালো হতে হবে।’

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

আইপিএলে নতুন দুই দল

আইপিএলে নতুন দুই দল

টিভিতে আজ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৮

 

টিভি সূচি (মঙ্গলবার,২৬ অক্টোবর,২০২১)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

সুপার টুয়েলভ

দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

সরাসরি, বিকাল ৪টা, গাজী টিভি, টি স্পোর্টস

পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড

সরাসরি, রাত ৮টা, টি স্পোর্টস, গাজী টিভি

লা লিগা

আথলেতিক বিলবাও-এস্পানিওল

সরাসরি, রাত ১টা, টি স্পোর্টস

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

বাংলাদেশকে হারানো স্কটিশদের ৬০ রানে অলআউট করলো আফগানিস্তান

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২৩:৫৬

বিশ্বকাপের প্রথম দিনেই বাংলাদেশকে হারিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছিল স্কটল্যান্ড। এখানেই শেষ নয়, ওমানে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক রাউন্ডের ‘বি’ গ্রুপে থাকা পাপুয়া নিউগিনি, ওমানকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সুপার টুয়েলভে সুযোগ করে নিয়েছে তারা। সোমবার (২৫ অক্টোবর) সেই স্কটিশদের মাটিতে নামিয়ে আনলো আফগানিস্তান। তাদের দেওয়া ১৯০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে স্কটিশরা অলআউট মাত্র ৬০ রানেই। ফলে ১৩০ রানের বড় ব্যবধানে জয় পায় আফগানরা।

সোমবার শারজাতে আগে ব্যাটিং করে বড় পুঁজি পায় আফগানিস্তান। স্কটল্যান্ডের নির্বিষ বোলিংয়ের সামনে ৪ উইকেট হারিয়ে আফগানদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৯০। ১৯১ রানের কঠিন লক্ষ্যে খেলতে নেমে স্কটল্যান্ডের দুই ওপেনার মিলে ২৮ রান করেন। ডানহাতি স্পিনার মুজিবুর রহমানের ঘূর্ণিজাদুতে ২৫ রানে বোল্ড হন স্কটিশ ওপেনার জর্জ মুনসি। সেই থেকেই ধস নামা শুরু। স্কটিশ ১০ ব্যাটারের মধ্যে মাত্র তিনজন দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পেরেছেন। মুনসির ২৫ ছাড়া বাংলাদেশকে হারানোর নায়ক ক্রিস গ্রেভস ১২ ও অধিনায়ক কাইল কোয়েটজারের ব্যাট থেকে আসে ১০ রান। ৫ ব্যাটার রানের খাতা না খুলেই সাজঘরে ফিরেছেন।

স্কটিশদের ব্যাটিং লাইনআপ ভেঙ্গে দিতে ভূমিকা রেখেছেন অফস্পিনার মুজিবুর রহমান ও লেগ স্পিনার রশিদ খান। মুজিব ২০ রানে ৫টি ও রশিদ ৯ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন।

এর আগে শারজাতে আগে ব্যাটিং করা আফগানিস্তানের দুই ওপেনার হজরতউল্লাহ জাঝাই ও মোহাম্মদ শাহজাদ উড়ন্ত সূচনা এনে দেন। ৫৪ রানের জুটি গড়ে শাহজাদ (২২) আউট হন। জাঝাই সাজঘরে ফেরার আগে ৩০ বলে করেন ৪৪ রান। ১০ ওভারে আফগানিস্তানের রান ছিল ৮২। শেষ ১০ ওভারে তারা তোলে ১০৮ রান। আফগানদের হয়ে সর্বোচ্চ রান আসে নাজিবুল্লাহর ব্যাট থেকে। ৩৪ বলে ৫৯ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। এছাড়া ৩৭ বলে ১ চার ও ৪ ছক্কায় ৪৬ রান করেন রহমতউল্লাহ।

স্কটিশদের বোলারদের মধ্যে শাফইয়ান শরিফ ৩৩ রানে ২ উইকেট নেন। 

/আরআই/এমএস/

সম্পর্কিত

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

শ্রীলঙ্কার কাছে হারের জন্য কোচিং স্টাফদের দায় দেখছেন মাশরাফি

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

তবু আগ্রাসী ব্যাটিং ছাড়বে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আইপিএলে নতুন দুই দল

আইপিএলে নতুন দুই দল

এবার লঙ্কান যুবাদের কাছে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ 

এবার লঙ্কান যুবাদের কাছে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ 

quiz
সর্বশেষসর্বাধিক
© 2021 Bangla Tribune