X
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার প্রতিবাদে সারা দেশে কর্মসূচি অব্যাহত

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২০:৪০

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বন্ধ ও দোষীদের বিচারের দাবিতে ঢাকাসহ সারা দেশে প্রতিবাদ, অনশন ও বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত আছে। শনিবার (২৩ অক্টোবর) রাজধানীসহ মানিকগঞ্জ, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, চট্টগ্রাম, পটুয়াখালী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, পঞ্চগড়, দিনাজপুর, নোয়াখালী, জামালপুরে গণঅবস্থান, অনশনসহ নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১১টায় সারা দেশে ‘সুজন’-এর উদ্যোগে দ্য হাঙ্গার প্রজেক্ট, ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার, জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম, বিকশিত নারী নেটওয়ার্কসহ সমমনা সংগঠনগুলোকে নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। ঢাকার মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয় জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে। সমমনা সংগঠনের মধ্যে গণস্বাক্ষরতা অভিযান, মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্র, এবং রিসার্চ অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট অরগানাইজেশন এই মানববন্ধনে যোগ দেয়। 

.

মানববন্ধনে সুজনের সহসভাপতি ও মানবাধিকারকর্মী ড. হামিদা হোসেন, সুজন সম্পাপদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের সভাপতি রাশেদা আক্তার শেলীসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধনটি সঞ্চালনা করেন সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার।          

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘আমাদের ঘরে আগুন লেগেছে, আমরা কেউই নিরাপদ নই। এটা আমাদের জন্য জেগে ওঠার ঘণ্টাধ্বনি। দীর্ঘদিন ধরে বিচারহীনতার সংস্কৃতি, দোষারোপের সংস্কৃতির কারণে অপরাধীরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে।’

.

তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামের মিতু হত্যার পর আমরা দেখলাম— পুলিশ অনেক  মানুষকে গ্রেফতার করেছে, অথচ পরে দেখা গেলো সর্ষের মধ্যেই ভূত। অথচ কত মানুষের জীবন জীবিকা নষ্ট করে দেওয়া হলো। সাম্প্রতিক হামলাগুলোর ক্ষেত্রে আমরা দেখতে পাচ্ছি, আমাদের তরুণরা অনেক ক্ষেত্রে সামনের কাতারে ছিল, এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আশঙ্কাজনক একটি বিষয়। তরুণদের জন্য আমাদের এখনই একটি জাতীয় কর্মসূচি নিতে হবে।’

হামিদা হোসেন বলেন, ‘প্রশাসন ও পুলিশ ঠিক মতো কাজ করছে না। এখন নাগরিকদের বিভিন্ন সক্রিয় কর্মসূচি নিতে হবে। বিভিন্ন নাগরিক সংগঠনকে একজোট হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন, তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ ইত্যাদি কাজ করতে হবে।’

‘সাম্প্রদায়িক হামলাকারী’ ও তাদের পেছনে থাকা চক্রান্তকারীদের বিচারে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের দাবি জানিয়েছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। ট্রাইব্যুনাল গঠনসহ আট দফা দাবি জানিয়ে রাজধানীর শাহবাগে ‘গণঅনশন ও গণঅবস্থান’ কর্মসূচি শেষ করেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। সেই সঙ্গে ঘোষণা করা হয়েছে তিন দফা কর্মসূচিও।

.

পাশপাশি শনিবার সকাল ৬টা থেকে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে গণঅবস্থান কর্মসূচি শুরু করে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। পরে তাদের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে অবস্থান নেয় বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন। এক পর্যায়ে একটি অংশ শাহবাগ মোড় অবরোধ করে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মানবাধিকার কর্মী খুশি কবির পানি পান করিয়ে আন্দোলনকারীদের অনশন ভাঙান। পরে আয়োজকরা বিক্ষোভ মিছিল বের শাহবাগ মোড় ছেড়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবের দিকে পদযাত্রা করেন। তাদের সঙ্গে যুক্ত হন অবরোধকারীরাও।

. কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় সারা দেশের সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলায় ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির, বাড়ি-ঘর পুনর্নির্মাণ, ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত।  শনিবার (২৩ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর আন্দরকিল্লা মোড় এলাকায় সংগঠনটির উদ্যোগে আয়োজিত গণঅনশন ও বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব দাবি জানান। গণঅনশন ও বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচিতে সনাতন ধর্মাবলম্বী শত শত নারী পুরুষ অংশ নেন। এসময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির, বাড়ি-ঘর পুনর্নির্মাণ, ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন, যথাযথ ক্ষতিপূরণ ছাড়াও আহতদের চিকিৎসা এবং নিহতদের প্রতিটি পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানান।

/এসও/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে, সম-অবস্থান হয়নি’

‘নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে, সম-অবস্থান হয়নি’

‘চেষ্টা করলে বুড়িগঙ্গাকেও বাঁচাতে পারবো’

‘চেষ্টা করলে বুড়িগঙ্গাকেও বাঁচাতে পারবো’

‘অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে নদী-খাল-জলাধার ফিরিয়ে আনা হবে’

‘অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে নদী-খাল-জলাধার ফিরিয়ে আনা হবে’

ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হলো আরও দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০

ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হলো আরও দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

‘নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে, সম-অবস্থান হয়নি’

‘নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে, সম-অবস্থান হয়নি’

‘চেষ্টা করলে বুড়িগঙ্গাকেও বাঁচাতে পারবো’

নদী উৎসব ২০২১‘চেষ্টা করলে বুড়িগঙ্গাকেও বাঁচাতে পারবো’

‘অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে নদী-খাল-জলাধার ফিরিয়ে আনা হবে’

‘অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে নদী-খাল-জলাধার ফিরিয়ে আনা হবে’

ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হলো আরও দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০

ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হলো আরও দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০

একটি ভালো কাজ করলেই বিনামূল্যে খাবার

একটি ভালো কাজ করলেই বিনামূল্যে খাবার

প্রাণী ও বন রক্ষায় একজোট ২৭ পরিবেশবাদী সংগঠন

প্রাণী ও বন রক্ষায় একজোট ২৭ পরিবেশবাদী সংগঠন

ছুড়ে ফেললেও বেঁচে আছে নবজাতকটি!

ছুড়ে ফেললেও বেঁচে আছে নবজাতকটি!

আহসান কবিরকে চাপা দেওয়া ডিএনসিসির গাড়িচালক গ্রেফতার

আহসান কবিরকে চাপা দেওয়া ডিএনসিসির গাড়িচালক গ্রেফতার

শহীদ ডা. মিলন দিবস শনিবার

শহীদ ডা. মিলন দিবস শনিবার

পণ্যের মোড়কে ‘রঙ ফর্সাকারী’ ‘শতভাগ খাঁটি’ জাতীয় শব্দ নয়

পণ্যের মোড়কে ‘রঙ ফর্সাকারী’ ‘শতভাগ খাঁটি’ জাতীয় শব্দ নয়

সর্বশেষ

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য পিসিআর টেস্ট বাধ্যতামূলক করলো যুক্তরাজ্য

আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য পিসিআর টেস্ট বাধ্যতামূলক করলো যুক্তরাজ্য

© 2021 Bangla Tribune