X
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২০ মাঘ ১৪২৯

ছাত্রলীগের মিছিলে জিয়ার স্লোগান, নেতাকর্মীদের সমালোচনা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি 
১১ নভেম্বর ২০২২, ০৬:০৬আপডেট : ১১ নভেম্বর ২০২২, ০৬:০৬

সাইফুল ইসলামকে সভাপতি ও তানভীর হাসান আরিফকে সাধারণ সম্পাদক করে পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পর আনন্দ মিছিল করেছে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ওই আনন্দ মিছিলে বিএনপি ও শহীদ জিয়ার স্লোগান দেওয়ার একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন মন্তব্য করে হতাশা প্রকাশ করেছেন।

বুধবার (৯ নভেম্বর ) রাত ১০টার দিকে পটুয়াখালী সরকারি কলেজের সামনে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিলে ওই স্লোগান দেওয়া হয়। এ সময় ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। তবে কে বা কারা ভিডিওটি ছড়িয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এক মিনিট ৪৫ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, নবনির্বাচিত ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক  তানভীর হাসান আরিফকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পারভেজ। তিনি বলেন, স্নেহের আরিফ দীর্ঘদিন পরিশ্রমের পরে আল্লাহতাআলা তার মনের আশা পূরণ করেছেন। আমরা যারা ওর জন্য রাজপথে অনেক শ্রম দিয়েছি, আমরা চাই ও যেন আগামী দিনে সঠিকভাবে জেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দিতে পারে।

পরে বর্তমান জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হান্নান হাওলাদার স্লোগান দেন। এক পর্যায়ে স্লোগানে বলতে শোনা য়ায়, লড়াই লড়াই লড়াই চাই; লড়াই করে বাঁচতে চাই। এই লড়াইয়ে জিতবে কারা? শহীদ জিয়ার সৈনিকেরা।

ওই আনন্দ মিছিলে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। তাদের অনেককেই একই স্লোগান দিতে শোনা যায়।

এ ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা করেছেন অনেকে। ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে কেউ বলছেন, এই যদি হয় দলের অবস্থা তবে আর রাজনীতি করা ঠিক হবে না। আবার কেউ লিখেছেন, টাকার বিনিময়ে কমিটি পেলে তো বিএনপি, জামায়াত এমনিতেই দলে ঢুকে যাবে। ত্যাগীরা সব সময়ই অনাদরে পড়ে থাকবে।

পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান আরিফ বলেন, যারা মিছিল করেছেন, তাদের মিছিলে কোনও ভুল দেখেনি। পরে ভিডিওটা এডিট করে কেউ ছেড়ে দিয়েছে।

পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলমগীর হোসেন বলেন, ওই ভিডিওটি আমি দেখেছি। যার পক্ষেই ওই মিছিলটি হয়েছে তার মধ্যে অনুপ্রবেশকারী ঢুকে গেছে। ভিডিওটি দেখার পরে ওরা যার সমর্থক তাকে ফোন দিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এমপি/
সর্বশেষ খবর
সিটে তোলেন প্রাধ্যক্ষ, নামায় ছাত্রলীগ
সিটে তোলেন প্রাধ্যক্ষ, নামায় ছাত্রলীগ
৪ মাস পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সেই স্মৃতি
৪ মাস পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সেই স্মৃতি
স্পিকারের সঙ্গে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সাক্ষাৎ
স্পিকারের সঙ্গে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সাক্ষাৎ
উপাচার্যের আশ্বাসে হলে ফিরে গেলেন অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা
উপাচার্যের আশ্বাসে হলে ফিরে গেলেন অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা
সর্বাধিক পঠিত
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ