X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

জমি পেলেই ডিএনসিসির বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প শুরু

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৪

বাসাবাড়িতে ব্যবহৃত বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প গ্রহণ করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। বিদ্যুৎ বিভাগের তত্ত্বাবধানে ডিএনসিসির আমিনবাজার ল্যান্ড-ফিল এলাকায় এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। এরইমধ্যে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এই প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। প্রকল্প অনুযায়ী, ডিএনসিসি স্পন্সর কোম্পানিকে ৩০ একর জমি ও দিনে ৩ হাজার মেট্রিক টন বর্জ্য সরবরাহ করবে। এজন্য ৬৩০ কোটি টাকা প্রয়োজন হলেও ডিএনসিসি পেয়েছে মাত্র ৩৭ কোটি টাকা। এ ছাড়া প্রকল্পের অন্যান্য কাজ শেষ পর্যায়ে থাকলেও এখন পর্যন্ত জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু হয়নি। এ অবস্থায় জমি অধিগ্রহণ হলেই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে উত্তর সিটি।

প্রকল্প সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এবং প্রক্রিয়াকরণ কমিটির সুপারিশের আলোকে বেসরকারি খাত বিদ্যুৎ উৎপাদনের নীতি ১৯৯৪-এর আওতায় চায়না মেশিনারিজ ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন (সিএমইসি) কর্তৃক ডিএনসিসিতে ৪২ দশমিক ৫ মেগাওয়াট ক্ষমতার বর্জ্য বিদ্যুৎকেন্দ্রে ইনসিনারেশন পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। আগামী ২০ মাসের মধ্যে সিএমইসি এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। চুক্তির মেয়াদ হবে ২৫ বছর।

স্পন্সর কোম্পানি নিজ ঝুঁকিতেই প্লান্ট স্থাপন, পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় বহন করবে। বিদ্যুৎ বিভাগের কাছে উৎপাদিত বিদ্যুৎ বিক্রির মাধ্যমে ব্যয় নির্বাহ করবে তারা। সিটি করপোরেশন প্লান্ট স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় জমির সংস্থান এবং নিয়মিত বর্জ্য সরবরাহ করবে।

প্লান্টটি চালু হলে সেখানে প্রতি সপ্তাহে একুশ হাজার মেট্রিক টন বর্জ্য সরবরাহ করতে হবে। এই পরিমাণ বর্জ্য সরবরাহ করতে না পারলে উত্তর সিটি করপোরেশনকে প্রতি টন ঘাটতি বর্জ্যের জন্য তিন হাজার টাকা হারে স্পন্সর কোম্পানিকে ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে হবে। অপরদিকে সরবরাহ থাকা সত্ত্বেও ডিএনসিসি কর্তৃক সরবরাহকৃত বর্জ্য গ্রহণ না করা হলে প্রতি টন ঘাটতি বর্জ্যের জন্য একইভাবে ডিএনসিসিকেও স্পন্সর কোম্পানি ক্ষতিপূরণ দেবে। এ কারণে বর্জ্য সংগ্রহে বাড়তি তাগিদ থাকবে ডিএনসিসির। এ পরিমাণ বর্জ্য নিয়মিত সংগ্রহ করতে হলে দেখা যাবে আর কোথাও ময়লা-আবর্জনা পড়ে থাকবে না।

প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে হলে ৩০ একর জমি দিতে হবে স্পন্সর কোম্পানিকে। তবে ৩০ একরের বেশি জমির প্রয়োজন হলে তা স্পন্সর কোম্পানি নিজ উদ্যোগে ক্রয় বা দীর্ঘমেয়াদে লিজ নেবে। প্রকল্পে বর্জ্য পুড়ে তৈরি হওয়া ছাই রাখার জন্য আঙিনা নির্মাণের জন্য অতিরিক্ত ২০ একর জমির প্রয়োজন হবে। প্রকল্পে উৎপাদিত বিদ্যুৎ সরকারই কিনে নেবে।

জানতে চাইলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, প্রকল্পটি বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় থেকে ভেটিং বা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে যাবে। এরপর সরকার থেকে জি টু জি চুক্তি হবে।

তবে প্রকল্পের এখনও জমি অধিগ্রহণ হয়নি বলে জানান মেয়র। তিনি বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে আমাকে সাত বিঘা জমি দিতে হবে। এই জমি অধিগ্রহণের অর্থ এখনও আমরা পাইনি। এজন্য ৬৩০ কোটি টাকা দরকার। এ থেকে মাত্র ৩৭ কোটি টাকা পেয়েছি। আমাদের প্রকল্পের পুরো কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আমি স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি অর্থ সচিবের সঙ্গে কথা বলেছেন। অর্থ সচিব বলেছেন দ্রুত অর্থ ছাড়ের ব্যবস্থা করবেন। কারণ, এটি প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প।

তিনি আরও বলেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যদি বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়; তাহলে বাংলাদেশের চিত্র ঘুরে যাবে। তখন বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য কয়লা বা গ্যাসের প্রয়োজন হবে না। গ্যাস ইন্ডাস্ট্রিতেও সরবরাহ করা যাবে, এতে সংকট থাকবে না।

আতিকুল ইসলাম বলেন, জমি অধিগ্রহণ না হলে আমি চুক্তি সই করবো না। কারণ, চুক্তি স্বাক্ষরের পর তিন মাসের মধ্যে যদি জমি দিতে না পারি তাহলে আমাকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। সেক্ষেত্রে জমি দিতে না পারলে তো তারা প্রকল্প শুরু করতে পারবে না। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, অধিগ্রহণের পর চুক্তি সই করবো। এখন যত দ্রুত জমি অধিগ্রহণ হবে তত দ্রুত প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে।

বর্তমানে আমিনবাজার ল্যান্ড-ফিলে যে জমি রয়েছে তা ব্যবহার করা যাবে না বলেও জানান মেয়র। তিনি বলেন, ওই জমিতে প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব নয়। কারণ, সেখানে প্রকল্প শুরু করতে হলে জমিতে ফাইলিং করতে হবে। বর্জ্যের কারণে ল্যান্ড-ফিল অনেক উঁচু হয়ে পড়েছে। সেখানে কোনও ফাইলিং করা যাবে না। তাই নতুন জমি দেখতে হবে।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ডিএনসিসি এলাকায় দিনে দুই হাজার সাতশ’ থেকে তিন হাজার মেট্রিক টনের মতো বর্জ্য উৎপাদন হয়। নতুন এলাকাগুলো থেকে বর্জ্য সংগ্রহ শুরু করলে পরিমাণ আরও বাড়বে। এমন বিধান রাখায় ডিএনসিসি বর্জ্য সংগ্রহে আগ্রহী হবে। কোথাও ময়লা পড়ে থাকবে না।

এ প্রক্রিয়ায় বর্জ্য প্রায় সম্পূর্ণ পুড়িয়ে বর্জ্যের আয়তন ৯০ শতাংশ হ্রাস করা সম্ভব বলে মনে করছে সিটি করপোরেশন। এর ফলে পৌর-বর্জ্য রাখার জন্য জমির চাহিদাও হ্রাস পাবে। আবার ইনসিনারেশন প্রযুক্তি প্রয়োগে বর্জ্যের দহনে সৃষ্ট গ্যাসীয় নিঃসরণও কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত হবে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বলছে, বর্তমানে বিশ্বে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা একটি বড় চ্যালেঞ্জ। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থার ব্যাপক উন্নতি হওয়ায় মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। বেড়েছে ভোগ ও বর্জ্যের পরিমাণও। কিন্তু এসব বর্জ্য নিষ্পত্তির কার্যকর ব্যবস্থা না থাকায় নদ-নদী, খাল-বিল, ড্রেনে তৈরি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পরিবেশ। প্রকল্পটির সফল বাস্তবায়ন হলে দেশের সব সিটি করপোরেশন, পৌরসভা এবং জেলা পর্যায়ে ইনসিনারেশন পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে সরকার।

আরও পড়ুন: ক্ষতিপূরণ এড়াতে ৩ হাজার টন বর্জ্য জোগাড় করতেই হবে ডিএনসিসিকে

/এনএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘ঢাকা মেয়র কাপ আন্তওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা’র দ্বিতীয় আসর ২২ ডিসেম্বর

‘ঢাকা মেয়র কাপ আন্তওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা’র দ্বিতীয় আসর ২২ ডিসেম্বর

রাজধানীর বংশালে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

রাজধানীর বংশালে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ধানমন্ডির আড্ডা রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা

ধানমন্ডির আড্ডা রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা

যাত্রাবাড়ীর দুই প্রতিষ্ঠানকে আট লাখ টাকা জরিমানা

যাত্রাবাড়ীর দুই প্রতিষ্ঠানকে আট লাখ টাকা জরিমানা

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:১৯

রাজধানীর তেজগাঁও থানাধীন বিজয় সরণিতে কলমিলতা বাজার জবর দখলের ঘটনায় ক্ষতিপূরণ না দেওয়ায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রিট দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) মোহম্মদ আবদুর রহিম ও নুরতাজ আরা ঐশীর পক্ষে আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ এ রিট দায়ের করেন।

রিটে আবেদনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সচিব, ভূমি মন্ত্রণালয় সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সচিব, ঢাকার জেলা প্রশাসক (ডিসি), ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম, প্রধান নির্বাহী ও প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তাকে বিবাদী করা হয়েছে।

আবেদনে রিটকারীদের স্বত্ব দখলীয় ঢাকার তেজগাঁও থানাধীন বিজয় সরণিতে কলমিলতা বাজার জবর দখল ও ক্ষতিপূরণ না দেওয়া কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং ১নং বিবাদী মেয়র হিসাবে আইনগতভাবে দায়িত্ব পালন না করে জোরপূর্বক রিটকারীদের সকল সম্পত্তি অবৈধ দখলে রাখায় মেয়র পদে থাকার অধিকার হারায় মর্মে তার মেয়রপদ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

এছাড়া রিটকারীদের ওই সম্পত্তি ও অন্যান্য ক্ষতিপূরণ বাবদ ৪ হাজার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ হিসাবে দেওয়ার জন্য কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতেও রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।
এসব রুল শুনানি না হওয়া পর্যন্ত তিনি যেন মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে না পারে সেজন্য নিষেধাজ্ঞাও চাওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে গত ১৯ মে বিবাদীদের কাছে করা আবেদন ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে রিটে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

/বিআই/এমআর/

সম্পর্কিত

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫২

বালু কিনে বিল পরিশোধ না করার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে তা খারিজে করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে সাহেদের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সগীর হোসেন লিয়ন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ।

উত্তরা পশ্চিম থানায় এক ব্যবসায়ী থেকে  মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিম নিজের প্রতিষ্ঠানের জন্য বালু ক্রয় করেন। কিন্তু সে টাকা পরিশোধ না তিনি ওই ব্যবসায়ীকে ঘোরাতে থাকেন। এক পর্যায়ে টাকা দেওয়ার কথা বলে ওই ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে মারধরের অভিযোগ ওঠে সাহেদেরর বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় ব্যবসায়ী বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০২০ সালের ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়ম ধরা পড়ে। পরদিন ৭ জুলাই রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।  

এরপর একই বছরের ১৫ জুলাই সাতক্ষীরার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

/বিআই/এমআর/

সম্পর্কিত

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর সঙ্গে মালয়েশিয়ান হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:১১

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ান হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ভার্চুয়ালি তিনি টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর সঙ্গে এ সাক্ষাৎ করেন।

সাক্ষাৎকালে তারা দ্বিপক্ষীয় স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়, বিশেষ করে টেলিযোগাযোগ খাতে বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে মতবিনিময় করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যকার ঐতিহাসিক সম্পর্ক তুলে ধরে বলেন, ‘অনেক বিষয়ে ঐতিহ্যগতভাবে বাংলাদেশের সঙ্গে মালয়েশিয়ার মিল রয়েছে।’ তিনি মালয়েশিয়াকে বাংলাদেশের অকৃত্রিম ও পরীক্ষিত বন্ধু উল্লেখ করে বলেন, ‘জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে রোহিঙ্গা ইস্যুসহ বিভিন্ন বিষয়ে মালয়েশিয়ার ভূমিকা অত্যন্ত প্রেরণাদায়ক।’ তিনি রবি আজিয়াটাসহ মালয়েশিয়ান রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ইডটকো বাংলাদেশে টেলিকম খাতে বিশাল অবদান রাখছে বলে উল্লেখ করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বাস্তবায়নে ডিজিটাল অবকাঠামো খাতসহ বিভিন্ন খাতে মালয়েশিয়ার বিনিয়োগের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম মালয়েশিয়া স্বাধীন বাংলাদেশের স্বীকৃতি প্রদানকারী এশিয়ার প্রথম মুসলিম দেশ উল্লেখ করে বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যমান চমৎকার সম্পর্কের জন্য মালয়েশিয়া অত্যন্ত গর্বিত।’ বঙ্গবন্ধুর মালয়েশিয়া সফরের বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘১৯৯৬ সালে টেলিকম খাতে মালয়েশিয়া প্রথম বিনিয়োগ যাত্রা শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় টেলিকম খাতে ২০১৮ সালে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ইডটকো বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে।’ তিনি এসএমপি (সিগনিফিকেন্ট মার্কেট পাওয়ার)-সহ কিছু বিষয়ে মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। মন্ত্রী বিষয়গুলো নিয়ে সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

/এইচএএইচ/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

উন্নয়ন প্রকল্পে অনিয়ম ও ধীরগতিতে সংসদীয় কমিটির ক্ষোভ

উন্নয়ন প্রকল্পে অনিয়ম ও ধীরগতিতে সংসদীয় কমিটির ক্ষোভ

স্ত্রীকে নির্যাতন না করার শর্তে স্বামীর চাকরি ফেরানোর আদেশ

স্ত্রীকে নির্যাতন না করার শর্তে স্বামীর চাকরি ফেরানোর আদেশ

সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে রিট

সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে রিট

সংশোধন হচ্ছে আরপিও, কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের ক্ষেত্রে সময় বাড়ছে

সংশোধন হচ্ছে আরপিও, কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের ক্ষেত্রে সময় বাড়ছে

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:০৫

আরব-বাংলাদেশ ব্যাংকের চৌমুহনী শাখা থেকে টাকা স্থানান্তরে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার ঘটনায় দুদকের সহকারী পরিচালক মো. মশিউর রহমানকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। দুদকের নোয়াখালী সমন্বতি জেলা কার্যালয়ের এই সহকারী পরিচালককে আগামী ৭ নভেম্বর সকালে আদালতে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

ওই গ্রাহকের আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আন্না খানম কলি ও মো সাইফুর রহমান সিদ্দিকী সাইফ। আর রিভিশন আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী একেএম নুরুল আলম।

এর আগে আরব-বাংলাদেশ ব্যাংক চৌমুহনী শাখায় গ্রাহক মো. আবদুল মমিনের লোনের জন্য জমা দেওয়া ৩ কোটি ১৮ লাশ ২০ হাজার ৪০০ টাকা তার অ্যাকাউন্ট থেকে বেআইনিভাবে স্থানান্তর করে আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় ব্যাংকটির কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন আহমেদ, তপনকান্তী পোদ্দার, মো. নাজিম উদ্দিন, মো. হানিফের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা না নিয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়।

পরে একই বিষয়ে আবদুল মমিন নোয়াখালীর বিশেষ জজ আদালতে মামলা করতে গেলেও অনুসন্ধানকারী দুদক কর্মকর্তা মো. মশিউর রহমান আদালতে লিখিত আপত্তি দাখিল করেন। পরে এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করেন আবদুল মবিন।

 

/বিআই/আইএ/

সম্পর্কিত

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

শিশুদের স্কুলে ফেরা নিরাপদ করতে ১৯ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগ

শিশুদের স্কুলে ফেরা নিরাপদ করতে ১৯ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগ

রোগীর স্বজন সেজে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলো নারী

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৫৫

‘হাসপাতালে রোগী ভর্তি আছেন’- এই কথা বলে নাসির নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলেন এক নারী। নাসিরেরও এক রোগী ভর্তি রয়েছেন একই হাসপাতালে। দুজনই রোগীর স্বজন হিসেবে প্রথমে নানা বিষয়ে গল্পগুজব করেন। হাসপাতালের বারান্দায় বসে আলাপ আলোচনার এক পর্যায়ে দুজনে বাইরে বের হন। একসঙ্গে নাস্তা খেয়ে হাসপাতালে ফিরে অচেতন হয়ে পড়েন নাসির। আর এই সুযোগে তার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে পালিয়ে যায় অজ্ঞাত সেই নারী। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ঘটেছে এই ঘটনা।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, ব্রাহ্মণবাবাড়িয়া থেকে গোলেনা বেগম নামে এক রোগীকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আসেন নাসির। গাইনি ওয়ার্ডে রোগী ভর্তি করার পর বারান্দায় বসে ছিলেন নাসির। এসময় সেখানে অজ্ঞাত এক নারীর সঙ্গে পরিচয়। ওই নারী তাদের জানান, তারও রোগী আছে গাইনি ওয়ার্ডে। রোগী ও চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে নানা কথাবার্তা বলার পর তারা একসঙ্গে হাসপাতাল থেকে বাইরে বের হন। ফুটপাতের চায়ের দোকানে বসে একসঙ্গে খাবার খান তারা। এরপর আবার গাইনি ওয়ার্ডের বারান্দায় ফিরে এসে ধীরে ধীরে অচেতন হয়ে পড়েন নাসির। এসময় আরেক স্বজন তাকে ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে উদ্ধার করে জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তার পাকস্থলী পরিষ্কার করেন।

নাসিরের স্বজনরা জানান, নাসিরের কাছে চিকিৎসা খরচ বাবদ ২০ হাজার টাকা ছিল, তা আর পাওয়া যায়নি। আর ঘটনার পর থেকে ওই নারীকেও হাসপাতাল এলাকায় দেখা যায়নি। তাদের ধারণা অজ্ঞাত ওই নারী কৌশলে নাসিরকে হাসপাতালের বাইরে নিয়ে চেতনানাশক কিছু খাইয়ে টাকাগুলো নিয়ে গেছে।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক এএসআই আব্দুল খান বলেন, বিষয়টি শুনেছি। ওই রোগীর পাকস্থলী পরিষ্কার করা হয়েছে। তিনি চিকিৎসাধীন। অজ্ঞাত ওই নারীর খোঁজ করা হচ্ছে। ঢামেক হাসপাতালের নিরাপত্তা কাজে নিয়োজিত থাকা আনসারের প্লাটুন কমান্ডার মো. শাহ আলম বলেন, বিষয়টি জানার পর যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। ওই নারীকে খোঁজা হচ্ছে।

/এআইবি/এনএল/এমআর/

সম্পর্কিত

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

প্রতারণার মামলায় সেই সাহেদকে জামিন দেননি হাইকোর্ট 

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

দুদকের এক সহকারী পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

বেতার ভবনে দুদকের ঝটিকা অভিযান

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘ঢাকা মেয়র কাপ আন্তওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা’র দ্বিতীয় আসর ২২ ডিসেম্বর

‘ঢাকা মেয়র কাপ আন্তওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা’র দ্বিতীয় আসর ২২ ডিসেম্বর

রাজধানীর বংশালে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

রাজধানীর বংশালে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ধানমন্ডির আড্ডা রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা

ধানমন্ডির আড্ডা রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা

যাত্রাবাড়ীর দুই প্রতিষ্ঠানকে আট লাখ টাকা জরিমানা

যাত্রাবাড়ীর দুই প্রতিষ্ঠানকে আট লাখ টাকা জরিমানা

‘জনপ্রতিনিধিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া উচিত’

‘জনপ্রতিনিধিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া উচিত’

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে পদযাত্রা

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে পদযাত্রা

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীর বিজয় সরণিতে বাসের ধাক্কায় একজনের মৃত্যু

রাজধানীর বিজয় সরণিতে বাসের ধাক্কায় একজনের মৃত্যু

সর্বশেষ

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ

সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ

মাংস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে নববধূকে তালাক, পরদিন ফের বিয়ে

মাংস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে নববধূকে তালাক, পরদিন ফের বিয়ে

মীরসরাইয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ

মীরসরাইয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ

© 2021 Bangla Tribune