ডিজিটাল চালান উদ্বোধন

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:২২, অক্টোবর ০৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:২৬, অক্টোবর ০৮, ২০২০

এনবিআর

ট্রেজারি চালানের অর্থ জমা সহজ করা, গ্রাহক ভোগান্তি কমানো, ভুয়া চালান জমা ও রাজস্ব ফাঁকির প্রবণতা রোধে ডিজিটাল চালানের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম ও অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার যৌথভাবে এর উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল, হিসাব মহানিয়ন্ত্রক জহুরুল ইসলাম ও এনবিআর সদস্য আলমগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, প্রথম পর্যায়ে ঢাকা মহানগরীতে এনবিআরের কর অঞ্চল-৪ এর আওতায় ব্যক্তি ও কোম্পানিরা এই সিস্টেমে আয়কর জমা দিতে পারবেন। অচিরেই এই সিস্টেমের মাধ্যমে ভ্যাট, জমি রেজিস্ট্রেশন ও গাড়ি রেজিস্টেশন ফিসহ সরকারি ১৯৬ ধরনের রাজস্ব ও ফির অর্থ জমা নেওয়া হবে।

স্বয়ংক্রিয় চালান পদ্ধতি সারা দেশে তিন পর্যায়ে বাস্তবায়ন করা হবে। প্রথম পর্যায়ে ঢাকা মহানগরীর সোনালী ব্যাংকসহ চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক রূপালী, অগ্রণী, জনতা ব্যাংকের সব শাখায়। দ্বিতীয় পর্যায়ে ঢাকা মহানগরীর অন্যান্য সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের শাখায় এবং তৃতীয় পর্যায়ে সারা দেশে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের শাখায় বাস্তবায়ন করা হবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, স্বয়ংক্রিয় চালান পদ্ধতির মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের যেকোনও শাখায় ট্রেজারি চালানের অর্থ জমা নেওয়া যাবে। বর্তমানে শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকের ৯টি শাখায় এবং সোনালী ব্যাংকের এক হাজার ২২৪টি শাখায় ট্রেজারি চালানের অর্থ নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া স্বয়ংক্রিয় চালান পদ্ধতিতে ব্যাংক শাখার কাউন্টারে নগদ, চেক ও অ্যাকাউন্ট ডেবিটের মাধ্যমে অর্থ জমাসহ গ্রাহক অনলাইন ব্যাংকিং ও মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সিস্টেমের মাধ্যমেও চালানের অর্থ জমা দিতে পারবেন। নগদ ও অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ জমা দেওয়া হলে গ্রাহককে তাৎক্ষণিকভাবে চালানের কপি দেওয়া হবে। চেকের ক্ষেত্রে গ্রাহক চেক জমা স্লিপ পাবেন এবং পরবর্তীতে চেক ক্লিয়ার হলে গ্রাহককে পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী চালান দেওয়া হবে। চেক গ্রহণ এবং চালান ইস্যু প্রতিটি স্তরেই গ্রাহক তার মোবাইলে মেসেজ পাবেন।

অনলাইন ব্যাংকিং ও মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সিস্টেমের মাধ্যমে অর্থ জমা দেওয়া হলে বাংলাদেশ ব্যাংক এর রিয়েল টাইম গ্রোস স্টেটমেন্টের (আরটিজিএস) মাধ্যমে চালানের অর্থ তাৎক্ষণিকভাবে সরকারি কোষাগারে জমা হবে।

 

 

/জিএম/এএইচ/

লাইভ

টপ