বেসরকারি খাতের সুরক্ষায় ‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশের’ যাত্রা শুরু

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৩৯, মে ১৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪০, মে ১৯, ২০২০

বেসরকারি খাতের সুরক্ষায় এবং অর্থনৈতিক গতিশীলতা আনতে করণীয় নির্ধারণে ‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ নামে একটি প্ল্যাটফর্মের যাত্রা শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ মে) ঢাকা চেম্বার থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের দরুণ বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনীতি বিশেষ করে বেসরকারি খাতের ব্যবসা-বাণিজ্য যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। এই কঠিন বাস্তবতা থেকে বাংলাদেশের উত্তরণ এবং বেসরকারি খাতের কর্মচঞ্চল গতিশীলতা পুনরুদ্ধারে করণীয় নির্ধারণের লক্ষ্যে এই প্ল্যাটফর্ম যাত্রা শুরু করলো।

দেশের শীর্ষ স্থানীয় চারটি বাণিজ্য সংগঠন ও একটি বেসরকারি খাত ভিত্তিক অর্থনৈতিক থিংক ট্যাংকের সমন্বয়ে ‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ নামে প্ল্যাটফর্মটি মঙ্গলবার থেকে কার্যক্রম শুরু করেছে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে— মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই), ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই), চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই), বিজনেস ইনিশিয়েটিভ লিডিং ডেভেলপমেন্ট (বিল্ড) এবং পলিসি এক্সচেঞ্জ।

এই প্ল্যাটফর্মটি বাংলাদেশের অর্থনীতির সার্বিক উত্তরণের লক্ষ্যে যেসব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবে, তারমধ্যে রয়েছে, বেসরকারি খাতে করোনাভাইরাসের প্রকৃত প্রভাব নিরূপণে প্রণালীবদ্ধ মূল্যায়ন পরিচালনা এবং কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব থেকে অর্থনীতির উত্তরণের কৌশল প্রণয়ন। পাশাপাশি জাতীয় অর্থনীতি পুনরুদ্ধার কৌশল নিরূপণে সরকারের কাছে সুসংগঠিত তথ্য-উপাত্তভিত্তিক সুপারিশমালা প্রেরণ করা। তৃতীয়ত, সরকারি প্রয়োজনীয় সহায়ক নীতিমালা প্রণয়নের স্বার্থে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বভিত্তিক আলোচনার আয়োজন করাসহ বেসরকারি খাতে গতিশীলতা পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়াকে অনুপ্রাণিত করা। এ বিষয়ে বাজেট প্রক্রিয়াতে সংশ্লিষ্ট নীতিসহায়তামূলক প্রস্তাবনা পেশ করা। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে যেসব ক্ষুদ্র ও একক  মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে, তাদের প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রাপ্তির লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট মহলে অভিমত তুলে ধরা। 

এছাড়া, সাতটি সুনির্দিষ্ট অর্থনৈতিক বিষয়ের ওপর, যথা— উৎপাদন খাত, সেবা খাত, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য/রফতানি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই), আর্থিক খাত, বেসরকারি বিনিয়োগ এবং কৃষি খাতের ওপর বিশ্লেষণাত্মক নীতিসহায়তা এবং পলিসি ডায়ালগ আয়োজন করা। এভাবে এই প্ল্যাটফর্মটি দেশের বেসরকারি খাতের গতিশীলতা পুনরুদ্ধারে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

প্ল্যাটফর্মটির কার্যক্রম একটি স্টিয়ারিং কমিটির দিক-নির্দেশনায় গৃহীত হবে। স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যরা হলেন— সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর (উপদেষ্টা, লেদার ফুটওয়্যার অ্যান্ড গুডস ম্যানুফেকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন), নিহাদ কবির (সভাপতি-এমসিসিআই), শামস মাহমুদ (সভাপতি-ডিসিসিআই), আবুল কাসেম খান (চেয়ারম্যান-বিল্ড), আসিফ ইব্রাহীম (চেয়ারম্যান-সিএসই) এবং ড. মাশরুর রিয়াজ (চেয়ারম্যান-পলিসি এক্সচেঞ্জ)। পলিসি এক্সচেঞ্জ এই প্ল্যাটফর্মের টেকনিকাল সচিবালয় হিসেবে কাজ করবে।

 

/জিএম/এপিএইচ/

লাইভ

টপ